মান মান মান মান এবং মান

ড. মোহাম্মদ আমীন
সংযোগ: https://draminbd.com/মান-মান-মান-মান-এবং-মান/
অভিধানে পৃথক ভুক্তিতে পাঁচটি মান আছে। যথা—
১. প্রথম তৎসম মান: তৎসম মান (√মা+অন) অর্থ বিশেষ্যে (১) মাত্রা পরিমাপের উপকরণ (মানদণ্ড), (২) পরিমাপকরণ, (৩) সংগীতে তালের বিরাম বা মাত্রা, (৪) (গণিতে) প্রকৃত মূল্য, value, (৫) উৎকর্ষ বা অপকর্ষের পরিমাণ (জীবন-যাত্রার মান), standard। 
বাজারে এখন উন্নত মানসম্মত দ্রব্য পাওয়া যায় না বললেই চলে। মান দেখে কেনো ধান, মান জেনে গাও গান।
২. দ্বিতীয় তৎসম মান: তৎসম দ্বিতীয় মান( √মান্+অ) অর্থ (বিশেষ্যে) (১) সম্মান, সম্ভ্রম, ইজ্জত (২) মর্যাদা (মান বজায় রাখা), শ্রদ্ধা (মান পাওয়া) (৩) অভিমান (মানভঞ্জন), (৪) দর্প, দম্ভ, অহংকার, 
সুন্দরীগো দোহাই দোহাই, মান করো না. . .।
৩. খাঁটি বাংলা মান: সংস্কৃত মানক থেকে উদ্ভূত খাঁটি বাংলা মান অর্থ (বিশেষ্যে) রেঁধে খাওয়া যায় এমন কন্দবিশেষ (মানকচু)। 
প্রয়োগ: মানকচুর লম্বা পেট, বসকে এটা দেব ভেট।
৪. ব্যাকরণিক তদ্বিত প্রত্যয় মান:  -মান হলো বিশেষণে যুক্ত বিশিষ্ট অন্বিত বিদ্যমানতা প্রভৃতি অর্থে ব্যবহৃত তদ্ধিত প্রত্যয়বিশেষ। যেমন: বুদ্ধিমান, শক্তিমান, ঋদ্ধিমান।
বাঘের মতো শক্তিমান ছেলেটি অসুখের পর  বিড়ালের চেয়েও দুর্বল  হয়ে গিয়েছে।
৫. ব্যাকরণিক সংস্কৃত কৃৎপ্রতয় মান:  এই মান হলো বিশেষণে সংস্কৃত কৃৎপ্রত্যয় ‘শানচ্’-এর রূপ। যেমন: দণ্ডায়মান, শব্দায়মান, ধাবমান, চলমান।
দণ্ডায়মান লোকটি হঠাৎ নিচে পড়ে গেল।
শুবাচি সেলিম শেখের ভাষায়, “সদর দরজায় মানকচু কাঁধে নতুন জামাইকে দণ্ডায়মান দেখিয়া বুদ্ধিমান শ্বশুর কোন মানদণ্ডে জামাইয়ের মান নির্ধারণ করিবেন বুঝিতে না পারিয়া মানে মানে সেখান হইতে অন্দরমহলে গমন করিলেন।”
মান/মাণ সহযোগে গঠিত কিছু শব্দ 
১. ধুমায়মান: যা থেকে ধোঁয়া উঠছে।
২. ধ্রিয়মান: যাকে ধারণ করা হচ্ছে।
৩. নিরীক্ষমাণ: যে নিরীক্ষণ করছে।
৪. নিরীক্ষ্যমাণ: যাকে নিরীক্ষণ করা হচ্ছে।
৫. নির্মীয়মাণ: যা নির্মাণ করা হচ্ছে।
৬. নীয়মান: যা নেওয়া হচ্ছে বা যাকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।
৭. নৃত্যমান: যে নৃত্য করছে।
৮. পলায়মান: পালিয়ে যাচ্ছে যে।
৯. প্রতীক্ষমাণ: যে প্রতীক্ষা করে রয়েছে।
১০. প্রতীক্ষ্যমাণ: যার জন্য প্রতীক্ষা করা হচ্ছে।
শুবাচ গ্রুপের সংযোগ: www.draminbd.com
শুবাচ যযাতি/পোস্ট সংযোগ: http://subachbd.com/
আমি শুবাচ থেকে বলছি
error: Content is protected !!