সংবাদ সম্মেলন ও সাংবাদিক সম্মেলন

ড. মোহাম্মদ আমীন

উদ্দেশ্য, প্রকৃতি ও কার্যকরণ বিবেচনায় সংবাদ সম্মেলনসাংবাদিক সম্মেলন উভয় প্রকাশই শুদ্ধ, অর্থবহ ও প্রায়োগিক হতে পারে। যেমন: শিক্ষা সম্মেলন ও শিক্ষক সম্মেলন; বিজ্ঞান সম্মেলন ও বিজ্ঞানী সম্মেলন, প্রশাসন সম্মেলন ও প্রশাসক সম্মেলন─ প্রতিটি জোড় বাগ্‌ভঙ্গিই শুদ্ধ।

সংবাদ সম্মেলন: সংবাদ সম্মেলন অর্থ─কোনো বিষয় প্রচার মাধ্যমে প্রকাশের উদ্দেশ্যে সাংবাদিকগণকে জানানোর লক্ষ্যে এক বা একাধিক ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের সাংবাদিক-আহ্বান। সংবাদকে উদ্দেশ্য করে সংবাদ সম্মেলন আবর্তিত।কেউ সংবাদ সম্মেলন আহ্বান করলে সেখানে তিনি তাঁর বক্তব্য পরিবেশন করেন এবং সাংবাদিকগণ সে-বক্তব্য শোনেন। অতঃপর পরিবেশিত বক্তব্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদন তৈরি করে সংবাদ মাধ্যমে প্রচার বা প্রকাশ করা হয়। যে কেউ; এমন কি সাংবাদিকগণও সংবাদ সম্মেলন ডাকতে পারেন।

সংবাদ সম্মেলনের উদ্দেশ্য প্রচার মাধ্যমে প্রকাশের লক্ষ্যে কোনো বিষয় বা বিষয়াবলি সাংবাদিকদের অবহিত করার জন্য আহ্বানপূর্বক সমাবেশ। যেমন: শিক্ষাবিষয়ক আলোচনার জন্য সমাবেশকে বলা হয় শিক্ষাসমাবেম।

সাংবাদিক সম্মেলন: সাংবাদিক সম্মেলন অর্থ ─সাংবাদিকদের নিজস্ব সমাবেশ, মিলন, একত্রিত হওয়া । এরূপ সমাবেশে মূলত সাংবাদিকগণ একত্রিত হন। যেখানে তাঁরা নিজেদের সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।অর্থাৎ সাংবাদিকগণের সমাবেশকে বলা হয় সাংবাদিক সম্মেলন। যেমন: শিক্ষকগণের সমাবেশকে বলা হয় শিক্ষক সমাবেশ। কোনো সংবাদিক যদি তার কোনো বিষয় প্রচার বা প্রকাশের উদ্দেশ্যে সাংবাদিকগণকে আহ্বান করেন সেটি সাংবাদিক সম্মেলন হবে না, সংবাদ সম্মেলন হবে। পুলিশ আইন শঙ্খলা রক্ষার লক্ষ্যে যে সম্মেলন করে তা এবং পুলিশ বাহিনীর সদস্যগণ নিজেদের সামষ্টিক বিষয়ে যে সম্মেলন করে তা এক নয়।

সাংবাদিক সম্মেলনের উদ্দেশ হলো সাংবাদিকগণের একান্ত চাওয়া-পাওয়া, অভাব-অভিযোগ, সুখ=দুঃখ, আনন্দ-বিনোদন, ভবিষ্যবিষয়, সুবিধা-অসুবিধা, পেশাগত উৎকর্ষ প্রভৃতি বিষয় নিয়ে আলোচনা।

ফতুর

ফতুর’ শব্দের আভিধানিক অর্থ— রিক্ত, নিঃশেষ, শূন্য, নিঃস্ব, অসহায় প্রভৃতি। এটি আরবি শব্দ। আরবি ‘ফুতুর’ থেকে বাংলা ‘ফতুর’ শব্দের উদ্ভব। আরবি ‘ফুতুর’ শব্দের প্রয়োগ ও অর্থ দুটোই শরীর-সম্পর্কিত। আরবি ভাষায় শব্দটির অর্থ—দুর্বলতা, অবসন্নতা, অলসতা, আলস্য, নির্জীবতা প্রভৃতি। বাংলায় ‘ফতুর’ শব্দটির প্রয়োগ ও অর্থ শুধু শরীর সম্পর্কিত নয়। পার্থিব সম্পদ সম্পর্কিত নিঃস্বতা প্রকাশে এর অধিক প্রয়োগ দেখা যায়।
আরবি ‘ফুতুর’ শব্দের প্রসঙ্গে শরীর দুর্বল হলে যেমন মানুষের সবকিছুতে অসহায়ত্বের সূচনা ঘটে, তেমিন বাংলা ‘ফতুর’ শব্দের প্রসঙ্গে সহায়-সম্পদে ব্যক্তিবিশেষ রিক্ত হলে তার সবকিছুতে অসহায়ত্বের অনুপ্রবেশ দেখা যায়। তাই ‘ফতুর’ শব্দটি আরবি ভাষা হতে বাংলায় মেহমান হয়ে এলেও তার বাহ্যিক কিংবা অন্তর্নিহিত কোনো অর্থের বিপর্যয় ঘটায়নি।

উৎস: ড. মোহাম্মদ আমীন, বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন, পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি.

শুবাচ গ্রুপের লিংক: www.draminbd.com

All Link : শুবাচে প্রকাশিত গুরুত্বপূর্ণ লেখা

All Link

All Links/1

All Links/2 শুবাচির প্রশ্ন থেকে উত্তর

All Links/3

সংবাদ সম্মেলন ও সাংবাদিক সম্মেলন

লিংক: https://draminbd.com/সংবাদ-সম্মেলন-ও-সাংবাদিক/

error: Content is protected !!