সত্ববিধি

ড. মোহাম্মদ আমীন

বানানে মূর্ধন্য-ষ এর স্থলে দন্ত্য-স বসার শর্তাবলিকে সত্ববিধি বলা হয়। সুতরাং, ষত্ববিধির ব্যতিক্রমও সত্ববিধির অন্তর্ভুক্ত। এরপরিধি ষত্ববিধির চেয়ে ব্যাপক। কারণ, সত্ববিধি তৎসম এবং অতৎসম উভয় শব্দের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। পাণিনির ষত্ববিধি মতো সত্ববিধিও ব্যতিক্রম দোষে দূষণীয় হতে পারে। এবার দেখুন স্বত্ববিধির নয়টি শর্ত কীভাবে প্রমিত বানানকে প্রভাবিত করে।

১. অন্যান্য স্বরধ্বনি ছাড়া সাধারণত অ/আ স্বরধ্বনির পর মূর্ধন্য-ষ এর স্থলে দন্ত্য-স হয়। যেমন: অসি, আসা,  শস্য, বাসা, বসন্ত, অস্ত, অসূয়া, অস্ত্র, শাস্ত্র, ন্যস্ত, আসন, শাসন, আসন্ন, অসার, আসার (আষাঢ় নয়), আস্বাদন, দাস, উদাস, ঔদাস্য, বাস, ভাস, আভাস, আভাসন, মাস প্রভৃতি।
২. সম্মুখস্থ বা প্রারম্ভিক স্বরবর্ণ নির্বিশেষে শব্দের বানানে ত ও থ বর্ণের আগে মূর্ধন্য-ষ এর স্থলে দন্ত্য-স হয়। যেমন: অসতর্ক, অসুস্থ,  আস্ত, আস্থা, অস্ত, তস্কর, ভাস্কর,  বাস্তব, অস্থির, স্তিমিত, স্থির, বিস্তর, প্রস্থ, স্থিতি, স্থূল, স্ত্রী, ইস্ত্রি, স্তূপ, শাস্তি ইত্যাদি।
৩. অতি, অনু, অভি, পরি, প্রতি, বি ইত্যাদি উপসর্গের পর অ আ ভিন্ন অন্য স্বরবর্ণ থাকলেও কোথাও-কোথাও মূর্ধন্য-ষ এর স্থলে দন্ত্য-স হয়। যেমন: অতিসার, অনুস্বার, অনুসর্গ, অনুসন্ধান, অভিসার, পরিসর, প্রতিসরণ, বিসর্জন, পরিসংখ্যান, পরিসংখ্যা, পরিসংখ্যানবিদ, বিসূচিকা, বিস্ফার, বিস্ফোরণ, বিস্ফুরণ, বিস্ফুরিত, বিস্ফোরিত, বিস্ফোট, বিস্ফোটিত, বিস্ফোরক, বিস্বাদ, বিস্ময়, বিস্মিত, বিস্ময়কর, বিস্বন, বিস্ময়াভিভূত, বিস্মরণ, বিস্রংস, বিস্রংসন, বিস্রুত ইত্যাদি।
৪. সাৎ-প্রত্যয়ের দন্ত্য-স, মূর্ধন্য-ষ হয় না। তাই সাৎ-প্রত্যয়ান্ত শব্দে সর্বদা দন্ত্য-স বিরাজমান থাকে। যেমন: ভূমিসাৎ, ধূলিসাৎ, অগ্নিসাৎ,  প্রভৃতি।

৫. খাঁটি বাংলা ও বিদেশি শব্দে সাধারণত মূর্ধন্য-ষ হয় না, মূর্ধন্য-ষ এর স্থলে দন্ত্য-স হয়। যেমন:  ইউনিভার্সিটি, স্টার, টেস্ট, লিস্ট,  জিনিস, মিসর, গ্রিস, স্টেশন, মুসাবিদা, হোস্টেল, স্লোগান, স্যান্ডেল, করোনাভাইরাস, ক্যাসিনো, গস্তবেনে, চোস্ত, মুসিবত, সনেট,   প্রভৃতি। ব্যতিক্রম: খ্রিষ্ট, খ্রিষ্টান, খ্রিষ্টাব্দ, খ্রিষ্টীয়।

৬. কতগুলো সংস্কৃত শব্দে আদিকাল থেকে মূর্ধন্য-ষ ব্যবহৃত হয়ে আসছে। যা মৌলিক মূর্ধন্য-ষ বা স্বাভাবিক মূর্ধন্য-ষ নামে পরিচিত। এসব শব্দে দন্ত্য-স বর্ণের জায়গা মূর্ধন্য-ষ দখল করে নেয় বলে দন্ত্য-স বসতে পারে না। যেমন: অভিলাষ, অভিলষিত,  অভিলাষী, আষাঢ়, আষাঢ়স্য, আষাঢ়ে, বাষ্প, ভাষ, ভাষক, ভাষণ, ভাষা, ভাষাচর্চা, ভাষাজ্ঞান, ভাষাতত্ত্ব, ভাষাতত্ত্বজ্ঞ, ভাষাতত্ত্ববিদ, ভাষাতাত্ত্বিক, ভাষাতীত, ভাষান্তর, ভাষান্তরিক, ভাষান্তরিত, ভাষাপ্রেমিক, ভাষাবিজ্ঞান, ভাষাভাষী, ভাষাভিত্তিক, ভাষাহারা, ভাষিক, ভাষিত, ভাষী, ভাষ্য, ভাষ্যকার, ষট্, ষণ্ড, মাষা, ষট, পাষাণ, পাষণ্ড, শ্রদ্ধাস্পদ, চষক, চষা, চষানো, চষে, পাষাণ, পাষাণভেদী, পাষাণমূর্তি, বাষট্টি, বাষ্প, বাষ্পপোত, বাষ্পযান, বাষ্পরথ, বাষ্পশকট, বাষ্পাকুল, বাষ্পীয়, শম্পা (কচি ঘাস), শষ্পাবৃত।

৭. অঃ/আঃ ধ্বনির সঙ্গে ক্, খ্, প্, ফ্, ত্ ধ্বনির সন্ধি হলে বিসর্গ দন্ত্য-স হয়ে যায়। যেমন: পুরঃ+কার= পুরস্কার, ভাঃ+কর= ভাস্কর, তিরঃ+কার= তিরস্কার, পরঃ+পর= পরস্পর, স্বতঃ+ফূর্ত= স্বতঃস্ফূর্ত,  যেমন: মনঃ+ তাপ= মনস্তাপ, শিরঃ+ত্রাণ= শিরস্ত্রাণ। 

৮. মহিলাদের প্রতি কয়েকটি সম্মানজ্ঞাপক সম্বোধনে ষ-এর স্থানে স বসে। যেমন: পুংলিঙ্গ কল্যাণীয়েষু, প্রিয়তমেষু, মাননীয়েষু, শ্রদ্ধাভাজনেষু, প্রিয়বরেষু, বন্ধুবরেষু স্ত্রীলিঙ্গ যথাক্রমে কল্যাণীয়াসু, প্রিয়তমাসু, মাননীয়াসু, শ্রদ্ধাভাজনাসু হয়।তবে, পদ [চরণ] শব্দটি ক্লীবলিঙ্গ, তাই ‘শ্রদ্ধাস্পদ’ [শ্রদ্ধা+আ+পদ] শব্দটি চরণকে বোঝায় বলে ক্লীবলিঙ্গ। তার স্ত্রীলিঙ্গ হয় না। তাই ‘শ্রদ্ধাস্পদা’ শব্দটি অশুদ্ধ।

৯. শব্দের বানানে  অনুস্বারের পর মূর্ধন্য-ষ এর স্থলে দন্ত্য-স হয়। কারণ অনুস্বার অ-ভিন্ন কোনো স্বর ধারণ করতে পারে না। অন্যদিকে, মূর্ধন্য-ষ অ-এর পর বসে না।  যেমন: অংশ, কংস,  ধ্বংস, অবতংস, হিংসা, কংস, বিতংস, জিঘাংসা, মীমাংসা, মাংস, প্রশংসা, রিরংসা, হিংসুক, হিংস্র।

১০.  ষত্ববিধি যেখানে সংশয়প্রবণ, সেখানে সত্ববিধি প্রয়োগযোগ্য।


All Link

বিসিএস প্রিলি থেকে ভাইভা কৃতকার্য কৌশল

ড. মোহাম্মদ আমীনের লেখা বইয়ের তালিকা

বাংলা সাহিত্যবিষয়ক লিংক

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক সকল গুরুত্বপূর্ণ সাধারণজ্ঞান লিংক

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/১

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/২

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন /৩

কীভাবে হলো দেশের নাম

ইউরোপ মহাদেশ : ইতিহাস ও নামকরণ লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

দৈনন্দিন বিজ্ঞান লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৩

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৪

কীভাবে হলো দেশের নাম

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/১

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/২

বাংলাদেশের তারিখ

ব্যাবহারিক বাংলা বানান সমগ্র : পাঞ্জেরী পবিলেকশন্স লি.

শুদ্ধ বানান চর্চা প্রমিত বাংলা বানান বিধি : বানান শেখার বই

কি না  বনাম কিনা এবং না কি বনাম নাকি

মত বনাম মতো : কোথায় কোনটি এবং কেন লিখবেন

ভূ ভূমি ভূগোল ভূতল ভূলোক কিন্তু ত্রিভুবন : ত্রিভুবনের প্রিয় মোহাম্মদ

মত বনাম মতো : কোথায় কোনটি এবং কেন লিখবেন

প্রশাসনিক প্রাশাসনিক  ও সমসাময়িক ও সামসময়িক

বিবিধ এবং হযবরল : জ্ঞান কোষ

সেবা কিন্তু পরিষেবা কেন

ভাষা নদীর মতো নয় প্রকৃতির মতো

এককথায় প্রকাশ

শব্দের বানানে অভিধানের ভূমিকা

আফসোস নিয়ে আফসোস

লক্ষ বনাম লক্ষ্য : বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন

ব্যাঘ্র শব্দের অর্থ এবং পাণিনির মৃত্যু

যুক্তবর্ণ সরলীকরণ আন্দোলন : হাস্যকর অবতারণা

প্রায়শ ভুল হয় এমন কিছু শব্দের বানান/২

গীতাঞ্জলি

রবীন্দ্রনাথের ডাকঘর

রবীন্দ্রনাথের রাজা

রবীন্দ্রনাথের চতুরঙ্গ

রবীন্দ্রনাথের মুক্তধারা

বাংলা বানান, ভাষা ও শব্দচয়ন কৌশল শেখার কয়েকটি বই।

অমর একুশে গ্রন্থমেলা/২০২০-এ প্রকাশিত বই

পুথিনিলয় প্রকাশিত বই

শুবাচ একশ লিংক: বাংলা ভাষা বাংলা বানান ও বাংলা ব্যাকরণ

পাড় ও পার এবং সুন্দর হাতের লেখা

ইংরেজি বর্ণের প্রতিবর্ণীকরণে দন্ত্য-স এবং তালব্য-স এর ব্যবহার

এক মিনিটের পাঠশালা (১-৫)

এক মিনিটের পাঠশালা (১-১১) : বিসিএস বাংলা

এক মিনিটের পাঠশালা (১০-১৫)

এক মিনিটের পাঠশাল (১৬-২০)

এক মিনিটের পাঠশালা/২৪

দণ্ড দণ্ডায়মান ও দন্ড: প্রয়োজনানুসারে ইত্যাকার

স্যমন্তক: জটিল জটাজালের এক মানবিক উপাখ্যান

বহুল প্রচলিত কিছু অসংলগ্ন সমাস

ব্যাকরণবিধি ছাড়া প্রমিত বানান মনে রাখার কৌশল : নিমোনিক

কোয়ারেন্টিন আইসোলেশন: অর্থ ব্যুৎপত্তি ও ইতিহাস

জন্য বনাম জন্যে

করোনাভাইরাস: সৃষ্টির সেরা আশীর্বাদ

লকডাউন লকআউট ধর্মঘট কারফিউ এবং ১৪৪ ধারা

বিসিএস করোনা: করেনাভাইরাস

বাক্‌ বাগ ও বাগ্‌

অ্যালফাবেটের গল্প

স্ত্রী স্ত্রৈণ এবং স্থল স্থান

ব্যাকরণ মুখস্থ না করেই প্রমিত বানান আত্মস্থ করার কৌশল

ব্যাকরণ মুখস্থ না করেই প্রমিত বানান আত্মস্থ করার কৌশল/২

গোরু: মনুষ্য সভ্যতার প্রথম প্রধানশিক্ষক

মড়ক মারি মহামারি ও বিশ্বমারি

শুবাচ থেকে শুবাচির প্রশ্ন অবিকল

স্পরাডিক এনডেমিক এপিডেমিক ও প্যানডেমিক

ইতালি: মহামারি (Epidemic) ও সর্বমারি(Pandemic)-এর লালনাগার

দর্শক ধর্ষক দর্শন ধর্ষণ দর্শিত ধর্ষিত

উপহাস বনাম পরিহাস

ঈর্ষা বনাম হিংসা

দ্বেষ বনাম বিদ্বেষ

দায়িত্ব বনাম কর্তব্য

বাঙালি কতটুকু বাংলা জানে/১

হায় হায় কেউ পাস করতে পারবে না আর

ফলশ্রুতি: ফলে বা পরিণাম অর্থে ফলশ্রুতি শুদ্ধ কি না

শব্দের জাতপ্রথা

মূল মূল্য এবং ঊ-কার সূত্র

অধঃ অধঃস্থ অধস্তন অধঃস্তন

গুরুত্বপূর্ণ শব্দের গুরুত্বপূর্ণ অর্থ

অপরূপ অর্থ অপয়া কদাকার

মহাপ্রাণ ন্, ম্, র্ আর ল্: উচ্চারণ

সূক্ষ্ম পার্থক্য: উদ্ধৃতিচিহ্নের প্রয়োগ

এক: কখন বসে সেঁটে কখন রাখে ফাঁক

বাল আবাল ধোন ও সোনাখাড়া মাগি

ণত্ববিধি আগাগোড়া

 

 

error: Content is protected !!