নারীহীন ব্যাকরণ

ড. মোহাম্মদ আমীন
ব্যাকরণে ইংরেজি ‘person’ শব্দের বাংলা পরিভাষা করা হয়েছে পুরুষ। অথচ এর আভিধানিক অর্থ ‘ব্যক্তি’। এ প্রসঙ্গে একটা মোক্ষম কথোপকথনের কথা মনে পড়ে গেল। শিক্ষক বাংলা ব্যাকরণের ক্লাসে ‘পুরুষ’ পড়ানোর পর বললেন, এবার পুরুষ নিয়ে তোমাদের পরীক্ষা হবে।
রাশেদা নামের এক ছাত্রী বলল, ‘নারী’ নিয়ে কখন পরীক্ষা হবে?
‘নারী’ নিয়ে কোনো পরীক্ষা হবে না।
কেন?
ব্যাকরণে কোনো ‘নারী’ নেই, যা আছে সব ‘পুরুষ’।
রাশেদা বলল, “ (আমি) কামাল, (তুমি) মনসুরকে হাসেমের খবর নিতে বললেন।” এই বাক্যের মধ্যে কে কোন পুরুষ?
শিক্ষক বললেন, ‘কামাল’ উত্তম পুরুষ, ‘মনসুর’ মধ্যম পুরুষ এবং ‘হাসেম’ নাম পুরুষ। বুঝেছ?
রাশেদা বলল, স্যার, “(  আমি) রাজিয়া,  (তুমি) রাহেলার সামনে মদীনার কথা বলল।” এখানে কে কী হবে?
শিক্ষক বললেন, ‘রাজিয়া’ উত্তম পুরুষ, ‘রাহেলা’ মধ্যম পুরুষ এবং ‘মদীনা’ নাম পুরুষ।
কিন্তু এরা তো সবাই নারী; পুরুষ কীভাবে হয়? অধিকন্তু, পারসন শব্দের অর্থ হচ্ছে ব্যক্তি। ব্যক্তি বলতে, নারীপুরুষ দুটোই।
কী বললে তুমি খুশি হবে? শিক্ষক জানতে চাইলেন।
রাশেদা বলল, ‘রাজিয়া’ উত্তম নারী, ‘রাহেলা’ মধ্যম নারী এবং ‘মদীনা’ নাম নারী।
তা আর করা যাবে না। এটি পরিভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়ে গেছে।
যিনি পরিভাষা করেছেন তিনি নিশ্চয় বেআক্কেল ছিলেন।
তুমি হলে কী করতে?
উত্তম ব্যক্তি, মধ্যম ব্যক্তি এবং নাম ব্যক্তি।
ব্যাকরণে নারী নেই বলে পুরুষের আধিপত্য একচেটিয়া। পুরুষ যেমন ইচ্ছে তেমন করে। বাক্যে নারীদের অবস্থানগত বিষয়কেও ব্যাকরণে অবমাননার চোখে দেখা হয়। অভিধানেও তেমনটি দেখা যায়। জামাল সাহেবের স্ত্রী বাপের বাড়ি বেড়াতে গেছেন। দুদিন পর ফোন করলেন। ফোন ধরলেন তাদের বাসার কাজের ছেলে রুমি। বললেন, তোমার আঙ্কেল কোথায়?
তিনি তো মেয়েছেলে নিয়ে শুয়ে আছেন?
তুমি ঠিক বলছ তো?
জি, খালাম্মা। এক্ষুনি নিজ চোখে দেখে এলাম। আপনি বাপের বাড়ি যাবার পর থেকে রাতদিন শুধু মেয়েছেলে নিয়ে শুয়ে থাকে।
কাছেই ছিল রাজিয়ার বাপের বাড়ি। এক কাপড়ে চলে এলেন শ^শুর বাড়ি। আজ জামাল মিয়ার রেহাই নেই। বউকে বাপের বাড়ি পাঠিয়ে মেয়েছেলে নিয়ে ফূর্তি। ঘরে ঢুকে বললেন, কই বদমাস জামাইল্যা?
কাজের ছেলে বলল, আপনার ঘরে।
রাজিয়া ঘরে ঢুকে দেখলেন, জামাল সাহেব মেয়েছেলে নিয়ে নয়, ছেলেমেয়ে নিয়ে শুয়ে আছে। তার মানে ছেলেমেয়ে মানে নিজের ছেলেমেয়ে, কিন্তু মেয়েছেলে নিয়ে শুয়ে থাকা মানে যৌনকর্মী বা অন্য কোনো যুবতী মেয়ে নিয়ে যৌনকর্ম করার জন্য শোয়া। ছেলে আগে থাকলে ছেলেমেয়ে হয়ে যায় পুতপবিত্র সন্তান, কিন্তু মেয়ে আগে চলে এলে ‘মেয়েছেলে’ হয়ে যায় যৌনকর্মী। মেয়েছেলে নিয়ে ঘুমিয়ে থাকা মানে কোনো নারীকে নিয়ে খারাপ উদ্দেশ্যে শুয়ে থাকা। কিন্তু ছেলেটাকে আগে নিয়ে আসুন, আর  খারাপ কিছু থাকবে না। এই যেমন, জামাল সাহেব ছেলেমেয়ে নিয়ে শুয়ে আছেন। ছেলেমেয়ে হচ্ছে ‘ছেলে ও মেয়ে’ বাক্যের সমাসবদ্ধ পদ। অন্যদিকে ‘ মেয়েছেলে’ বলতে আমরা বুঝি একটা মেয়ে, একটা কমবয়স্ক মেয়ে, যিনি জামাল সাহেবের স্ত্রী নন, ছেলেমেয়েও নয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Language
error: Content is protected !!