হায় হায় কেউ পাস করতে পারবে না আর

ড. মোহাম্মদ আমীন

বাংলায় চারটি পাশ পাওয়া যায়। চারটি চার প্রকৃতির পাশ; যেমন জন্মে তেমন কর্মে। একটি পাশ এসেছে সোজা ব্রিটিশ থেকে।  আর একটির জন্মস্থান পারস্য। তবে আমরা বাংলাতেই বেশি পাশ করি। এবার দেখি চার পাশের কাহন।
(১) সংস্কৃত ‘পাশ’ অর্থ বিশেষ্যে পৌরাণিক যুদ্ধাস্ত্র, বাঁধন (শক্ত পাশ), ফাঁদ (পাখি ধরার পাশ), জাল (মায়াপাশ), গুচ্ছ (কবরীপাশ), গোছা (কেশপাশ), অক্ষ,পাশা প্রভৃতি।
(২) সংস্কৃত পার্শ্ব থেকে উদ্ভূত বাংলা ‘পাশ’ অর্থ বিশেষ্যে পার্শ্ব, সামীপ্য, নৈকট্য, ধার (নদীর পাশ), প্রান্ত (পথের পাশ), পক্ষ (বিজয়ী পাশ)।
(৩) ফারসি ‘পাশ’ অর্থ বিশেষ্যে সুগন্ধি জল বা তরল ছিটানোর পাত্রবিশেষ (গোলাপপাশ)। বাংলায় এটি তেমন প্রচলিত নয়।
(৪) ইংরেজি পাশ (pass) অর্থ সাফল্য (পরীক্ষায় পাশ), অনুমতিপত্র, গেটপাশ, অনুমোদন (প্রকল্প পাশ)। বাঙালি হলেও আমরা এই  ইংরেজি পাশটাই বেশি ব্যবহার করি।
অনেকে সাফল্য অর্থে পাস লিখেন। আমিও লিখতাম। এখন লিখি না। সব পাস শেষ হয়ে গেছে। বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানে পাস বানানের কোনো শব্দ নেই। একসময় আমরা পরীক্ষার উত্তীর্ণ হওয়া অর্থে লিখতাম পাস। এখন কেউ পাস লিখতে পারব না, সুতরাং পাসও করতে পারব না। আমাদের এখন পাশ করতে হবে।

অনুতাপ ও পরিতাপ: বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত অনুতাপ (অনু+তপ্+অ) শব্দের অর্থ অনুশোচনা, আফসোস। অন্যদিকে, বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত সংস্কৃত ‘পরিতাপ (পরি+তাপ)’ শব্দের অর্থ মনস্তাপ, দুঃখ, খেদ, আফসোস প্রভৃতি। অভিধানের অর্থ বিচার করলে দেখা যায়, অনুতাপ ও পরিতাপ পরস্পর সমার্থক। অধিকন্তু, শব্দদুটি অভিন্ন পদ এবং বানানে অক্ষর ও বর্ণ সংখ্যা সমান হওয়া উচ্চারণ আর শ্রুতিপ্রকৃতিও প্রায় অভিন্ন। তাই বাক্যে সাধারণভাবে শব্দদুটো সমার্থক হিসেবে নির্বিচারে ব্যবহার করা যায়। যেমন: এটি বড়োই পরিতাপের বিষয়। এটি বড়োই অনুতাপারে বিষয়। উভয় বাক্য অভিন্ন অর্থ এবং প্রায় একই মাধুর্য দেয়। কিন্তু, লেখালেখি ও কথোপকথনে পরিতাপ শব্দটি অধিক ব্যবহৃত হয়। তবে শব্দদুটি ব্যবহারের একটি অলিখিত নিয়ম রয়েছে এবং সেটি হলো—যেখানে, দুঃখটা বেশি এবং সরাসারি নিজের ওপর প্রচণ্ড প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে সেক্ষেত্রে সাধারণত ‘অনুতাপ’ শব্দটি অধিক কার্যকর।


All Link

বিসিএস প্রিলি থেকে ভাইভা কৃতকার্য কৌশল

ড. মোহাম্মদ আমীনের লেখা বইয়ের তালিকা

বাংলা সাহিত্যবিষয়ক লিংক

বাংলাদেশ ও বাংলাদেশবিষয়ক সকল গুরুত্বপূর্ণ সাধারণজ্ঞান লিংক

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/১

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন/২

বাংলা বানান কোথায় কী লিখবেন এবং কেন লিখবেন /৩

কীভাবে হলো দেশের নাম

ইউরোপ মহাদেশ : ইতিহাস ও নামকরণ লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/১

দৈনন্দিন বিজ্ঞান লিংক

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/২

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৩

শুদ্ধ বানান চর্চা লিংক/৪

কীভাবে হলো দেশের নাম

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/১

সাধারণ জ্ঞান সমগ্র/২

শুবাচ একশ লিংক: বাংলা ভাষা বাংলা বানান ও বাংলা ব্যাকরণ

পাড় ও পার এবং সুন্দর হাতের লেখা

ইংরেজি বর্ণের প্রতিবর্ণীকরণে দন্ত্য-স এবং তালব্য-স এর ব্যবহার

এক মিনিটের পাঠশালা (১-৫)

এক মিনিটের পাঠশালা (১-১১) : বিসিএস বাংলা

এক মিনিটের পাঠশালা (১০-১৫)

এক মিনিটের পাঠশাল (১৬-২০)

এক মিনিটের পাঠশালা/২৪

দণ্ড দণ্ডায়মান ও দন্ড: প্রয়োজনানুসারে ইত্যাকার

স্যমন্তক: জটিল জটাজালের এক মানবিক উপাখ্যান

বহুল প্রচলিত কিছু অসংলগ্ন সমাস

ব্যাকরণবিধি ছাড়া প্রমিত বানান মনে রাখার কৌশল : নিমোনিক

কোয়ারেন্টিন আইসোলেশন: অর্থ ব্যুৎপত্তি ও ইতিহাস

জন্য বনাম জন্যে

করোনাভাইরাস: সৃষ্টির সেরা আশীর্বাদ

লকডাউন লকআউট ধর্মঘট কারফিউ এবং ১৪৪ ধারা

বিসিএস করোনা: করেনাভাইরাস

বাক্‌ বাগ ও বাগ্‌

অ্যালফাবেটের গল্প

স্ত্রী স্ত্রৈণ এবং স্থল স্থান

ব্যাকরণ মুখস্থ না করেই প্রমিত বানান আত্মস্থ করার কৌশল

ব্যাকরণ মুখস্থ না করেই প্রমিত বানান আত্মস্থ করার কৌশল/২

গোরু: মনুষ্য সভ্যতার প্রথম প্রধানশিক্ষক

error: Content is protected !!