‘সহ’ শব্দের ব্যবহার

ড. মোহাম্মদ আমীন
বাংলায় এমন কিছু শব্দ আছে, অভিধানে যাদের পৃথক অর্থ নির্দেশ করা হলেও প্রায়োগিক ক্ষেত্রে কোনো স্বাধীন সত্তা নেই। এসব শব্দের মধ্যে ‘সহ’ অন্যতম। বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধানমতে, সংস্কৃত ‘সহ’ শব্দের অর্থ বিশেষণে সহনশীল (ঘাতসহ), সঙ্গে গমনকারী (সহগামী), সহযোগী, সহকারী এবং অব্যয় ও ক্রিয়াবিশেষণে সঙ্গে, সাথে, সহিত (শ্রদ্ধা-সহ) প্রভৃতি।
বাক্যে ব্যবহৃত হয়ে স্বাধীনভাবে অর্থ প্রকাশের সামর্থ নেই বলে আগে বা পরে যেদিকে বসুক না কেন ‘সহ’ শব্দটি সবসময় সংশ্লিষ্ট শব্দের সঙ্গে সেঁটে বসে। যেমন : সহ-অবস্থান, সহকর্মী, সহকারী, সহকারে, সহগমন, সহগামী, সহচর, সহমত, সহমরণ, সহমর্মী, সহযাত্রী, সহযোগ, সহযোগী, সহশিক্ষক, সহশিক্ষা এবং নজির-সহ, মাল-সহ প্রভৃতি।
‘সহ’ শব্দটি সংশ্লিষ্ট শব্দের শেষে বসলেও সেঁটে লিখতে হয়। তবে প্রমিত নিয়মে শব্দের শেষের ‘সহ’ শব্দটি হাইফেন দিয়ে লেখা হয়। যেমন : শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান-সহ, শ্রদ্ধা-সহ , বর্ণনা-সহ, কাঁঠাল-সহ, অসুখ-সহ, জীবজন্তু-সহ, প্রমাণ-সহ প্রভৃতি। হাইফেন না দিয়ে লিখলেও ভুল হবে না, তবে ফাঁক না রেখে লিখতে হবে। যেমন : প্রমাণসহ, জীবনসহ, বর্ণনাসহ।
প্রথমে হোক বা শেষে হোক ‘সহ’ শব্দটি মূল শব্দ থেকে পৃথক লেখা ভুল। যেমন : সহ গমন, সহ কারী, সহ অবস্থান; ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সহ’, ‘শ্রদ্ধা সহ’ ‘বর্ণনা সহ’, ‘কাঁঠাল সহ’, ‘প্রমাণ সহ’ লেখা ভুল।
শব্দ নিয়ে আরও জানতে ক্লিক করুন : এক মিনিটের পাঠ শালা (১- ১০) একসঙ্গে

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Language
error: Content is protected !!