সুধীন্দ্রনাথ দত্ত: কবি কবিতা: আধুনিক বাংলা কবিতার পুরোধা

ড. মোহাম্মদ আমীন
ড. মোহাম্মদ আমীন
সংযোগ: https://draminbd.com/সুধীন্দ্রনাথ-দত্ত-কবি-কব/ ‎
সুধীন্দ্রনাথ দত্ত ১৯০১ খ্রিষ্টাব্দের ৩০শে অক্টোবর কলকাতার হাতিবাগানে জন্মগ্রহণ করেন।  পিতা হীরেন্দ্রনাথ দত্ত এবং মা ইন্দুমতি বসু মল্লিক। কাশীতে তার বাল্যকাল অতিবাহিত হয়। ১৯১৪ খ্রিষ্টাব্দ থেকে ১৯১৭ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত কাশীর থিয়সফিক্যাল হাই স্কুলে অধ্যয়ন করেন। এরপর অধ্যয়ন করেন কলকাতার ওরিয়েন্টাল সেমিনারি স্কুলে। ওখান থেকে ম্যাট্রিক পাশ করে স্কটিশ চার্চ কলেজ ভর্তি হন এবং ১৯২২ খ্রিষ্টাব্দে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। এরপর কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি সাহিত্য ও আইন বিভাগে ভর্তি হয়ে ১৯২৪ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত অধ্যয়ন করেন, কিন্তু কোনো বিষয়ে পরীক্ষা দেননি। ইংরেজি, ফারসি ও জার্মান ভাষায় তাঁর বিশেষ দখল ছিল। তাঁকে বাংলা কবিতায় ‘ধ্রুপদী রীতির প্রবর্তক’ বলা হয়।
সুধীন্দ্রনাত দত্ত ১৯২৪ খ্রিষ্টাব্দে ছবি বসুর সঙ্গে  বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।  এক বছরের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। ১৯৪৩ খ্রিষ্টাব্দের ২৯শে মে খ্যতিমান রবীন্দ্র সংগীতশিল্পী রাজেশ্বরী বসুর সঙ্গে পুনরায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।
পিতার সঙ্গে কিছুদিন শিক্ষানবিস হিসেবে থাকার পর লাইট অব এশিয়া ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে যোগ দেন। ১৯২৯ খ্রিষ্টাব্দের ফেব্রুয়ারি-ডিসেম্বর মাসে রবীন্দ্রনাথ এবং সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে জাপান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণ করেন।  ‘পরিচয়’ পত্রিকা সম্পাদনার মাধ্যমে তাঁর সাংবাদিকতার জীবনের সূচনা। ১৯৩১ খ্রিষ্টাব্দ থেকে বারো বছর এই পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন। স্টেটসম্যান ও শরৎ বসুর লিটারারি কাগজেও কিছুদিন দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৫৭ থেকে ১৯৫৯ সাল পর্যন্ত শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করেন। ১৯৫৯ খ্রিষ্টাব্দে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে তুলনামূলক সাহিত্য বিভাগের অধ্যাপক হিসেবে যোগ দেন। শিল্পকলাবিদ শাহেদ সোহরাওয়ার্দী ছিলেন তার বন্ধু। ‘উত্তর ফাল্গুনী’, ‘ক্রন্দসী’, ‘তন্বী’, ‘অর্কেস্ট্রা’, ‘সংবর্ত’, ‘প্রতিধ্বনি’ প্রভৃতি তাঁর উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ । প্রবন্ধ গ্রন্থের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে: ‘স্বগত’, ‘কুলায় ও কালপুরুষ’ ইত্যাদি।
 
১৯৬০ খ্রিষ্টাব্দের ২৫শে জুন কবি নিঃসন্তান অবস্থায় পরলোকগমন করেন।
error: Content is protected !!