চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ভূল করে না কখনো

ড. মোহাম্মদ আমীন
কেউ এটি পড়ে রুগ্‌ণ, মানে ক্ষিপ্ত হয়ে যাবেন না। ভুল সংশোধনের অনুরোধ জ্ঞাপনের পর অনেকে রুগ্‌ণ হয়ে পড়েছিলেন। ক্ষুব্ধ হয়ে বলছেন, “ভুল করবই, তোমার কী?”
আরে ভাই, না-জানলে তো ভুল হবেই। আপনার ভুল আমার অনেক ক্ষতির কারণ। কেননা, আমার ছেলেমেয়ে ওখানে পড়ে, আপনাদের ভুল তাদের সংক্রমিত করবে। অনেকে বলবেন,“আট হাজার লোকের জন্য আট হাজার পত্র করা হয়েছে, মাত্র একটা পত্রে কয়েকটা ভুল হয়েছে। এ ভুল দূষণীয় নয়।” আমি বলি, “দূষণীয় নয়, দর্শনীয়।”
অনেকে আবার মন্তব্য কলামে লেখে দেবেন, “আপনার লেখাতেও ভুল আছে, আমাদের ভুল হলে অসুবিধা কোথায়?” আমার ভুল কি আপনার লেখা শুদ্ধ হওয়ার পূর্বশর্ত? আমার ভুল কি আপনার ভুলকে শুদ্ধতা দেওয়ার মহাবাণী? আমাকে এত বড়ো করে দিয়ে নিজেদের এত ছোটো ভাবার কোনো হেতু নেই। ভুল থেকে শিক্ষা নিলে ভুল কমে যায়।
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সেদিন ভুলের পক্ষে সাফাই গাইতে গিয়ে লিখলেন, “আমরা এখানে আনন্দ করতে এসেছি, পরীক্ষা দিতে আসিনি যে, ভুল হলে নাম্বার কাটা যাবে।” আমার উত্তর, “নাম্বারের জন্য পরীক্ষা না-দিয়ে যদি জ্ঞানের জন্য দিতেন তাহলে এ বয়সেও মাতৃভাষায় এমন অজ্ঞ থেকে ভুলের আঘাতে হত হতে হতো না।”
আমি ভুল ধরিনি, রেগে যাবেন না। আমি কেবল পত্রটির প্রতি সম্মানিত শুবাচিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। যাতে তাঁরা এখান থেকে শিক্ষা নিতে পারেন। আমার অনুজদের দূরে থাকতে বলছি- এমন ভুল থেকে। একই সঙ্গে আমার যযাতির ভুলগুলো উপস্থাপন করে ভুলারগণ তাদের পত্রকে সর্বশ্রেষ্ঠ, শুদ্ধ ও যৌক্তিক করার প্রয়াস নিতে পারেন — এই একটা ছাড়া তাদের আত্মপক্ষ সমর্থনের আর কোনো উপায় যে নেই।
সংশোধন
এলামনাই এসোসিয়েশন> অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন।
সুহৃদ অর্থ বন্ধু, সুতরাং, ‘সুহৃদ বন্ধু’ বাহুল্য। এর অর্থ হয় ‘বন্ধু বন্ধু’। সম্বোধনে দ্বিত্ব হাস্যকর।
দাবী> দাবি।
সকল প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের> প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের বা সকল প্রাক্তন শিক্ষার্থীর।
ইতিপূর্বে> ইতঃপূর্বে। (‘ইতিপূর্বে’ অশুদ্ধ তবে প্রচলিত)।
নানান ভাবে> নানানভাবে বা নানাভাবে
কারনে> কারণে। (মূর্ধন্য-ণ অপরিহার্য)।
সুবর্ণ জয়ন্তী> সুবর্ণজয়ন্তী। সব ‘জয়ন্তী’ পাশাপাশি বসে। যেমন : রজতজয়ন্তী, হীরকজয়ন্তী প্রভৃতি। কিন্তু চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের জয়ন্তীরা কেন দূরে  চলে গেল?  
উদযাপনের> উদ্‌যাপনের (দ এর নিচে হসন্ত আবশ্যক।)
এসোসিয়েশন> অ্যাসোসিয়েশন ( A বর্ণের উচ্চারণ বাংলায় অ্যা)।
জোরালো হয়। ২০১৬ সাল থেকে > জোরালো হয় ২০১৬ সাল থেকে; (‘দাঁড়ি’ দুটি বাক্যকে অর্থহীন করে দিয়েছে।
ফেব্রুয়ারী> ফেব্রুয়ারি (হ্রস্ব-ইকার)।
মূলত :> মূলত।
অরাজনৈতিক কল্যাণকর সংগঠন> কল্যাণকর অরাজনৈতিক সংগঠন
আজীবনসদস্য এবং আজীবন সদস্য দুভাবে লেখা হয়েছে। কোনটি শুদ্ধ?
কর্মসূচী> কর্মসূচি ( চ-য়ে হ্রস্ব-ইকার হবে)।
গ্রহনের> গ্রহণের (মূর্ধন্য-ণ আবশ্যক)।
অনুরোধে ঃ-> অনুরোধে— বা অনুরোধে : বা শুধু অনুরোধে
মেম্বারশীপ> মেম্বারশিপ (বিদেশি শব্দের বানানে ঈ-কার হয় না)।
এখানে বর্ণিত ভুলগুলো যৎসামান্য। আরো দেখতে চাইলে দেখুন- এবং এখনে ক্লিক করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Language
error: Content is protected !!