ঝ-য়ে চন্দ্রবিন্দু নিমোনিক

ঝাঁক বানানে চন্দ্রবিন্দু নিমোনিক:  হিন্দি ঝাংক থেকে উদ্ভূত ঝাঁক অর্খ—  পাখি পতঙ্গ প্রভৃতির দল। ঝাঁক শব্দের বানানে চন্দ্রবিন্দু আছে। তাই ঝ-এর পর ক-হয় এমন সব শব্দের প্রথম ঝ-এর মাথায় চন্দ্রবিন্দু বসিয়ে দেবেন।  যেমন: ঝাঁকড়মাকড়, ঝাঁকড়া, ঝাঁকড়ামাকড়া, ঝাঁক বাঁধা, ঝাঁকবাঁধা, ঝাঁকরানি, ঝাঁকরানো, ঝাঁকা, ঝাঁকানি, ঝাঁকানো, ঝাঁকামুটে, ঝাঁকি, ঝাঁকিদর্শন, ঝাঁকুনি, ঝাঁকেঝাঁকে প্রভৃতি।   

ঝাঁজ বানানে চন্দ্রবিন্দু নিমোনিক:  হিন্দি ঝাঁজ অর্থ — (বিশেষ্যে) তেজ, আঁচ, তীব্র স্বাদ বা গন্ধ; উগ্রতা। সংস্কৃত ঝর্ঝর থেকে উদ্ভূত ঝাঁজ অর্থ— (বিশেষ্যে)  খাসার তৈরি বাদ্যযন্ত্রবিশেষ। ঝাঁজ বানানে চন্দ্রবিন্দু। তাই সব ঝাঁজ ও ঝাঁঝ বানানে চন্দ্রবিন্দু দেবেন। যেমন: ঝাঁজর, ঝাঁজরা, ঝাঁজরি, ঝাঁজালো, ঝাঁজি, ঝাঁঝ, ঝাঁঝর, ঝাঁঝরা, ঝাঁঝরি, ঝাঁঝা, ঝাঁঝালো, ঝাঁঝি প্রভৃতি বানানেও চন্দ্রবিন্দু হবে।               

ঝাঁটা বানানে চন্দ্রবিন্দু নিমোনিক:  দেশি ঝাঁটঝাঁটা শব্দে চন্দ্রবিন্দু আছে। তাই ঝাঁটা দিয়ে নির্মিত শব্দ শব্দে চন্দ্রবিন্দু দেবেন। মনে রাখবেন, নইলে ঝাঁটা ভালোভাবে পরিষ্কার করতে পারবে না। পরিষ্কার করতে আলো লাগে। তাই ঝাঁটা সর্বদা চন্দ্রবিন্দু নিয়ে চলে। যেমন: ঝাঁটা, ঝাঁটাখেকো, ঝাঁটাতারা, ঝাঁটানো, ঝাঁটাপেটা, ঝাঁটি। স্মর্তব্য:  ঝাঁটাখেকো মানে ঝাঁটা খায় এমন লোক নয়। ঝাঁটার সাহায্য প্রায়ই প্রহৃত হয়ে থাকেন এমন লোক। এটি একটি গালি। ঝাঁটা ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করে আমার নিরাপদ রাখে। অথচ, তার প্রতি আমাদের কত ঘৃণা। তাই চাঁদ ঝাঁটার ওপর বসে তাকে সান্ত্বনা দেয়। ঝাঁটা তুমি এগিয়ে চলো, চন্দ্র আছে তোমার সাথে।

ঝাঁপ বানানে চন্দ্রবিন্দু নিমোনিক:   সংস্কৃত ঝম্প থেকে উদ্ভূত ঝাঁপ অর্থ—  ওপর থেকে লম্পন। চাঁদ ওপর থেকে লম্পন দেয়। তাই ঝাঁপ বানানে চন্দ্রবিন্দু। একই কারণে  ঝাঁপ দিয়ে গঠিত সব বানানেও চন্দ্রবিন্দু  দিতে হবে। যেমন: ঝাঁপতার, ঝাঁপা, ঝাঁপান, ঝাঁপানিয়, ঝাঁপি বানানে চন্দ্রবিন্দু দিতে হবে। কারণ এসব শব্দের অর্থের সঙ্গে ওপর থেকে কিছু করার বা পড়ার প্রক্রিয়া বর্তমান।

ঝ-য়ে চন্দ্রবিন্দু নিমোনিক সমগ্র (১ ২ ৩ ও ৪)

লিংক: https://draminbd.com/16622-2/

error: Content is protected !!