শ্রদ্ধা ও সম্মান

ড. মোহাম্মদ আমীন

শ্রদ্ধা [শ্রৎ+√ধা+অ+আ(টাপ্‌)] শব্দের অর্থ সাধারণত কোনো ব্যক্তির প্রতি বিশেষ সম্মান, ভক্তি, সমীহ, গভীর আস্থা, নির্ভরতা, নিষ্ঠা প্রভৃতি। এটি সংস্কৃত শব্দ এবং বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়।শ্রদ্ধাঞ্জলি, শ্রদ্ধান্বিত, শ্রদ্ধাবান, শ্রদ্ধাবনত, শ্রদ্ধাভাজন, শ্রদ্ধাভাজনাসু, শ্রদ্ধাভাজনেষু, শ্রদ্ধার্ঘ্য, শ্রদ্ধালু, শ্রদ্ধাস্প , শ্রদ্ধাস্পদাসু, শ্রদ্ধাস্পদেষু, শ্রদ্ধাহীন, শ্রদ্ধেয় প্রভৃতি ‘শ্রদ্ধা’ সঙ্গের সমগোত্রীয়। সম্মান (সম্‌+√মন্‌+অ) শব্দের অর্থ মান মর্যাদা গৌরব, সশ্রদ্ধ খাতির, সমাদর প্রভৃতি। এটি তৎসম এবং বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়। মান্য ব্যক্তিকে প্রদত্ত সম্মানি অর্থেও সম্মান শব্দের প্রয়োগ দেখা যায়। সম্মানন, সম্মাননা, সম্মাননীয়, সম্মানি, সম্মানিত প্রভৃতি শব্দ অর্থ বিবেচনায় সম্মান শব্দের সমগোত্রীয়।

উপরিউক্ত বিশ্লেষণ থেকে প্রথমে যেটি বলা যায় সেটি হচ্ছে, বিশেষ সম্মানই হচ্ছে শ্রদ্ধা। যার সম্মান আছে তিনিই শ্রদ্ধেয়। যার মান, মর্যাদা, গৌরব আছে তিনি শ্রদ্ধা পেয়ে থাকেন। এসব না থাকলে কেউ শ্রদ্ধা পান না। এ বিবেচনায় বলা যায়, আগে সম্মান তারপর শ্রদ্ধ। কোনো ব্যক্তি সম্মানের উপাদানে ভূষিত হলে তিনি শ্রদ্ধা পাওয়ার যোগ্য বা শ্রদ্ধেয় হয়ে উঠেন। এককথায়, সম্মানের বিষয় যার থাকে তিনি শ্রদ্ধেয়। কারো প্রতি ভক্তি, সমীহ, গভীর আস্থা, নির্ভরতা, নিষ্ঠা প্রভৃতি সৃষ্টি হলে সম্মান অবারিত হয়।

শুবাচ লিংক

শুবাচ লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

error: Content is protected !!