মনগড়া : এক হতভাগা শব্দের করুণ কাহিনি

ড. মোহাম্মদ আমীন
বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানমতে, বাক্যে বিশেষণ হিসেবে ব্যবহৃত বাংলা ‘মনগড়া’ শব্দের অর্থ কল্পনাপ্রসূত, অলীক, কাল্পনিক, প্রকৃত নয় এমন, বানানো। অন্যদিকে, ‘কল্পনা’ শব্দের অর্থ অলীক, মনগড়া বিষয়, কবির সৃষ্টি, রচনা, ধারণা, আন্দাজ, অনুমান প্রভৃতি। ‘অলীক’ শব্দের অর্থ বিশেষ্যে মিথ্যা, অসত্য, ললাট, কপাল এবং বিশেষণে কাল্পনিক। এবার কয়েকটি বাক্যে ‘মনগড়া’ শব্দের প্রয়োগ দেখা যায় :
 
রবীন্দ্রনাথের মনগড়া (কল্পনাপ্রসূত) সাহিত্যকর্ম এখন বিশ্ব সাহিত্যের অমূল্য সম্পদ।
লিওনার্দো ভিঞ্চির মনগড়া (অলীক) ছবি হতে সৃষ্টি হয়েছে হেলিকপ্টার-সহ অনেক আধুনিক যন্ত্র।
নজরুলের মনগড়া (কাল্পনিক) বিদ্রোহ-বাণী ছিল অগ্নিযুগের উদ্দীপনার অন্যতম উৎস।
মাদাম তুসো যাদুঘরে রক্ষিত কোনো মূর্তিই আসল নয়, সবগুলো মনগড়া (প্রকৃত নয়)।
এডিসনের মনগড়া (বানানো) যন্ত্রগুলো আধুনিক বিশ্বের অনিবার্য হাতিয়ার।
 
‘মনগড়া’ শব্দটির অর্থ এবং প্রয়োগ দেখে বোঝা যায়, এর একটি অর্থও প্রায়োগিকভাবে নেতিবাচক নয়, বরং জ্ঞানের বিস্তৃত আধারের একটি অনিবার্য ধারক। পৃথিবীর সব আবিষ্কার, সৃষ্টি, রহস্যজ্ঞান এবং অনুসন্ধান কল্পনাপ্রসূত মনের আবেগ থেকে সৃষ্ট অলিক কল্পনার বাস্তব ফল। যা আধুনিক সভ্যতার ভিত্তি। এই কল্পনা আর মনগড়া চিন্তাই বিশ্বকে আদিম যুগ থেকে আধুনিক যুগে নিয়ে এসেছে। কল্পকাহিনীমূলক সাহিত্য বিশ্বসাহিত্যের একটি বিশেষ ধারা যাতে ভবিষ্যৎ বৈজ্ঞানিক বা প্রযুক্তিগত আবিষ্কার, উদ্ভাবন এবং মানব সভ্যতার পটভূমি রচিত হয়। পৃথিবীর সমস্ত সাহিত্যকর্মই কাল্পনিক, বানানো এবং কল্পনাপ্রসূত। বিজ্ঞানের কল্পকাহিনির বই থেকে শুরু হয়েছে আকাশ বিজ্ঞানের প্রকৃত যাত্রা, আবিষ্কারের নেশা এবং শেষ পর্যন্ত ভৌত আবিষ্কার।
দর্শন, মনোবিজ্ঞান, সাহিত্য, সংস্কৃতি এবং ধর্ম-সহ পৃথিবীর সমস্ত জ্ঞানের শাখা মানুষের কল্পনা থেকে উৎসরিত এবং ব্যক্তির বানানো চিন্তা ও মতবাদের মাধ্যমে উৎকৃষ্ট বা নিকৃষ্ট রূপ ধারণ করে বাস্তবতায় এসেছে। অতএব, মনগড়া শব্দটি একটি চমৎকার ইতিবাচক শব্দ। কিন্তু শব্দটির ভাগ্য বড়ো খারাপ। এত ইতিবাচকতা নিয়েও তার কপালে সামান্য উৎকৃষ্টতা জোটেনি। সবাই তাকে শুধু নেতিবাচক অর্থে ব্যবহার করে।
 
কেউ কারো লেখা বা মন্তব্য বা মতবাদ পছন্দ না-করলে বলে বসে : মনগড়া। অথচ, মন্তব্যকারী চিন্তাও করে দেখেন না যে, পৃথবীর সবকিছুই মনগড়া, এমনকি তার মনগড়া মন্তব্যটাও মনগড়া। একটা বিষয় নিশ্চিত যে, সব সৃষ্টিই মন দিয়ে গড়া। অতএব মনগড়া শব্দটি নেতিবাচক অর্থে প্রয়োগ করা হলেও শব্দটির নিহিত অর্থ ইতিবাচক।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Language
error: Content is protected !!