এক মিনিটের পাঠশালা (৬-১০)

 

এক মিনিটের পাঠশালা

পর্ব ৬

অন্তঃসত্তা অর্থ — আত্মা, আমি;

কিন্তু অন্তঃসত্ত্বা অর্থ —গর্ভবতী।

অন্তরঙ্গ (অন্‌তরংগো) অর্থ — আত্মীয়, বন্ধু, অভ্যন্থরস্থ অঙ্গ, ঘনিষ্ঠ;

কিন্তু অন্তরজ্ঞ (অন্‌তরগ্‌গোঁ) অর্থ — অন্তর্যামী, দূরদর্শী, বিশেষজ্ঞ প্রভৃতি।

এতদ্বারা (এত+দ্বারা) ভুল

শুদ্ধ হচ্ছে এতদ্দ্বারা (এতদ্+দ্বারা)।

অন্তরীক্ষ নয়

অন্তরিক্ষ (আকাশ) লিখুন।

অন্তরীণ নয়

অন্তরিন (গৃহবন্দি) লিখুন।

এক মিনিটের পাঠশালা

পর্ব ৭

অসূর্যম্পশ্যা (অশুরজম্‌পোশ্‌শা)

যে নারীকে সূর্যকিরণও স্পর্শ করেনি এমন বা অন্তঃপুরবাসিনী অর্থে অসূর্যম্পশ্যা লিখুন, অসুর্যস্পর্শা লিখবেন না।

আবৃত্তি লিখবেন না

আবৃতি: আবরণ, আচ্ছাদন, বেষ্টিত স্থান প্রভৃতি অর্থে আবৃতি লিখুন।

আবৃতি লিখবেন না

আবৃত্তি : ছন্দ, ব্যঞ্জনা প্রভৃতি অভিব্যক্তি সহকারে উচ্চকণ্ঠে পাঠ অর্থে আবৃত্তি (আবৃত্‌তি) লিখুন

শিরশ্ছেদ (শিরোশ্‌ছেদ্) লিখুন

শিরচ্ছেদ লিখবেন না।

এক মিনিটের পাঠশালা

পর্ব ৮

এক কথা

অর্থ : যে কথার নড়চড় হয় না। যেমন : হাবিব সাহেব এক কথার মানুষ। বাক্যে এটি বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

এককথা

অর্থ : সংক্ষিপ্ত বর্ণন, সংক্ষেপ। যেমন : এককথায় তিনি একজন ভালো মানুষ।এরূপ আরো শব্দ : একগলা, একগাল, একচর, একচালা, একচুল প্রভৃতি।

এ-কার

অর্থ : ব্যঞ্জনবর্ণের সঙ্গে ‘এ’ স্বর যুক্তকরণ চিহ্ন। বাক্যে ‘এ-কার’ শব্দটি বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়। যেমন : ‘ছেলে’ শব্দের বানানে দুটো ‘এ-কার’ আছে।

এ কার

অর্থ : এটি কার, ইহা কাহার। যেমন : এ কার বাড়ি?

একার

অর্থ : একজনের। যেমন : তার একার পক্ষে কাজটি কষ্টসাধ্য। বাক্যে এটি বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

এ কি

এটি একটি ‘বিস্ময়সূচক’ শব্দ। যেমন : এ কি, তুমি এখনো যাওনি? এ কি সত্য সকলই সত্য, হে আমার চিরভক্ত। ‘এ কি’ কথাটি বাক্যে অব্যয় হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

এ কী

কথাটির অর্থ ‘এ বিষয়টি কী’, যেমন : এ কী বললে? ‘এ কী’ কথাটি বাক্যে সর্বনাম হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

এক মিনিটের পাঠশালা

পর্ব ৯

উহ্য (উজ্‌ঝো)

বাক্যে বিশেষণ হিসেবে ব্যবহৃত সংস্কৃত ‘উহ্য(√বহ্‌+অ)’ শব্দের অর্থ বহনীয়।

ঊহ্য (উজ্‌ঝো)

বাক্যে বিশেষণ হিসেবে ব্যবহৃত সংস্কৃত ‘ঊহ্য (√ঊহ্+য) শব্দের অর্থ অনুক্ত, অনুচ্চারিত, অব্যক্ত; প্রকাশিত না হলেও আছে বলে অনুমিত, অনুমেয়, অপ্রকটিত প্রভৃতি।

ঊনবিংশ

উনবিংশ নয়, লিখুন ঊনবিংশ; কিন্তু উনিশ, উনত্রিশ, উনচল্লিশ, উনপঞ্চাশ, উনষাট ইত্যাদি, তবে ঊনত্রিংশ (২৯ সংখ্যক), ঊননবতি(৮৯ সংখ্যক), ঊনষষ্টি (৫৯ সংখ্যক) প্রভৃতি।

ঋগ্বেদ

‘ঋগ্বেদ’ নয়, লিখুন ঋগ্‌বেদ। বাক্যে বিশেষ্য হিসেবে ব্যবহৃত সংস্কৃত ‘ঋগ্‌বেদ (ঋক্‌+বেদ)’ হচ্ছে — চতুর্বেদের প্রথম ও প্রধান বেদ

এক মিনিটের পাঠশালা

পর্ব ১০

বানানগুলো ভালোভাবে দেখুন। তারপর ভাবুন, কেমন লেখেন।আমার কিন্তু ভুল হয়।

ভালোভাবে দেখলে এখানেও ভুল পেয়ে যেতে পারেন।

অপাঙ্‌ক্তেয় / অলঙ্ঘ্য / আকাঙ্ক্ষা / আর্দ্র/ উজ্জ্বল / উত্ত্যক্ত / কৃচ্ছ্র / ক্বচিৎ / ক্রূর ক্ষুন্নিবৃত্তি / জ্যোৎস্না / জোছনা/ জ্যোতিষ্ক / তৎক্ষণাৎ তদ্ব্যতীত / দুর্নিরীক্ষ্য / দ্ব্যর্থ / দূত্যক্রীড়া দারিদ্র্য / দৌরাত্ম্য / ন্যুব্জ/ন্যূন পঙ্‌ক্তি / পরাঙ্মুখ / পার্শ্ব / প্রতিদ্বন্দ্বিতা প্রতিদ্বন্দ্বী / গার্হস্থ্য কর্ত্রী।

[ ভুল কেন? তা খুঁজে বের করার ইচ্ছে যেন এই যযাতি পড়ার আগ্রহকে একাগ্র করে দেয়। শেখাও হলো আর খোঁজাও হয়ে গেল। এক ঢিলে দুই পাখি। ]

এক মিনিটের পাঠশালা

পর্ব ১১

নানাভাবে নানা ভাবে

নানা ভাবে : এই শব্দজোড়ের অর্থ মাতামহ (মায়ের বাবা) চিন্তা করে। নানাভাবে : শব্দটির অর্থ বিভিন্ন উপায়ে, বিভিন্ন কৌশলে। প্রয়োগ : নানা ভাবে সে হয়রানির শিকার হচ্ছে। (নানা মনে করে, সে হয়রানির শিকার হচ্ছে।) নানাভাবে সে হয়রনির শিকার হচ্ছে। ( বিভিন্ন উপায়ে বা বিভিন্ন দিক হতে সে হয়রানির শিকার হচ্ছে।) নানা ভাবে, সে নানাভাবে হয়রানির শিকার।

সে ভাবে

এই শব্দ জোড়ের অর্থ সে চিন্তা করে। সেভাবে : শব্দটির অর্থ সেই প্রকারে, সেই উপায়ে, সেই কৌশলে। ফাউ

মেম্বারশীপ নয়

লিখুন মেম্বারশিপ।

অন্তস্থল নয়

লিখুন অন্তস্তল (অন্তর্‌+তল = অন্তস্তল)।

ধরণী নয়

লিখুন, ধরণি।

নিরবিচ্ছিন্ন নয়

লিখুন নিরবচ্ছিন্ন (নির্‌+ অবচ্ছিন্ন = নিরবচ্ছিন্ন)।

এক মিনিটের পাঠশালা (১-৫)
সূত্র : বাংলা একাডেমি আধুনিক বাংলা অভিধান।

5 thoughts on “এক মিনিটের পাঠশালা (৬-১০)”

  1. Pingback: শুদ্ধ বানান – Dr. Mohammed Amin

  2. Pingback: এক মিনিটের পাঠশালা (২১-২৫) – Dr. Mohammed Amin

  3. Pingback: এক মিনিটের পাঠশালা (২১-২৫) – Dr. Mohammed Amin

  4. Pingback: এক মিনিটের পাঠশালা (২১-২৫) – Dr. Mohammed Amin

  5. Pingback: অচিন্তনীয় বনাম অচিন্ত্য – Dr. Mohammed Amin

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Language
error: Content is protected !!