মুজিববর্ষ না কি মুজিব বর্ষ : কোনটি প্রমিত

ড. মোহাম্মদ আমীন
মুজিববর্ষ না কি মুজিব বর্ষ? অনেকে বলেন, মুজিববর্ষ।
কেন?
তাদের যুক্তি— “এটি সমাসবদ্ধ পদ। সমাসবদ্ধ পদ সবসময় পরস্পর সেঁটে বসাতে হয়। ‘মুজিববর্ষ’ একটি সমাসবদ্ধ পদ। তাই ‘মুজিব বর্ষ’ লেখা শুদ্ধ হবে না। লিখতে হবে— ‘মুজিববর্ষ।”
কিন্তু ব্যাকরণ তা বলে না। সমাসবদ্ধ পদ সবসময় সেঁটে লিখতে হয় না।  সমাস হচ্ছে বাংলা ভাষার পিঁয়াজ। হলে ভালো, কম হলে আরও ভালো এবং অনেক সময় না হলে আরও ভালো। বাংলায় সমাসের মাধ্যমে গঠিত শব্দের বানান তিন উপায়ে লেখা হয়। যথা: (১) নিরেট বা অবিচ্ছিন্নভাবে (রূপকথা, তেমাথা, চাঁদমুখ), (২)  মধ্যখানে হাইফেন দিয়ে (মা-বাবা-ভাই-বোন, দিন-রাত); এবং (৩) বিচ্ছিন্ন বা অসংলগ্নভাবে। সুতরাং সমাসবদ্ধ পদ সবসময় সেঁটে লিখতে হয়— একথা আদৌ সঠিক নয়। ব্যাকরণ বলে: “কেবল উচ্চারণ মাধুর্য, পরিচ্ছন্ন অর্থদ্যোতনা ও দৃষ্টিনন্দন  করার জন্য সমাসবদ্ধ পদ সেঁটে লেখা হয়। আর একটি বিষয়ও এখানে প্রণিধানযোগ্য এবং সেটি হচ্ছে— প্রচলন।”
যখন প্রথম তিনটি বিষয়, অর্থাৎ উচ্চারণ মাধুর্য, পরিচ্ছন্ন অর্থদ্যোতনা ও দৃষ্টিনন্দন ‍বিবেচনায় আনার প্রয়োজন হয় না, তখন সমাসবদ্ধ পদ সেঁটে বসানোর আবশ্যকতা নেই। বরং বাংলায় তা ফাঁক রেখে লেখা উত্তম। এজন্য লেখা হয়: স্বাধীনতা দিবস, জয় বাংলা, শুদ্ধ বানান চর্চা, শহিদ মিনার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, যোগাযোগ মন্ত্রণালয়, প্রথম আলো, সংগীত সম্মেলন;  প্রধান শিক্ষক, সমাজ সংস্কার আন্দোলন, মৈত্রী সেতু, স্বাধীনতা দিবস, নারকেল গাছ, ঘোড়ার ডিম, কলের গান, গোরুর গাড়ি, বালিকা বিদ্যালয়, দক্ষিণ পাঞ্জাব নিখিল শিখ ছাত্র সঙ্ঘ, নিখিল ভারত যুব মুসলিম সাহিত্য সংসদ,  নিখিল বাংলা চিরন্তন আকালি যুব সংহতি সমিতি ইত্যাদি। ফাঁক রেখে লেখা হলেও এগুলো সমাসবদ্ধ পদ। ড. সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায় সমাসসাধিত পদের বানান এরূপ বিচ্ছিন্নভাবে লেখাকে অসংলগ্ন সমাস আখ্যায়িত করেছেন। 
বাংলায় সমাসবদ্ধ পদ ইচ্ছানুযায়ী সংলগ্ন বা অসংলগ্ন রাখার যাবতীয় অধিকার ব্যাকরণই দিয়ে রেখেছে। অতএব, বাংলা ব্যাকরণে প্রবহমান সংস্কৃত সমাসকে অত গুরুত্ব দেওয়া অনাবশ্যক। যেখানে অনিবার্য নয় এবং সমাসবদ্ধ করা না-হলে শোভন দেখায় না; দৃষ্টিকটু মনে হয়— কেবল সেসব ক্ষেত্র ছাড়া অন্য কোথাও সমাসবদ্ধ পদকে একসঙ্গে লেখা বাধ্যতামূলক করার কোনো হেতু নেই। এটি লেখকের ইচ্ছানির্ভর হওয়া সমীচীন। তবে, একই লেখায় যেন ভিন্নতা না-হয়, সেটি লক্ষ রাখা সমীচীন। 
‘মুজিববর্ষ’ বা ‘মুজিব বর্ষ’ সমাসবদ্ধ পদ। সমাসবদ্ধ পদ কখন কীভাবে লেখা হবে এবং তা কীসের ওপর নির্ভরশীল তা  ইতঃপূর্বে আলোচনা করা হয়েছে।  যেহেতু ‘মুজিববর্ষ’ কথাটিকে ফাঁক করে ‘মুজিব বর্ষ’ লিখলে উচ্চারণ, অর্থ কিংবা দৃষ্টিকটু হয় না, বরং অধিকতর শ্রুতিমধুর মনে হয়; অধিকন্তু মুজিব বর্ষ শব্দটি প্রাতিষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃত, প্রতিষ্ঠিত ও ব্যবহৃত, কাজেই  ‘মুজিববর্ষ’ নয়, ‘মুজিব বর্ষ’ পদটিই প্রমিত।
——————————–

All Link

বিসিএস প্রিলি থেকে ভাইভা কৃতকার্য কৌশল

ড. মোহাম্মদ আমীনের লেখা বইয়ের তালিকা

বাংলা সাহিত্যবিষয়ক লিংক

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক সকল গুরুত্বপূর্ণ সাধারণজ্ঞান লিংক

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/১

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/২

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন /৩

কীভাবে হলো দেশের নাম

ইউরোপ মহাদেশ : ইতিহাস ও নামকরণ লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

দৈনন্দিন বিজ্ঞান লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৩

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৪

কীভাবে হলো দেশের নাম

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/১

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/২

বাংলাদেশের তারিখ

ব্যাবহারিক বাংলা বানান সমগ্র : পাঞ্জেরী পবিলেকশন্স লি.

শুদ্ধ বানান চর্চা প্রমিত বাংলা বানান বিধি : বানান শেখার বই

কি না  বনাম কিনা এবং না কি বনাম নাকি

মত বনাম মতো : কোথায় কোনটি এবং কেন লিখবেন

ভূ ভূমি ভূগোল ভূতল ভূলোক কিন্তু ত্রিভুবন : ত্রিভুবনের প্রিয় মোহাম্মদ

মত বনাম মতো : কোথায় কোনটি এবং কেন লিখবেন

প্রশাসনিক প্রাশাসনিক  ও সমসাময়িক ও সামসময়িক

বিবিধ এবং হযবরল : জ্ঞান কোষ

সেবা কিন্তু পরিষেবা কেন

ভাষা নদীর মতো নয় প্রকৃতির মতো

এককথায় প্রকাশ

শব্দের বানানে অভিধানের ভূমিকা

আফসোস নিয়ে আফসোস

লক্ষ বনাম লক্ষ্য : বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন

ব্যাঘ্র শব্দের অর্থ এবং পাণিনির মৃত্যু

যুক্তবর্ণ সরলীকরণ আন্দোলন : হাস্যকর অবতারণা

প্রায়শ ভুল হয় এমন কিছু শব্দের বানান/২

গীতাঞ্জলি

রবীন্দ্রনাথের ডাকঘর

রবীন্দ্রনাথের রাজা

রবীন্দ্রনাথের চতুরঙ্গ

রবীন্দ্রনাথের মুক্তধারা

error: Content is protected !!