মুক্তিযুদ্ধে মহিলা : বীরপ্রতীক তারামন বিবি

ড. মোহাম্মদ আমীন

তারামন বিবি

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ অবদানের ১৯৭৩ খ্রিষ্টাব্দে বাংলাদেশ সরকার তারামন বিবিকে বীর প্রতীক খেতাবে ভূষিত করে। ১৯৭৩ খ্রিষ্টাব্দের সরকারি গেজেট অনুযায়ী তার বীরত্বভূষণ নম্বর ৩৯৪। গেজেটে নাম মোছাম্মৎ তারামন বেগম। তারামন বিবি ১৯৫৭ খ্রিষ্টাব্দে কুড়িগ্রাম জেলার চর রাজিবপুর উপজেলার শংকর মাধবপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম আবদুস সোহবান এবং মায়ের নাম কুলসুম বিবি। তারামন বিবির স্বামীর নাম আবদুল মজিদ। এই দম্পতির এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত তিনি কুড়িগ্রামের রাজিবপুরে স্বামী ও দুই সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন। ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ১লা ডিসেম্বর তিনি নিজ বাসায় মারা যান। তাকে রাজিবপুর উপজেলার কাচারীপাড়ার তালতলা কবরস্থানে তাঁকে  রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাধিস্থ করা হয়।

১. বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক মুন্সি আব্দুর রউফ : প্রথম শহিদ বীরশ্রেষ্ঠ 

২. বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল : দ্বিতীয় শহিদ বীরশ্রেষ্ঠ

৩. বীরশ্রেষ্ঠ ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মতিউর রহমান : তৃতীয় শহিদর বীরশ্রেষ্ঠ

৪.  বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্স নায়েক নুর মোহাম্মদ শেখ : চতুর্থ শহিদ বীরশ্রেষ্ঠ

৫. বীরশ্রেষ্ঠ সিপাহী মোহাম্মদ হামিদুর রহমান : পঞ্চম শহিদ বীরশ্রেষ্ঠ. 

৬. বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ রুহুল আমিন : ষষ্ঠ শহিদ বীরশ্রেষ্ঠ

৭. বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর : সপ্তম শহিদ বীরশ্রেষ্ঠ

স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ সমগ্র : লিংক

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

—————————————————————————————-

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন

শুবাচ

শুদ্ধ বানান চর্চা/২

শুদ্ধ বানান চর্চা/৪

 

error: Content is protected !!