মিথোম্যানিয়: মিথ্যা বলার বাতিক

ড. মোহাম্মদ আমীন

 

মিথোম্যানিয় (Mythomania): মিথ্যা বলার বাতিক

মিথোম্যানিয়া (Mythomania) অর্থ— An excessive or abnormal propensity for lying and exaggerating; Lying or exaggerating to an abnormal degree. মিথ্যা বলা বা অতিমাত্রায়  অতিরঞ্জিত করার অস্বাভাবিক প্রবণতা বা বদভ্যাস বা বাতিকই হচ্ছে মিথোম্যানিয়া।  বাংলায় বলা যায়— মিথ্যাগ্রস্ততা, মিথ্যাক্রান্ততা, মিথ্যাবাতিক প্রভৃতি।  যারা এমন বাতিকে আক্রান্ত তাদের বলা হয় মিথোম্যানিয়াক (Mythomaniac)। বাংলায় বলা যেতে পারে মিথ্যাহত, মিথ্যাক্রান্ত, মিথ্যাগ্রস্ত প্রভৃতি।  অনেকে মনে করেন, আধুনিক বিশ্বের সবচেয়ে কুখ্যাত ম্যানিয়াক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
 
চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় এটি একটি রোগ। এই রোগে আক্রান্তরা লাভ-অলাভ বিবেচনা ছাড়াও এমনি এমনি  মিথ্যা বলে। মিথ্যা না-বললে তাদের তৃপ্তি আসে না। মিথ্যা কথা বা অতিরঞ্জিত কিছু বলতে না পারলে প্রেয়সীর অবহেলায় আক্রান্ত প্রেমিকের মতো ছটফট করে।  তাই অযথা এবং অপ্রয়োজনেও হরদম মিথ্যা বা অতিরঞ্জিত কথা বলে যায়। রোগী বিবেচনায় এদের ঘৃণা না করে চিকিৎসার  ব্যবস্থা করা সমীচীন।
 
পৃথিবীর সিংহভাগ মানুষে কমবেশি এ রোগটি দেখা যায়। অবতারগণ এই রোগে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়। চাঁদের বুকে মানুষের মুখ, পর্বত চূড়োয় দেবীর নৃত্য, ঈশ্বরের বরলাভ, ভূতের সাথে যুদ্ধ, বিড়ালের পাখা, গোরস্তানে নরকঙ্কালের সঙ্গে কথা বলা আরও নানারকম মিথ্যা বা অতিরঞ্জিত কথা তার বলে থাকে। আবার অনেকে পার্থিব বিষয়ে অন্যকে হেয় করার জন্যও মিথ্যা বলে থাকে। এতে যদি তার কোনো লাভ হয় না, বরং ক্ষতি হওয়ার সমূহ আশঙ্কা থাকে। 
 
মিথ্যা হতে মিথ। মিথোলজির সঙ্গে মিথোম্যানিয়ার সম্পর্ক রয়েছে। মিথ বা মিথ্যা হতে জাত বিষয়ে অত্যধিক বিশ্বাস এবং তা থেকে নানা মিথ্যা ও উদ্ভট কাহিনির উদ্ভাবন মিথোম্যানিয়াকদের একটি লক্ষণ। তাছাড়া সাধারণ মিথ্যা তো অহরহ আছেই। যেমন: লোকটি ঘরে, অথচ বলে ফেলল— বাইরে। যদিও এর কোনো প্রয়োজন ছিল না এবং এতে কোনো লাভও নেই। লিংক:
 
শুবাচ গ্রুপের লিংক: www.draminbd.com
error: Content is protected !!