লয়: লয় (সংগীতে) কাকে বলে, লয় অর্থ কী

অলোক দেব

লয়: লয় (সংগীতে) কাকে বলে, লয় অর্থ কী

লয় (সংগীতে) কাকে বলে?

লয় হচ্ছে— একটা বড়ো সময়কে আপনি কতগুলো ছোটো সময়ের ইউনিট (ব্যবধান) দিয়ে ভাগ করছেন— সেটার পরিমাপ।
যেমন— আপনাকে এক মিনিট সময় দেওয়া হলো এবং বলা হলো— এই এক মিনিট সময় ধরে আপনি হাতে তালি বাজাবেন।
 
১. আপনি ঘড়ির কাঁটার দিকে তাকিয়ে সেকেন্ডের কাঁটার সাথে তাল মিলিয়ে ৬০ সেকেণ্ডে ৬০টি তালি দিলেন। এক্ষেত্রে দুটি তালির মধ্যবর্তী ব্যবধান ১ সেকেন্ড।
 
২. এবার আপনি যদি প্রতি সেকেন্ডে দুইটি করে, ৬০ সেকেন্ডে ১২০ টি তালি বাজান, তবে দুটি তালির মধ্যবর্তী ব্যবধান হবে আধা(১/২) সেকেন্ড।
 
১ ও ২ নং থেকে আমরা দেখতে পাই, ১ নং এর দুইটি তালির মধ্যবর্তী সময় ব্যবধান অপেক্ষাকৃত বেশি (১সেকেন্ড)- এজন্য কমসংখ্যক(৬০টি) তালি দিয়েই এক মিনিট সময় পূরণ করা যায়।
 
কিন্তু, ২ নং এর দুটি তালির মধ্যবর্তী সময় ব্যবধান অপেক্ষাকৃত কম (১/২সেকেন্ড)। এজন্য এক মিনিট পূরণ করতে বেশি সংখ্যক (১২০টি) তালির প্রয়োজন।
 
তালির (সংগীতে-মাত্রা) মধ্যবর্তী সময় ব্যবধানের এই আপেক্ষিকতাকেই লয় বলা হয়। অর্থাৎ, এক তালি বা মাত্রা থেকে পরবর্তী মাত্রায় যেতে বেশি সময় নিলে ধীর লয়। অন্যদিকে এক তালি বা মাত্রা থেকে পরবর্তী মাত্রায় যেতে কম সময় নিলে দ্রুত লয় হবে।
 
প্রথম উদাহরণকে আমরা অপেক্ষাকৃত ধীর লয় এবং পরের উদাহরণকে অপেক্ষাকৃত দ্রুত লয় বলতে পারি।
ইংরেজিতে লয় বা Tempo-কে Beats Per Minute (BPM) অর্থাৎ, প্রতি মিনিটে বিট বা তালির সংখ্যা-দ্বারা প্রকাশ করা হয়।
১ নং-এ লয় বা টেম্পো(Tempo) 60 BPM— ধীরলয়
২ নং- এ লয় (Tempo) 120 BPM—দ্রুতলয়
 
ভারতীয় সঙ্গীতে তালের গতিকে লয় বলা হয়। মূলতঃ তালের অন্তর্গত প্রতি দুটি মাত্রার মধ্যবর্তী সময়কেই কাল বলে। এই মাত্রাদ্বয়ের মধ্যবর্তী কালের স্থিতিকালের উপর নির্ভর করে লয়ের শ্রেণি-বিভাগ করা হয়েছে। ধরা যাক দুটি মাত্রার মধ্যবর্তীকাল যদি ৪ সেকেণ্ড হয়- তবে লয় বিভাজন নিম্নরূপ হবে—
৪ সেকেণ্ডে— বিলম্বিত লয়
২ সেকেণ্ডে— ঈষৎ বিলম্বিত লয়
১ সেকেণ্ডে— মধ্য লয়
১/২সেকেণ্ডে— ঈষৎ দ্রুত লয়
১/৪সেকেণ্ডে— দ্রুত লয়
১/৮সেকেণ্ডে— অতি দ্রুত লয়।
এছাড়া কোন নির্দিষ্ট লয়ের মধ্যে থেকেও পরিবেশনের ক্ষেত্রে লয়ের গতিকে হ্রাস-বৃদ্ধি করা সম্ভব। ধরা যাক, ১ সেকেণ্ড পরিমিত একটি লয় গ্রহণ করা হলো। অর্থৎ প্রতি ১ সেকেণ্ড পর পর একটি করে মাত্রা যাবে। এইক্ষেত্রে পরিবেশনকারী নিম্নরূপ সূত্রে অগ্রসর হবে—
১ ২ ৩ ৪ ৫ ৬ ৭ ৮
সা রা গা মা পা ধা না র্সা
কিন্তু পরিবেশনকারী যদি উক্ত মাত্রাকালের মধ্যে দুটি করে স্বর উচ্চারণ করে, তবে তা দ্বিগুণ লয়ের পরিবেশনা হিসাবে বিবেচিত হবে। আর এর রূপটি হবে নিম্নরূপ-
১ ২ ৩ ৪ ৫ ৬ ৭ ৮
সরা গমা পধা নর্সা সরা গমা পধা নর্সা (উৎস: অনুশীলন ওয়েবসাইট)
— — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — — —
 
 
error: Content is protected !!