শাবাশ শব্দের উদ্ভব ও ইতিহাস

ড. মোহাম্মদ আমীন

শাবাশ শব্দের উদ্ভব ও ইতিহাস

শাবাশ ফারসি শব্দ। বাক্যে অব্যয় হিসেবে ব্যবহৃত ফারসি শাবাশ অর্থ— (অব্যয়ে) ধন্য, বলিহারি প্রভৃতি প্রশংসাসূচক উক্তি। বলা হয়, মহান আব্বাস (Great Abbas) নামে পরিচিত পারস্যের শাসক প্রথম আব্বাস বা শাহ আব্বাস (২৭শে জানুয়ারি ১৫৭১– ১৯শে জানুয়ারি ১৬২৯) থেকে শাবাশ শব্দের

উদ্ভব। শাহ আব্বাস ১৫৮৭ খ্রিষ্টাব্দ থেকে ১৬২৯ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত পারস্যের শাহ ছিলেন। শাহ আব্বাসকে সবচেয়ে শক্তিশালী সাফাভি নৃপতি গণ্য

পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি.

করা হয়। তিনি ছিলেন তাঁর সময়ের অত্যন্ত প্রভাবশালী। তাঁর শাসনামলে যত ভালো কাজ হতো, তা যেই করুক সবাই বলতেন করেছেন—শাহ আব্বাস। যে-কোনো সাহসী ও ভালো কাজের ক্ষেত্রে এভাবে শাহ আব্বাস নামটি প্রশংসা এবং উদ্দীপনার সমার্থক হয়ে যায়। যা থেকে শাবাশ কথার উদ্ভব।

শাহ আব্বাস আব্বাস রাষ্ট্রীয় ও গণজীবনে উদারমনা ও সহিষ্ণু শাসক ছিলেন। তিনি খ্রিষ্টান সম্প্রদায়কেও বিশেষ সুযোগ সুবিধা দিয়েছেন।জনগণের কল্যাণের ব্যাপারেও আগ্রহী ছিলেন। কিন্তু ব্যক্তিগত নিরাপত্তার বিষয়ে ভীতির কারণে  ঘনিষ্ঠ আত্মীয় ও পরিবার স্বজনদের সঙ্গে নির্মম আচরণ করতেন। পিতার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা ও তাঁকে অন্ধ করে তিনি সিংহাসন দখল করেছিলেন। সুযোগ্য পুত্রদের সাহসিকতা ও বীরত্বে তাঁর সন্দিগ্ধ মন ঈর্ষান্বিত হয়ে উঠে এবং পুত্রগণ তাঁকে সিংহাসনচ্যুত হতে পারেন— এ আশংকায়  পুত্রদের কাউকেও হত্যা এবং কাউকেও অন্ধ করে সিংহাসনের পথ নিষ্কন্টক করেন। তার চার পুত্রের মধ্যে প্রথম পুত্রকে বেহবুদ খানের সহায়তায় হত্যা করেন। দ্বিতীয় পুত্র স্বাভাবিকভাবে মারা যান। অপর দুই পুত্রকে অন্ধ করে সিংহাসন নিষ্টকন্টক করা হয়। বিয়াল্লিশ বছর রাজত্বের পর তিনি মাজেন্দ্রানে প্রাণত্যাগ করেন। তাঁর তিরোধানের সাথে সাথে তাঁর বংশের রাজত্বের সমাপ্তি ঘটে।

শুবাচ গ্রুপের লিংক: www.draminbd.com

“ধূমপান নিষেধ।” না কি “ধূমপান নিষিদ্ধ।”

error: Content is protected !!