বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : ব্যুৎপত্তি ও ব্যুৎপত্তিগত শব্দের অর্থ

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র

ড. মোহাম্মদ আমীন

ব্যুৎপত্তি ও ব্যুৎপত্তিগত অর্থ
ব্যুৎপত্তি: কোনও শব্দের বিশ্লেষণ ও তার ধাতু, প্রকৃতি, প্রত্যয় ইত্যাদির পরিচয়ের নাম ব্যুৎপত্তি। শব্দকে বিশ্লেষণ করে তার ধাতু প্রত্যয় ইত্যাদি বের করাকে বলা হয় ব্যুৎপত্তি নির্ণয়। ব্যুৎপত্তি নির্ণয়কে প্রকৃতি-প্রত্যয় নির্ণয়ও বলা হয়।

ব্যুৎপত্তিগত অর্থ: এটি সাধিত শব্দের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। কোনও শব্দের ব্যুৎপত্তি নির্ণয় করলে, তাতে যে যে অংশ পাওয়া যায়, সেই অংশগুলোর অর্থের সমন্বয়ে শব্দটির যে অর্থ হয়, তাকেই বলা হয় ব্যুৎপত্তিগত অর্থ। যেমন: করণীয় শব্দের ব্যুৎপত্তি : √কর্‌+ অনীয়। ব্যুৎপত্তিগত অর্থ- যা করা উচিত। অনেক শব্দের ব্যুৎপত্তিগত অর্থ ও প্রচলিত অর্থ একই হয় না। যেমন: পঙ্কজ শব্দের

ব্যুৎপত্তিগত অর্থ : পঙ্কে যা জন্মায়; কিন্তু প্রচলিত অর্থে ‘পঙ্কজ’ বলতে পঙ্কে যা জন্মায় তার সবকিছুকে বোঝায় না। পঙ্কজ শব্দের প্রচলিত অর্থ পদ্ম।

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : লিংক

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : ড. মোহাম্মদ আমীনের বাংলা বানান ও ব্যাকরণবিষয়ক বই

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : ধাতু ও ধাতুগণ

বাংলাদেশ : স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : কোনটি সেরা ভাষা না ব্যাকরণ?

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : বানানে দ্বিত্ব

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : বর্গীয়-ব ও অন্তঃস্থ-ব

বাংলা ব্যাকরণ সমগ্র : হ কাহন

আজব ব্যাকরণ গজব কার্যকরণ

পুরুষায়ন সমাস বা সমাসের লিঙ্গায়ন

লিঙ্গসর্বস্বতত্ত্ব বা লিঙ্গসর্বস্ব ব্যাকরণ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Language
error: Content is protected !!