সাত সমুদ্র: সাত সমুদ্র তেরো নদী: সাত সাগর আর তেরো নদী

ড. মোহাম্মদ আমীন

সাত সমুদ্র: সাত সমুদ্র তেরো নদী: সাত সাগর আর তেরো নদী

বিশ্বের বিভিন্ন শ্বরবিজ্ঞান, মরমী গীতি, আধ্যাত্মিক ও আত্মতাত্ত্বিক প্রভৃতি শাস্ত্রে তেরো (১৩) সংখ্যাটির বহুল ব্যবহার লক্ষণীয়। যেমন: তেরো অক্ষর, তেরো ঋক, তেরো দুয়ার, তেরো নদী, তেরো পর্ব, তেরো মন্ত্র, তেরো শীল, তেরো রাত্র, তেরো ষাঁড় প্রভৃতি। শ্বরবিজ্ঞানে একইভাবে দেখা যায় সাত (৭) সংখ্যার ব্যবহার ও প্রচলন আধিক্য। যেমন: সাত সাগর, সাত জনম, সাত সকাল, সাত পুরুষ, সাত ভাই ইত্যাদি। বলন কাঁইজির “আত্মতত্ত্বভেদ (পৌরাণিক সংখ্যা, অষ্টম খণ্ড)” গ্রন্থে এসব বিষয় বিস্তারিতভাবে বর্ণনা করা হয়েছে। এবার দেখি সাত সাগর/ সমুদ্র আর তের নদীর নাম এবং সংক্ষিপ্ত ইতিবৃত্ত। জেনে নিই কোথায় থাকে: স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা।

ভারতীয় পুরাণে পৃথিবীর সমুদয় সমুদ্রকে সাতটি ভাগে ভাগ করা হয়েছে। এই সাতটি সমুদ্র হচ্ছে: লবণসমুদ্র, ইক্ষুসমুদ্র, সুরাসমুদ্র, ঘৃতসমুদ্র, দধিসমুদ্র, দুগ্ধসমুদ্র, জলসমুদ্র। এ সমুদ্রগুলি একত্রে ‘সপ্তসমুদ্র’ বা সাত সমুদ্র নামে পরিচিত। দধিসমুদ্রের অপর নাম ক্ষীরসমুদ্র বা ক্ষীরাব্ধি। এই ক্ষীরাব্ধির মধ্যে শ্বেতদ্বীপ নামের একটি দ্বীপ আছে। ওই দ্বীপে বিষ্ণুর ধাম বা বাসভবন অবস্থিত ( বিশ্বাস ৮৩; শ্রীশ্রীচৈতন্যচরিত অমৃত)।
.
আবার, শ্বরবিজ্ঞান অনুযায়ী মানবদেহে মোট ১৩টি জলধারা রয়েছে। এই তেরোটি জলধারাকে বাংলায় একত্রে ‘তেরো নদী’ বলা হয়। আরবিতে বলা হয়— ‘ছালাসাতা আশারিল আনহার’। এছাড়া মানবদেহে রয়েছে সাতটি বিশেষ বিশাল ও অপরিমেয় প্রবাহ। যে প্রবাহ দিয়ে মানব ও মানবদেহ প্রভূত বিষয় অর্জন-বর্জন, দর্শন-বিদর্শন প্রভৃতি কার্যকলাপ সম্পাদন করতে সক্ষম। মানবদেহের অন্যান্য প্রবাহ থেকে তুলনামূলকভাবে বিশাল বিবেচনায় এই সাত প্রবাহকে একত্রে সাত সাগর বলা হয়। মূলত মানবদেহের এই সাত সাগর/সমুদ্র ও তেরো নদী থেকে মরমী বা আধ্যাত্মিক জগতে বহুল ব্যবহৃত সাত (৭) ও তেরো (১৩) সংখ্যার গূঢ় গুরুত্ব প্রতিষ্ঠা পেয়েছে। এই সাত (৭) সাগর ও তেরো (১৩) নদীর সাত ও তেরো থেকে সৃষ্টি হয়েছে অনেক গান, প্রবাদ, প্রবচন এবং সৃষ্টিতত্ত্বের নানা ব্যাখ্যা আর বিশ্লেষণ।
উৎস: পৌরাণিক শব্দের উৎস ও ক্রমবিবর্তন, ড. মোহাম্মদ আমীন, পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লি.

You cannot copy content of this page

poodleköpek ilanlarıankara gülüş tasarımıantika alanlarPlak alanlarantika eşya alanlarAntika mobilya alanlarAntika alan yerler
Casibomataşehir escortjojobetbetturkey