মুদ্রাদোষ কী

ড. মোহাম্মদ আমীন

মুদ্রা ও দোষ শব্দ নিয়ে মুদ্রাদোষ শব্দটির উদ্ভব। ‘মুদ্রা’ মানে টাকা পয়সা, অর্থ, সিলমোহর, ছাপ এবং হিন্দুদের দেবপূজাকালে বিভিন্ন ভঙ্গিতে করবিন্যাস, নাচের অঙ্গভঙ্গি, করতল বা পদতলের বিশেষ চিহ্ন প্রভৃতি। এখানে মুদ্রাদোষ শব্দে বর্ণিত মুদ্রা অর্থ— অঙ্গভঙ্গি, বাচনবিন্যাস, বিশেষ চিহ্ন প্রভৃতি। সুতরাং নানা কাজে ব্যক্তি বিশেষের নিজস্ব মুদ্রা, চিহ্ন বা অঙ্গিভঙ্গি থাকে।
ব্যক্তি বিশেষের নিজস্ব মুদ্রা, চিহ্ন বা অঙ্গিভঙ্গি থাকে। ব্যক্তির মতো এসব বিষয়ও অনেকটা অদ্বিতীয়। সবার কথা বা বাচনভঙ্গি এক নয়। প্রত্যেকে একটি নিজস্ব মুদ্রা বা আঙ্গিকে আচরণ করে। তা হাতের, মুখের, চোখের বা শরীরের কিংবা স্বরবিস্তার, অঙ্গপরিচালনা— অথবা অন্য কোনোভাবে হতে পারে। এ সব মুদ্রার অতি ব্যবহার কিংবা যে ব্যবহার অন্যের কাছে হাস্যকর বা দূষণীয় মনে হয় তাই মুদ্রাদোষ হিসেবে চিহ্নিত হয়। অর্থাৎ কোনো ব্যক্তির কোনো এক বা একাধিক মুদ্রা অন্যের কাছে দূষনীয় বা দোষের মনে হলে তা মুদ্রাদোষ হয়ে যায়।
অল্পকথায়, ব্যক্তিবিশেষের বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গি, বাচনভঙ্গি, আচরণ, চালচলন কিংবা স্বভাবজাত বৈশিষ্ট্যের দৃষ্টি বা শ্রুতিকটুকর পুনরাবৃ্ত্তি বা বহিঃপ্রকাশকে মুদ্রাদোষ বলা হয়।

বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানমতে, তৎসম মুদ্রাদোষ (মুদ্রা+দোষ) অর্থ—  (বিশেষ্যে) কোনো ব্যক্তির বাচনভঙ্গি, আচরণ বা স্বভাবে ব্যক্তিগত বৈশিষ্ট্যের পৌনঃপুনিক বহিঃপ্রকাশ।  ইংরেজিতে যাকে বলা হয় idiosyncrasy.

সূত্র : ড. মোহাম্মদ আমীন, বাংলা শব্দের পৌরাণিক উৎস, পুথিনিলয়, বাংলাবাজার, ঢাকা।


অপরাধ দোষ ভুল এবং ত্রুটি

তিলোত্তমা : বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন

মুদ্রাদোষ : জ্বি স্যার : কৌতুকে কৌতুকে সয়লাব

মুদ্রা দোষ : আপনার স্ত্রী আমাকে জড়িয়ে ধরল

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/২

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/১

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/১

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন

কীভাবে হলো দেশের নাম

বাংলা ভাষার মজা, ড. মোহাম্মদ আমীন, পাঞ্জেরী পাবিলিকেশন্স লি.।

উৎস: বাংলা ব্যাকরণ অভিধান, ড. মোহাম্মদ আমীন, পুথিনিলয়, বাংলাবাজার, ঢাকা।

error: Content is protected !!