//

//

গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা-২০১৮ খ্রিষ্টাব্দ

বাংলাদেশ

বাংলাদেশ

রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব গ্রহণ

রাষ্ট্রপতি 

আব্দুল হামিদ (জন্ম জানুয়ারি১৯৪৪বাংলাদেশের ২১তম রাষ্ট্রপতি (ব্যক্তি হিসেবে ১৭তম) দ্বিতীয় মেয়াদে তিনি ২১তম রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব গ্রহন করেন ফেব্রুয়ারি ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে। তিনি সপ্তম জাতীয় সংসদে ডেপুটি স্পিকার হিসেবে ১৪ জুলাই, ১৯৯৬ থেকে ১০ জুলাই, ২০০১ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত এবং ১২ জুলাই, ২০০১  থেকে অক্টোবর ২০০১ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেননবম জাতীয় সংসদের স্পিকার হিসাবে ২৫ জানুয়ারি, ২০০৯ থেকে ২৪ এপ্রিল, ২০১৩  খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্তও দায়িত্ব পালন করেছেনরাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের মৃত্যুর দিন পূর্বেই ১৪ মার্চ, ২০১৩ খ্রিষ্টাব্দ তারিখে তিনি বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি হিসেবে আসীন ছিলেন

প্রধানমন্ত্রী 

২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিজয় অর্জনের পর ০৭ই জানুয়ারি ২০১৯ শেখ হাসিনা চতুর্থবারের মত গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন।

২০১৪  খ্রিষ্টাব্দের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের  বিজয় অর্জনের পর ১২ই জানুয়ারি শেখ হাসিনা তৃতীয়বারের মত গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন।

শেখ হাসিনা ২০০৯ খ্রিষ্টাব্দের ৬ই জানুয়ারি দ্বিতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

১৯৯৬ খ্রিষ্টাব্দের ২৩ জুন তিনি প্রথম বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেছিলেন। তাঁর নেতৃত্বধীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সে বছরের ১২ জুনের সংসদ নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেছিল।

স্পিকার

. শিরীন শারমিন চৌধুরী. (জন্ম অক্টোবর ১৯৬৬নবম জাতীয় সংসদের স্পিকারসহ বাংলাদেশেরইতিহাসে প্রথম নারী স্পিকার হিসেবে ৩০ এপ্রিল, ২০১৩ তারিখে নির্বাচিত হন ৪৬ বছর বয়সে তিনি সর্বকনিষ্ঠ স্পিকাররূপে সাবেক স্পিকার বর্তমান রাষ্ট্রপতি এডভোকেট আব্দুল হামিদের স্থলাভিষিক্ত হন এরপূর্বে তিনি বাংলাদেশ সরকারের মহিলা শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ছিলেন২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, ২০১৮  তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হোন এবং ২০১৯ সালের জানুয়ারী পুনরায় জাতীয় সংসদের স্পিকার হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন

ঘটনা

জানুয়ারি : ১৭ জানুয়ারিবাংলাদেশ আর মিয়ানমারের সরকার রোহিঙ্গা মুসলিমদের প্রত্যাবাসনের জন্য একটি চুক্তি করে

 

 

ফেব্রুয়ারি : ফেব্রুয়ারিজিয়া অরফানে

ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত একই মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ অপর পাঁচ আসামিকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেয় আদালত

 

মার্চ : ১২ মার্চইউএসবাংলা এয়ারলাইন্স ফ্লাইট ২১১ নেপালে অবতরণ করার সময় বিধ্বস্ত হয় উড়োজাহাজটিতে থাকা মোট ৭১ জন আরোহীর মধ্যে ৫১ জন নিহত হয়

 

এপ্রিল : ২০১৮ কোটা সংস্কার আন্দোলন জানুয়ারি থেকে চললেও এপ্রিলে এসে দেশব্যাপী ব্যাপকতা লাভ করে

 

মে : ১২ মেবাংলাদেশ মান সময় ভোর ২টা ১৪ তে (১১ মে ২০১৮ ইউটিসি) কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে বাংলাদেশের প্রথম ভূস্থির যোগাযোগ উপগ্রহ বঙ্গবন্ধু উৎক্ষেপণ করা হয়

 

জুলাই : ১৯ জুলাইঢাকার রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী বাস চাপায় নিহত হলে শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করে যা পরে দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে

 

সেপ্টেম্বর : ১৮ সেপ্টেম্বরডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ পাস হয়

 

অক্টোবর : ১০ অক্টোবর২০০৪ ঢাকা গ্রেনেড হামলার সাথে জড়িত থাকার দায়ে বিএনপি নেতা সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর এবং আব্দুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনকে মৃত্যুদণ্ডের রায় দেয় ঢাকার একটি বিশেষ দ্রুত আদালত

 

ডিসেম্বর : ৩০ ডিসেম্বরএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, ২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়

মৃত্যু

 জানুয়ারিধীরাজ কুমার নাথ, কূটনীতিজ্ঞ (জন্ম: ১৯৪৫)

 

১৬ জানুয়ারিশাম্মী আখতার, গায়িকা (জন্ম: ১৯৫৫)

 

২৫ জানুয়ারিশওকত আলী, বাংলাদেশি কথাসাহিত্যিক (জন্ম: ১৯৩৬)

 

মার্চফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী, স্বাধীনতা পুরুস্কারপ্রাপ্ত ভাস্কর (জন্ম: ১৯৪৭)

 

২১ মার্চকাঁকন বিবি, বীরঙ্গগনা গুপ্তচর (জন্ম: ১৯১৫)

 

২১ এপ্রিলআনোয়ারা বেগম, শিক্ষাবিদ ফাস্ট লেডি

 

২৪ এপ্রিলবেলাল চৌধুরী, কবি (জন্ম: ১৯৩৮)

 

২৬ এপ্রিলসামছুল ইসলাম, রাজনীতিবিদ (জন্ম: ১৯৩১)

 

মেমুস্তাফা নূরউল ইসলাম, শিক্ষাবিদ জাতীয় অধ্যাপক (জন্ম: ১৯২৭)

 

জুলাইরানী সরকার, চলচ্চিত্র অভিনেত্রী (জন্ম: ১৯৩০ এর দশকে)

 

২৫ জুলাইকল্পরঞ্জন চাকমা, রাজনীতিবিদ

 

২৬ জুলাইমোস্তফা সুজা, রাজনীতিবিদ (জন্ম: ১৯৫০)

 

২৭ জুলাইরহিম উদ্দিন ভরসা, শিল্পপতি যুগের আলোর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা

 

১৮ অক্টোবরআইয়ুব বাচ্চু, মঞ্চ গায়ক, কন্ঠশিল্পী (জন্ম: ১৯৬২)

 

১৪ ডিসেম্বরআমজাদ হোসেন, চলচ্চিত্র নির্মাতা, লেখক, গীতিকার

 

১৮ ডিসেম্বরসাইদুল আনাম টুটুল, চলচ্চিত্র সম্পাদক নির্মাতা

১৯ ডিসেম্বরটি.আই.এম. ফজলে রাব্বি চৌধুরী, রাজনীতিবিদ জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান

আন্তর্জাতিক

জামাল খাসোগির মৃত্যু২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ২রা অক্টোবর সাংবাদিক জামাল খাসোগি তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি আরবের কনস্যুলেটে প্রবেশ করেন কিন্তু এরপর আর বের হয়ে আসেননি  বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদপত্রে প্রতিবেদন প্রকাশ হতে থাকে যে, তাকে কনস্যুলেটের ভেতর হত্যা করা হয়েছে। ১৫ই অক্টোবর তুর্কি কর্তৃপক্ষ সৌদি আরব কর্তৃপক্ষের অনুমতিক্রমে কনস্যুলেটে তল্লাশি পরিচালনা করে। প্রাথমিকভাবে সৌদি সরকার বিভিন্ন হত্যাকাণ্ডের খবর অস্বীকার করে. কিন্তু ২০শে অক্টোবর তারা স্বীকার করে নেয় যে, জামাল খাসোগি খাসোগি কনস্যুলেটের ভেতর মৃত্যুবরণ করেছেন কারণ হিসেবে তারা উল্লেখ করেন, খাসোগি কনস্যুলেটের কর্মকর্তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন

বিবিধ বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক/ ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দ

ট্রাম্পকিম্প ঐতিহাসিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়
১২জুন ২০১৮
২১তম বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ রাশিয়ার লুঝনিকি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়
১৪জুন ২০১৮
যুক্তরাষ্ট্র UNHCR ত্যাগের ঘোষণা দেয়
১৯জুন ২০১৮
নতুন সেনাপ্রধান হিসেবে আজিজ আহমেদ দায়িত্ব গ্রহণ করেন
২৫জুন ২০১৮
দেশের ৪৮তম বাজেট ঘোষণা করা হয়
৭জুন এবং পাস হয় ২৮জুন
ব্যবসায়ীদের জন্য ইবিআইএন ব্যবহার বাধ্যতামূলক করেছে এনবিআর
১জুলাই ২০১৮
আবহাওয়া বিল পাস হয়
৪জুলাই ২০১৮
২০২০২১ সালকে মুজিব বর্ষ ঘোষণা করা হয়
৬জুলাই ২০১৮
বাংলাদেশ সংবিধান সপ্তদশ সংশোধনী জাতীয় সংসদে পাস হয়
৮জুলাই ২০১৮
ইথিওপিয়া ইরিত্রিয়ার যুদ্ধ সমাপ্তি হয়
৯জুলাই ২০১৮
জাতিসংঘের অভিবাসন চুক্তি হয়
১৩জুলাই ২০১৮
ট্রাম্পপুতিন ঐতিহাসিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়
১৬জুলাই ২০১৮
সুপারসনিক ক্রুজ ক্ষেপানাস্ত্রের সফল পরীক্ষা করে ভারত
১৬জুলাই ২০১৮
বাংলাদেশ ৫ম কৃষিশুমারী শুরু হয়
১৭জুলাই ২০১৮
নেলসন ম্যান্ডেলার শততম জন্মবার্ষিকী
১৮জুলাই ২০১৮
দেশে পাসপোর্ট বাস্তবায়ন প্রকল্পের চুক্তি হয়
১৯জুলাই ২০১৮
ইসরায়েল ইহুদী রাষ্ট্র ঘোষণা করা হয়
১৯জুলাই ২০১৮
পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের ১১তম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়
২৫জুলাই ২০১৮
মালির প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়
২৯জুলাই ২০১৮
জিম্বাবুইয়ের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়
৩০জুলাই ২০১৮
জাপানের হিরোশিমায় আণবিক বোমা ফেলার ৭৩বছর পূর্তি হয়
৬আগস্ট ২০১৮
অ্যাসিয়ানের ৫১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ছিল
৮আগস্ট ২০১৮
সূর্য অভিযানে যায় নাসার প্রেরিত মহাকাশযানপার্কার
১২আগস্ট ২০১৮
ভারতের তিনবারের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রি অটল বিহারী মারা যান
১৬আগস্ট ২০১৮
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ইমরান খান শপথ গ্রহণ করেন
১৮আগস্ট ২০১৮
 

বাংলাদেশের ইতিহাসে শীতলতম দিন
জানুয়ারি ২০১৮
বাংলাদেশে 4জি সেবা চালু হয়
১৯ফেব্রুয়ারি ২০১৮
ঢাকায় 5জি পরীক্ষামূলক প্রদর্শনী হয়
২৫জুলাই ২০১৮
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হয়
১১মে ২০১৮
নেপালের ত্রিভুবনে ইউএস বাংলা বিধ্বস্ত হয়
১২মার্চ ২০১৮
পদার্থ বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং মারা যান
১৪মার্চ ২০১৮
জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান মারা যান
১৮ আগস্ট ২০১৮
শতাব্দীর দীর্ঘতম পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ হয়
২৭জুলাই ২০১৮
শান্তি নিকেতনে বাংলাদেশ ভবন উদ্বোধন করা হয়
২৫মে ২০১৮
বাংলাদেশী হিসেবে মিতু আক্তার বাংলা চ্যানেল জয় করেন
১৯মার্চ ২০১৮
অধ্যাপক আনিসুজ্জামান কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জগত্তারিণী পেয়েছেন
১১জানুয়ারি ২০১৮
২২তম বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন শপথ গ্রহণ করেন
৩ফেব্রুয়ারি ২০১৮
শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউট বিল পাস হয়
২৫ফেব্রুয়ারি ২০১৮
নেপালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়
১৩মার্চ ২০১৮
৩৫বছর পর সৌদিআরবে চলচ্চিত্র প্রদর্শনী শুরু হয়
১৮এপ্রিল ২০১৮
বিশ্বের প্রবীণতম ব্যক্তি জাপানের নাবি তাজিমা ১১৭বছর বয়সে মারা যান
২১এপ্রিল ২০১৮
বাংলাদেশভারতনেপাল বাস সার্ভিস চালু হয়
২৩এপ্রিল ২০১৮
২১তম রাষ্ট্রপতি পদে আব্দুল হামিদ ২য় মেয়াদে শপথ গ্রহণ করেন
২৪এপ্রিল ২০১৮
সাউথ ওয়েস্ট এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (SWAFF) গঠিত হয়
১০মে ২০১৮
টেস্ট ক্রিকেটে আয়ারল্যান্ডের অভিষেক হয়
১১মে ২০১৮
জেরুজালেমে প্রথম দূতাবাসা উদ্বোধন করে যুক্তরাষ্ট্র
১৪মে ২০১৮
বাংলাদেশ সরকার মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন
১৫মে ২০১৮
ট্রিপল বিলিয়ন পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা গ্রুহণ করে WHO
২৩মে ২০১৮
উত্তর কোরিয়ার একমাত্র পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রপুঙ্গেরিধ্বংস করে
২৪মে ২০১৮
জাতিসংঘের দুর্নীতি বিরোধী কনভেনশন অনুষ্ঠিত হয়
৪জুন ২০১৮

বাংলাদেশের প্রথম ও প্রধান

1.বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি?
2.বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি ?
3.বাংলাদেশের প্রথম উপ-রাষ্ট্রপতি ?
4.বাংলাদেশের প্রথম স্পীকার (গণ পরিষদ) ?
5.বাংলাদেশের প্রথম স্পিকার (জাতীয় সংসদ) ?
6.বাংলাদেশের প্রথম সি.ইন.সি. ?
7.বাংলাদেশের প্রথম প্রধান বিচারপতি ?
8.বাংলাদেশের প্রথম এটর্নি জেনারেল ?
9.বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ?
10.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী ?
11.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা রিবোধী দলীয় নেত্রী?
12.বাংলাদেশের প্রথম নির্বাচন কমিশন ?
13.বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় ?
14.ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভাইস-চ্যান্সেলর ?
15.ঢাকা পৌরসভার প্রথম চেয়ারম্যান ?
16.ঢাকা পৌরসভার নির্বাচিত প্রথম চেয়ারম্যান?
17.ঢাকা পৌর কর্পোরেশনের প্রথম মেয়র?
18.ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচিত প্রথম মেয়র?
19. প্রথম জাতীয় পতাকা উত্তোলনকারী ?
20.বাংলদেশ ব্যাংকের প্রথম গর্ভনর ?
21.বাংলাদেশে প্রথম মুদ্রা প্রচলনের তারিখ ?
22.বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতি প্রদানকারী দেশ ?
23.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা নোটারি পাবলিক ?
24.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা পাইলট ?
25.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা রাষ্ট্রদূত ?

26.বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমির প্রথম মহিলা প্যারেড কমান্ডার ?
27.বাংলাদেশের প্রথম মডেল খানা কোনটি?
28.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা কুটনীতিবিদ?
29.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা সচিব ?
30.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা এস.পি ?
31.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা কাস্টমস কমিশনার?
32.বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রথম মহিলা ব্যবস্থাপক ?
33.বাংলাদেশের ব্যাংকিং জগতের প্রথম এম.ডি. ?
34.বাংলাদেশের হাইকোর্টের প্রথম মহিলা বিচারপতি?
35.বাংলাদেশের প্রথম মহিলা বিগ্রেডিয়ার?
36.বাংলাদেশের প্রথম জেলা প্রশাসক?
37.ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম মহিলা উপ-উপাচার্য?
38.বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের প্রথম মহিলা চেয়ারম্যান?
39.বাংলাদেশের প্রথম ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র ?
40.প্রথম বাঙালি ভাইস চ্যান্সেলর ?
41.প্রথম বাঙালি বিলেত গমণকারী ?
42.প্রথম বাঙালি বিচারপতি?
43.প্রথম বাঙালি নোবেল বিজয়ী ?
44.বাংলাদেশের প্রথম উপজাতীয় রাষ্ট্রদূত?
45.বাংলাদেশের প্রথম বাণিজ্য জাহাজ ?
46.বাংলাদেশের প্রথম রণতরী ?
47.প্রথম বাংলা চলচ্চিত্র?
48.প্রথম মুসলিম অভিনেত্রী ?
49.প্রথম ইংলিশ চ্যানেল অতিক্রমকারী বাঙালি ?
50.বিটিভির প্রথম মহিলা মহাপরিচালক ?

উত্তর

1. বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
2. সৈয়দ নজরুল ইসলাম
3.সৈয়দ নজরুল ইসলাম
4. শাহ আব্দুল হামিদ
5. মোহাম্মদ উল্ল্যাহ
6. জেনারেল এম. এ. জি. ওসমানী
7. এ. এস. এম. সায়েম
8. এম. এইচ. খোন্দকার।
9. তাজউদ্দিন আহমেদ
10. বেগম খালেদা জিয়া
11. শেখ হাসিনা
12. বিচারপতি মোহাম্মদ ইদ্রিস।
13. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
14. স্যার পি. জে. হাটর্স।
15. মিঃ স্কিনার।
16. আনন্দ চন্দ্র রায়।
17. ব্যারিস্টার আবুল হাসনাত।
18. মোহাম্মদ হানিফ
19. আ. স. ম. আব্দুর রব।
20. এ. এন. হামিদুল্লাহ
21. ৪ঠা মার্চ, ১৯৭২ খ্রিষ্টাব্দ।
22. ভুটান, মতান্তরে ভারত
23. মিসেস কামরুন্নাহার লাইলী
24.কানিজ ফাতেমা

25. মাহমুদা হক চৌধূরী

 

26. এলিজা শারমিন (০২ সেপ্টেম্বর, ২০০৭)।
27. ভালুকা, ময়মনসিংহ।
28. তাহমিনা হক ডলি
29. জাকিয়া আখতার
30. বেগম রওশন আরা
31. হাসিনা খাতুন
32. নাজনিন সুলতানা
33. আনিসা হামেদ
34. নাজমুন আরা সুলতানা
35. সুরাইয়া রহমান।
36. কামরুন নেসা খানম, মোশফেকা ইফফাত, বেগম মমতাজ আহমেদ, রাবেয়া বেগম।
37. ড. জিন্নাতুন্নেছা তাহমিদা
38. ড. জিন্নাতুন্নেছা তাহমিদা
39. বেতবুনিয়া, রাঙ্গামাটি।
40. স্যার এফ রহমান
41. রাজা রামমোহন রায়।
42.স্যার সৈয়দ আমির আলী
43. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
44. শরদিন্দু শেখর চাকমা
45. বাংলার দূত
46. বি. এন. এস. পদ্মা
47. মুখ ও মুখোশ
48.বনানী চৌধুরী
49. ব্রজেন দাশ (৬ বার)
50. ফেরদৌস আরা বেগম

Current Affairs

৪ নিয়ে যত কথা একত্রে মনে রাখুন

  • গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মনোগ্রামে/জাতীয় প্রতীকে- ৪টি তারকা আছে
  • গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান দিবস -৪ নভেম্বর
  • জনসংখ্যায় মুসলিম বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান- ৪র্থ
  • বাংলাদেশ সংবিধানের মূলনীতি -৪টি (ধর্ম নিরপেক্ষতা, গণতন্ত্র, জাতীয়তাবাদ ও সমাজতন্ত্র)
  • রাষ্ট্র গঠিত হয় -৪টি উপাদান নিয়ে (জনসমষ্টি, সরকার, নির্দিষ্টি ভূখন্ড ও সার্বভৌমত্ব)
  • বাংলাদেশে ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্রের সংখ্যা -৪টি (বেতবুনিয়া, তালিবাবাদ, মহাখালী ও সিলেট)
  • বঙ্গবন্ধু সেতুর দৈর্ঘ্য -৪.৮ কি.মি.
  • ময়মনসিংহ বিভাগে জপলা আছে- ৪টি (জামালপুর,শেরপুর,ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনা)
  • সিলেট বিভাগে জেলা আছে- ৪টি (সিলেট,মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ ও সুনামগঞ্জ)
  • মানুষের দেহে শতকরা খনিজ লবণ থাকে -৪ ভাগ রক্তের গ্রপ- ৪টি ( A, B, AB এবং O )
  • মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য বাংলাদেশ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার দেয়- ৪টি (বীরশ্রেষ্ঠ, বীরউত্তম, বীরবিক্রম ও বীরপ্রতীক)
  • বীর প্রতীক সেতারা বেগম মুক্তিযুদ্ধে- ৪ নং সেক্টরে ছিলেন (সিলেট)
  • দেশে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক- ৪ টি
  • দেশে সরকারি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় আছে- ৪ টি
  • বাংলাদেশে কৃষি শুমারী হয়েছে -৪ বার (১৯৭৭,১৯৮৬,১৯৯৭,২০০৮)
  • বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের মেয়াদকাল – ৪ বছর
  • যুক্তফ্রন্টে (১৯৫৪) রাজনেতিক দলের সংখ্যা -৪টি (আওয়ামীলীগ, কৃষকশ্রমিক পার্টি,নেজাম এ ইসলাম ও বামপন্থী গণতন্ত্রী)
  • উৎসব অনুষ্ঠানে জাতীয় সঙ্গীতের – ৪ চরণ বাজানো হয়
  • কোন দেশের সংবাদপত্রকে বলা হয়- ৪র্থ রাষ্ট্র
  • প্রধান আসমানী কিতাবের সংখ্যা ৪টি (তাওরাত, যাবুর, ইঞ্জিল ও কুরআন)
  • আরব ইসরাইল যুদ্ধ এ পর্যন্ত হয় – ৪ বার (১৯৪৮,১৯৫৬,১৯৬৭,১৯৭৩)
  • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস -৪ জুলাই
  • বিশ্বকাপ ফুটবল অনুষ্ঠিত হয় – ৪ বছর পরপর

৫ সংখ্যা তত্ত্ব কথা

  • একটি সার্থক মঙ্গল কাব্যের খন্ড ৫টি
  • জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য সংখ্যা ৫টি.
  • বাংলা সনের ৩১দিনের মাস ৫টি.
  • আন্তর্জাতিক শিক্ষক দিবস ৫অক্টোবর.
  • বিশ্ব পরিবেশ দিবস ৫জুন.
  • ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের মেয়াদকাল ৫বছর.
  • বাংলায় নাসিক্য বর্ণ ৫টি.
  • বাংলাদেশের সাথে ভারতের রাজ্যের সীমান্ত রয়েছে ৫টি.
  • উত্সগত ভাবে বাংলা ভাষার শব্দকে ৫ভাগে ভাগ করা যায়.
  • পৃথিবীতে মহাসাগর ৫টি.
  • অলিম্পিক গেমসের প্রতীকে বৃত্ত ৫টি.
  • জাতিসংঘ মহাসচিবের মেয়াদ ৫বছর.
  • বাংলাদেশে আদমশুমারী হয়েছে ৫বার.
  • একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের দেহে রক্ত থাকে ৫ – ৬লিটার.
  • সুন্দরবন বাংলাদেশের ৫টি জেলাকে স্পর্শ করেছে.
  • নিরাপত্তা পরিষদে ভেটো ক্ষমতা আছে ৫টি স্থায়ী সদস্য দেশের.
  • WB world bank গ্রুপের অঙ্গসংস্থা আছে ৫টি.
  • scandinavian দেশ ৫টি.
  • যে সর্বোচ্চ শ্রুতির সীমার উপরে মানুষ বধির হতে পারে ১০৫ ডেসিবল.
  • নেলসন ম্যান্ডেলা মারা যান ৫ডিসেম্বর ২০১৩
  • হুগো শাভেজ মারা যান ৫মার্চ ২০১৩
  • বাংলা সাহিত্যে পঞ্চপান্ডব ৫ জন
  • কাজী নজরুল ইসলামের ৫টি গ্রন্থ নিষিদ্ধ হয়.
  • বাংলাদেশে এভারেস্ট জয়ী ৫জন.

২৪ সংখ্যা

  • ‪জাতিসংঘ‬ দিবস= ২৪ অক্টোবর
  • ‪‎গণ‬ অভ্যুত্থান দিবস= ২৪ জানুয়ারী
  • ‪‎বদরের‬ যুদ্ধ সংঘটিত হয়=৬২৪সালে
  • ‪‎ধান‬ গাছে ক্রোমোজোম সংখ্যা= ২৪টি
  • ‪‎চর্যাপদে‬ পদকর্তা আছে=২৪জন
  • ‪‎হীরকের‬ ক্রান্তি কোণ= ২৪ডিগ্রি
  • ‪‎বিশুদ্ধ‬ সোনা হল =২৪ক্যারেট বিশিষ্ট সোনা

বিবিধ

প্রশ্ন : হেমচন্দ্র বন্দোপাধ্যায় রচিত মহাকাব্যর নাম কি?
উঃ বৃত্রসংহার।
প্রশ্ন : লালন ফকির নাটকের নাট্যকার কে?
উঃ কল্যান মিত্র।
প্রশ্ন : সিরাজদ্দৌলা নাটকের নাট্যকার কে?
উঃ গিরিশ চন্দ্র।
প্রশ্ন : অশ্রুমালা কাব্যগ্রন্থের রচয়িতা কে?
উঃ কায়কোবাদ।
প্রশ্ন : অভিজ্ঞান শকুন্তলম এর রচয়িতা কে?
উঃ ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর।
প্রশ্ন : অপরাজিতা গ্রন্থটির লেখক কে?
উঃ বিভুতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়। 
প্রশ্ন : আত্মঘাতি বাঙ্গালী এর রচয়িতা কে?
উঃ নীরদ চন্দ্র চৌধুরী।
প্রশ্ন : অনল প্রবাহ ও রায় নন্দিনী কাব্যগ্রন্থের রচয়িতা কে?
উঃ ইসমাইল হোসেন সিরাজী।
প্রশ্ন : আবদুল্লাহ উপন্যাসটি কে রচনা করেন?
উঃ কাজী ইমদাদুল হক।
প্রশ্ন : আবার আসিব ফিরে কবিতাটির রচয়িতা কে?
উঃ জীবনানন্দ দাশ।
প্রশ্ন : আমার পূর্ব বাংলা কবিতাটির রচয়িতা কে?
উঃ সৈয়দ আলী আহসান।
প্রশ্ন : আনন্দ মঠ ও দেবী চৌধুরানী গ্রন্থ দুটির রচয়িতা কে?
উঃ বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়।
প্রশ্ন : আমি বিজয় দেখিছি গ্রন্থের রচয়িতা কে?
উঃ এম, আর, আখতার মুকুল।
প্রশ্ন : আলালের ঘরের দুলাল গ্রন্থের রচয়িতা কে?
উঃ প্যারীচাঁদ মিত্র।
প্রশ্ন : আমার দেখা রাজনীতির পঞ্চাশ বছর গ্রন্থের রচয়িতা কে?
উঃ আবুল মনসুর আহমেদ।
প্রশ্ন : আমি সৈনিক রচনাটি নজরুলের কোন গ্রন্থের অর্ন্তভুক্ত?
উঃ দুর্দিনের যাত্রী।
প্রশ্ন : আগুন নিয়ে খেলা গ্রন্থটির রচয়িতা?
উঃ অন্নদাশঙ্কর রায়।
প্রশ্ন : আমলার মামলা গ্রন্থটির রচয়িতা?
উঃ শওকত ওসমান।
প্রশ্ন : আলাওলের শ্রেষ্ঠ কীর্র্তি কি?
উঃ পদ্মাবতী।
প্রশ্ন : আব্দুল কাদেরের প্রকাশিত প্রথম কাব্যগ্রন্থ কোনটি?
উঃ দিলরুবা।
প্রশ্ন : আলো ও ছায়া কাব্যগ্রন্থের রচিয়তা কে?
উঃ কামিনী রায়।
প্রশ্ন : আবোল তাবোল কার রচনা?
উঃ সুকুমার রায়।
প্রশ্ন : আহসান হাবিবের প্রথম কাব্যগ্রন্থ কোনটি?
উঃ রাত্রি শেষ।
প্রশ্ন : আহসান হাবিবের বিখ্যাত উপন্যাস কোনটি?
উঃ অরণ্য নীলিমা।
প্রশ্ন : নোলক কবিতা আল মাহমুদের কোন গ্রন্থের অর্ন্তগত?
উঃ লোক লোকান্তর।
প্রশ্ন : আকাঙ্খিত অসুন্দর কাব্যগ্রন্থের রচয়িতা কে?
উঃ ফজল শাহাবুদ্দীন।
প্রশ্ন : আমি কিংবদন্তীর কথা বলাছি কাব্যগ্রন্থের রচিয়তা কে?
উঃ আবু জাফর উবায়দুল্লাহ।
প্রশ্ন : ইস্তাম্বুল যাত্রীর পত্র এর রচিয়তা কে?
উঃ ইব্রাহিম খাঁ।
প্রশ্ন : ঈশ্বর পাটনী চরিত্রের স্রষ্টা কে?
উঃ ভারতচন্দ্র রায়গুনকর(অন্নদামঙ্গল)।
প্রশ্ন : ইউসূফ-জুলেখা কাব্যের রচিয়তা কে?
উঃ শাহ মুহাম্মদ সগীর।
প্রশ্ন : ইসমাইল হোসেন সিরাজী যে কাব্যগ্রন্থের জন্য কারাবরণ করেন তার নাম কি?
উঃ অনল প্রবাহ।
প্রশ্ন : উমর ফারুক কবিতা কাজী নজরুল ইসলামের কোন কাব্যগ্রন্থের অর্ন্তভূক্ত?
উঃ জিঞ্জির।
প্রশ্ন : উদাসিন পথিকের মনের কথা উপন্যাসের রচয়িতা কে?
উঃ মীর মর্শারফ হোসেন।
প্রশ্ন : উত্তম-পুরুষ উপন্যাসের রচয়িতা কে?
উঃ রশীদ করিম।
প্রশ্ন : এ গ্রামার অব দি বেংলী ল্যাঙ্গুয়েজ এর রচিয়তা কে?
উঃ ন্যাথানিয়েল ব্রাসি হ্যালহেড।
প্রশ্ন : একেই কি বলে সভ্যতা প্রহসণটি কার রচনা?
উঃ মাইকেল মধুসুদন দত্ত।
প্রশ্ন : এসো বিজ্ঞানের রাজ্যে গ্রন্থটির রচিয়তা কে?
উঃ আব্দুল্লাহ আল মুতী সরফুদ্দিন।
প্রশ্ন : ওরা কদম আলী নাটকের রচিয়তা কে?
উঃ মামুনুর রশিদ।
প্রশ্ন : ওজারতির দুই বছর গ্রন্থটির রচিয়তার নাম কি?
উঃ আতাউর রহমান খান।
প্রশ্ন : প্রধানমন্ত্রীত্বের নয় মাস গ্রন্থটির রচিয়তার নাম কি?
উঃ আতাউর রহমান খান।
প্রশ্ন : স্বৈরাচারের দশ বছর গ্রন্থটির রচিয়তার নাম কি?
উঃ আতাউর রহমান খান।
প্রশ্ন : কড়ি দিয়ে কিনলাম উপন্যাসটি রচনা করেন কে?
উঃ বিমল মিত্র।
প্রশ্ন : কড়ি ও কোমল গ্রন্থের রচিয়তা কে?
উঃ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
প্রশ্ন : কমলাকান্তের দপ্তর গ্রন্থের রচিয়তা কে?
উঃ বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায়।
প্রশ্ন : কমলাকান্তের দপ্তর কোন ধরনের রচনা?
উঃ র্তীয়ক ব্যঙ্গাত্মক।
প্রশ্ন : কৃষ্ণকান্তের উইল উপন্যাসের রচিয়তা কে?
উঃ বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায়।
প্রশ্ন : ক্রীতদাসের হাসি উপন্যাসের রচিয়তা কে?
উঃ শওকত ওসমান।
প্রশ্ন : কুলীনকুল সর্বস্ব নাটকের রচিয়তা কে?
উঃ রামনারায়ন তর্করত্ন ।
প্রশ্ন : কাফেলা নাটকের রচিয়তার নাম কি?
উঃ ইব্রাহিম খাঁ।
প্রশ্ন : কামাল পাশা ও আনোয়ার পাশা গ্রন্থ দুটির রচয়িতার নাম কি?
উঃ ইব্রাহিম খাঁ।
প্রশ্ন : কবর নাটকটির রচিয়তা কে?
উঃমুনীর চৌধুরী।
প্রশ্ন : কবর নাটকের পটভুমি কি ?
উঃ ৫২-এর ভাষা আন্দোলন।
প্রশ্ন : কবর নাটকটি প্রথম কোথায় মঞ্চায়িত হয়?
উঃ ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে।
প্রশ্ন : কবর কাবিতাটির রচয়িতা কে?
উঃ জসীমউদ্দিন।
প্রশ্ন : কবর কাবিতাটি যে কাব্যগ্রন্থের অর্ন্তগত?
উঃ রাখালী।
প্রশ্ন : কৃষ্ণপক্ষ গ্রন্থটির রচিয়তা কে?
উঃ আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরী।
প্রশ্ন : কাদোঁ নদী কাঁদো উপন্যাসের রচিয়তা কে?
উঃ সৈয়দা ওয়ালী উল্লাহ।
প্রশ্ন : খেয়া রবীন্দ্রনাথের কোন ধরনের রচনা?
উঃ কাব্য রচনা।
প্রশ্ন : খেলা রাম খেলে যারে কার রচনা?
উঃ সৈয়দ শামসুল হক।
প্রশ্ন : গ্রানাডার শেষ বীর গ্রন্থটির রচয়িতা কে?
উঃ এস. ওয়াজেদ আলী।
প্রশ্ন : গোলাম মোস্তফার বিখ্যাত গ্রন্থ কোনটি?
উঃ বিশ্বনবী।
প্রশ্ন : চৈতন্যদেব জন্মগ্রহণ করেন কোথায়?
উঃ নবদ্বীপে।
প্রশ্ন : চোখের বালী উপন্যাসটি লিখেছেন কে?
উঃ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
প্রশ্ন : চাচা কাহিনী গ্রন্থের রচিয়তা কে?
উঃ সৈয়দ মুজতবা আলী।
প্রশ্ন : শ্রীমঙ্গল কাব্যের কবি কে?
উঃ কবিকঙ্কন মুকুন্দরাম চক্রবর্তী।
প্রশ্ন : জমিদার দর্পন নাটক রচনা করেছেন কে?
উঃ মীর মোশারফ হোসেন।
প্রশ্ন : জিব্রাইলের ডানার গল্পকার কে?
উঃ শাহেদ আলী।
প্রশ্ন : আরেক ফা-ুন, হাজার বছর ধরে, বরফ গলা নদী এগুলো কার রচিত উপন্যাস?
উঃ জহির রায়হান। 
প্রশ্ন : তোতা ইতিহাস গ্রন্থটি কোন ভাষা থেকে অনূদিত?
উঃ ফারসি।
প্রশ্ন : তেইশ নম্বর তৈলচিত্র উপন্যাসের রচিয়তা কে?
উঃ ডঃ আলাউদ্দিন আল-আজাদ।
প্রশ্ন : তিতাস একটি নদীর নাম উপন্যাসের রচয়িতা কে?
উঃ অদ্বৈত মল্লবর্মণ।
প্রশ্ন : তারাবাঈ নাটকটির রচিয়াত কে?
উঃ দ্বিজেন্দ্রলাল রায়।
প্রশ্ন : দেওয়ানা মদিনা পালার রচয়িতা কে ?
উঃ মনসুর বয়াতী।
প্রশ্ন : The Captive Lady-র রচয়িতা কে ?
উঃ মাইকেল মধুসূদন দত্ত।
প্রশ্ন : দুই বোন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কোন শ্রেনীর রচনা ?
উঃ উপন্যাস।
১। মধুসূদন দত্ত
নাটক:কৃষ্ণ কুমারী, বুড়ো শালিকের ঘাড়ে রো।
ছন্দ : কুমারী! বুড়োর ঘাড়ে কৃষ্ণর মধু।
বি:দ্র: কৃষ্ণ কুমারী (ঐতিহাসিক নাটক)।
২। মীর মোশারক হোসেন
নাটক: জমিদার দর্পণ ।
ছন্দ : মশার কি জমিদারী।
ব্যাখ্য : মোশারক থেকে মশা,
জমিদার দপর্ণ থেকে জমিদারী করা হয়েছে।
৩। সৈয়দ ওয়ালী উল্লাহ
নাটক: বহ্নি পীর।
ছন্দ :ওলীরাই পীর হয়।
৪। দীনবন্ধু মিত্র
নাটক: সধবার একাদশী।
ছন্দ : বন্ধু একাদশ দিনে এসো।
৫। বিজন ভট্টাচার্য
নাটক: নবান্ন।
ছন্দ: আশ্চর্য ব্যাপার! বিজনে নবান্ন হলো।
৬। তুলসী লাহিড়ী।
নাটক : ছেড়া তার, দু:খী ইসান।
ছন্দ : দু:খীদের ছেড়াতারে সুর লাহিড়ী।
৭। দ্বিজেন্দ্রলাল রায়
নাটক: পূণর্জন্ম, শাহাজাহান।
ছন্দ: পুনরায় জন্ম এ জাহানে তাই নাম দ্বি-জেন্দ্র।
৮। নূরুল মোমেন।
নাটক: নয়া খান্দন।
ছন্দ: নয়া খান্দানী রুল।
৯। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
নাটক: চির কুমার সভা, প্রায়শ্চিত্ত।
ছন্দ: রবি বার প্রায় সভা হয়।
বি:দ্র: প্রায়শ্চিত্ত (ঐতিহাসিক নাটক)।
১০। মুনীর চৌধুরী।
নাটক: রক্তাক্ত প্রান্তর, চিঠি।
ছন্দ: মুনীর চৌধুরীকে রক্তাক্ত চিঠি দিয়েছে।
বি:দ্র: রক্তাক্ত প্রান্তর ( ঐতিহাসিক নাটক)।
 

ফিফার প্রথম নারী মহাসচিব ফাতমা সামোরা

***প্রথম নারী হিসেবে ফিফা মহাসচিব পদে নিয়োগ পেলেন সেনেগালের ফাতমা সাম্বা দিওফ সামৌরা।
*** ২১ বছর ধরে জাতিসংঘের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত ফাতমা সাম্বা।
***১৯৯৫ সালে জাতিসংঘে যোগ দেয়ার পর এখন পর্যন্ত ছয়টি ভিন্ন ভিন্ন দেশে কাজ করেছেন তিনি।
***ফিফার বর্তমান সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।
***ফিফার সদস্য সংখ্যা হলো ২১১
***জিব্রাল্টার এবং কসোভো এ দুটি নতুন দেশকে নিয়ে এখন ফিফার সদস্য সংখ্যা হলো ২১১।
***ফিফার ২১১তম সদস্য হিসেবে গ্রহণ করা হয় জিব্রাল্টারকে।
***ফিফার ২১০তম সদস্য হয় কসোভো।

ম্যান বুকার পুরস্কার ২০১৬

**ম্যান বুকার পুরস্কার ২০১৬ পেলেন দক্ষিণ কোরিয়ার হান কাঙ
**দ্য ভেজেটেরিয়ান’ উপন্যাসের জন্য তিনি এ পুরস্কার পেয়েছেন
**মানুষের নির্মমতা প্রত্যাখ্যান করতে চাওয়া এক নারী যিনি মাংস খাওয়া ছেড়ে দিয়ে নিরামিষাশী হয়ে ওঠেন তাকে কেন্দ্র করে উপন্যাসটি লেখা হয়েছে।
**এটি ইংরেজি ভাষায় অনুবাদ করেছেন ডেবোরাহ স্মিথ
**২০১৫ সালে ম্যান বুকার পুরস্কার পেয়েছিলেন হাঙ্গেরির লেখক ল্যাসলু ক্রাসনাহোরকাই।

অনান্যঃ

**ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল আইসিসির নতুন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন ভারতের শশাঙ্ক মনোহর।
**মরক্কোর আল কারাওইন বিশ্ববিদ্যালয় (University of Al Quaraouiyine) বিশ্বের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয়
***৮৫৯ খ্রিস্টাব্দে ফাতিমা আল-ফিহরি এটি প্রতিষ্ঠা করেন।
***বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহর ইরানের জাবল

ইংরেজী বানান মনে রাখার কৌশলঃ

1. Lieutenant (লেফটেনেন্ট) ➫ সামরিক কর্মী। ✎ Lie u ten ant ➫ মিথ্যা তুমি দশ পিপড়া।
2. Psychological (সাইকোলজিক্যাল) ➫ মনস্তাত্ত্বিক। ✎ Psy cholo gi cal ➫ পিসি চলো যাই কাল।
3. Assassination (এ্যাসএ্যাসিনেশন) ➫ গুপ্তহত্যা। ✎ Ass ass i nation -গাধার উপরে গাধা, তার উপরে আমি, আমার উপরে জাতি।
4. Questionnaire ➫ প্রশ্নমালা। ✎ Question nai re ➫ কোশ্চেন নাই রে।
5. Assessment ➫ কর নির্ধারণ। ✎ Ass e ss men t ➫ গাধায় ই ডাবল ss মানুষেতে নাই।
6. Hallucination ➫ অমুলক / অলীক কিছু দেখা বা তাতে বিশ্বাস। ✎ Hall u ci nation-হলে তুমি! ছি জাতি।
7. Diarrhoea ➫ উদারাময়। ✎ Dia rr hoea ➫ ডায়াল করো ডাবল rr হোয়ে যাবে।
8. Bureaucracy ➫ আমলাতন্ত্র। ✎ Burea u cracy ➫ বুড়িয়া তুমি cracy.
9. Restaurant ➫ রেস্টুরেন্ট। ✎ Rest a u r ant ➫ বিশ্রাম এ তুমি আর পিপড়া।
10. Parallel ➫ সমান্তরাল। ✎ Par all e l ➫ পার করো সকলকে ই।
11. Illegitimate ➫ অবৈধ। ✎ Illeg i tim ate ➫ অসুস্থ পায় আমি টিম খেয়েছিলাম।
12. Miscellaneous ➫ বিবিধ। ✎ Mis cell an e o us-মিস করলে একটি সেলে ই ও আমাদের সাথে থাকবে। (cell-ক্ষুদ্র কক্ষ)।
1.ক্রিকেট খেলার জন্ম কোথায়?
Ans.ইংল্যান্ডে
2.ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার নাম কি?
Ans..ICC
3.ICC প্রতিষ্টিত হয় কখন?
Ans.১৯০৯
4.ICC এর বর্তমান সদস্য দেশ কয়টি
Ans.১০৬টি
5.১৯৯৭ সালে ICC চ্যাম্পিয়ন কোন দেশ?
Ans.বাংলাদেশ
6.টেস্ট ক্রিকেট শুরু হয় কবে
Ans.১৮৭৭
7.টেস্ট এবং ওয়ানডে মিলে সর্বোচ্ছ উইকেট শিকারী কে?
Ans.মুরালিধরন(শ্রীলংকা) 
8.টেস্ট ও ওয়ানডে ক্রিকেটে শততম শতক করেন কে?
Ans.শচীন টেন্ডুলকার(ভারত)
9.টেস্ট ক্রিকেটের ১৩৬ বছরের ইতিহাসে এক ম্যাচে হ্যাটট্রিক সেঞ্চুরি কে করেন
Ans.সোহাগ গাজী(বাংলাদেশ) 
10.ওয়ান ডে ম্যাচ শুরু হয় কবে
Ans.১৯৭১
11. বিশ্বকাপ ক্রিকেট শুরু হয় কখন?
Ans.১৯৭৫
12.বিশ্বকাপ ক্রিকেটের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কে?
Ans.অস্ট্রেলিয়া
13.২০১৯ সালে ক্রিকেট বিশ্বকাপ কোথায় হবে?
Ans.ইংল্যান্ডে
15.প্রথম T-20 বিশ্বকাপ কখন হয়?
Ans.২০০৭
16.২০১৬ সালে T-20 ক্রিকেট কোথায় হয়
Ans.ভারতে
17.বাংলাদেশ ওয়ানডে মর্যাদা লাভ করে কবে?
Ans.১৯৯৭
18.বাংলাদেশ টেস্ট মর্যাদা লাভ করে কবে?
Ans.২০০০
19.বাংলাদেশ প্রথম টেস্ট ম্যাচ খেলে কার সাথে?
Ans.ভারত
20.বাংলাদেশের ক্রিকেটের বর্তমান কোচ কে
Ans. চন্ডিকা হাতুড়ে সিংহে
21.বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট অধিনায়ক কে?
Ans.নাঈমুর রহমান দুর্জয়
22.বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ টেস্ট সেঞ্চুরীয়ান কে
Ans.আশরাফুল(বাংলাদেশ) 
23.ICC চ্যাম্পিয়ন ট্রফি কি হিসাবে পরিচিত
Ans.ক্রিকেটের ২য় বিশ্বকাপ
24.২০১৬ এশিয়া কাপ ক্রিকেট কোথায় হয়?
Ans.বাংলাদেশে
25.২০১৭ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফি কোথায় হয়?
Ans.ইংল্যান্ডে

26.২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফির চ্যাম্পিয়ন কোন দেশ? উ.পাকিস্তান(রানার্স -আাপ ভারত) মজায় মজায় ইংরেজি শেখা


1. why=কেন,cain=হত্যাকারি
2.fruit=ফল,fall=পড়ে যাওয়া
3.Egg=ডিম,Dim=ঝাপসা
4.Sister=বোন,Bone=হাঁড়
5.Green coconut=ডাব,Dove=ঘুঘু
6.Falcon=বাজ পাখি,Buzz=ভন ভন শব্দ
7.Fish=মাছ,Much=অনেক
8.Fist=কিল,Kill=হত্যা করা
9.Island=দ্বীপ,Dip=ডুব দিয়ে উঠা
10.What=কী,Key=চাবি
11.Trap=ফাঁদ,Fad=শখ
12.Four=চার,Char=পুঁড়িয়ে অঙ্গার করা

ডাক যোগাযোগ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান !! _______________________

√ বাংলাদেশের প্রথম ডাকটিকিট প্রকাশিত হয়- ২০ জুলাই , ১৯৭১
√ প্রথম ডাকটিকিটে ছবি ছিল- বাংলাদেশের মানচিত্রের
√ স্বাধীনতার পর স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম ডাকটিকিট প্রকাশিত হয়- ২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৭২
√ স্বাধীনতার পর প্রথম ডাকটিকিটের ডিজাইনার ছিলেন- বিমান মল্লিক
√ স্বাধীনতার পর প্রথম ডাকটিকিটে ছবি ছিল- বাংলাদেশের মানচিত্র
√ ১৯৭২ সালের ২৬ মার্চ প্রকাশিত ডাকটিকিটে ছিল- আগুনের ফুলকি
√ বাংলাদেশে পোস্ট কোড চালু হয়- ১৯৮৬ সালে
√ স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম ডাকঘর- চুয়াডাঙায়
√ ডাক বিভাগের মনোগ্রাম- একজন ধাবমান রানারের কাঁধে চিঠির ব্যাগ ঝোলানো, হাতে একটা বল্লম,মাথায় প্রজ্বলিত লণ্ঠন
√ ডাক বিভাগের শ্লোগান- সেবাই আদর্শ
√ ডাক বিভাগের সদর দপ্তর- ঢাকায়
√ ডাক যাদুঘর- ঢাকার জিপিওতে
√ একমাত্র পোস্টাল একাডেমি- রাজশাহীতে
√ GEP চালু হয়- ১৯৮৪
√ EPP চালু হয়- ২০০০
√ ডাক যোগাযোগ নেই- ইসরায়েলের সঙ্গে

‪ ‎বিষয়ঃ বিল‬,হাওর,বাওর

  • ‪‎আড়িয়াল‬ বিল অবস্থিত – মুন্সিগঞ্জে
  • ‪ ‎ চলন‬ বিলের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত নদি – আত্রাই
  • ‪ ‎বাংলাদেশের‬ ‘পশ্চিমা বাহিনীর নদী’ বলা হয় – বিল ডাকাতিয়াকে
  • ‪ ‎ টাঙ্গুয়ার‬ হাওর অবস্থিত – সুনামগঞ্জে
  • বাংলাদেশের সর্বোচ্চ স্বাদু পানির হৃদ – বগা লেক (বান্দরবান)
  • ‪ ‎ দেশের‬ দ্বিতীয় বৃহত্তম কৃত্রিম লেক – মহামায়া (চট্টগ্রাম)
  • বাংলাদেশের বৃহত্তম বিল – চলন বিল
  • বাংলাদেশের মিঠাপানিত মাছের প্রধান উৎস – চলন বিল
  • ‪ ‎ বিল‬ ডাকাতিয়া অবস্থিত – খুলনা জেলার ডুমুরিয়ায়
  • ‪ ‎ তামাবিল‬ অবস্থিত – সিলেটে
  • ‪ ‎ চট্টগ্রামের‬ পাহাড়তলীতে অবস্থিত – ফয়’স লেক
  • বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ হাওর – হাকালুকি হাওর
  • ‪ ‎ বিশ্বের‬ বৃহত্তম সমুদ্র সৈকত – কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত
  • ‪ ‎ যে‬ সমুদ্র সৈকতে সূর্যোদয় ও সুর্যাস্ত দেখা যায় – কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত
  • বাংলাদেশের সমুদ্র সৈকত দুটি – চট্টগ্রাম ও মংলা
  • ‪ ‎ পাথর‬ সমৃদ্ধ ‘ইনানি বিচ’ অবস্থিত – কক্সবাজারে
  • ‪ ‎ কুয়াকাটা‬ সমুদ্র সৈকতকে বলা হয় – সাগর কন্যা
  • ‪ ‎ চট্টগ্রাম‬ সমুদ্র বন্দর অবস্থিত – কর্ণফুলী নদীর তীরে
  • ‪ ‎ কাপ্তাই‬ হৃদ অবস্থিত – রাঙামাটিতে
  • ‪ ‎ মংলা‬ সমুদ্র বন্দর অবস্থিত – পশুর নদীর তীরে
  • কাপ্তাই থেকে প্লাবিত পার্বত্য চট্টগ্রামের উপত্যকা এলাকে বলে – ভেঙ্গী ভ্যালী
  • ‪ ‎ হালদা‬ ভ্যালি অবস্থিত – খাগরাছড়িতে
  • ‘বলিশিরা ভ্যালি’ অবস্থিত – মৌলভিবাজার জেলায়
  • ‘নাপিত খালি ভ্যালি’ অবস্থিত – কক্সবাজার
  • দেশের সবচেয়ে বড় দীঘি – রামসাগর (দিনাজপুর)
  • ‘দূর্গা সাগর’ অবস্থিত – মাধবপাশা, বরিশাল
  • ‪ ‎ মূ্হুরির‬ চর অবস্থিত – পরশুরাম, ফেনী
  • ‪ ‎ দুবলার‬ চর অবস্থিত – সুন্দরবনের দক্ষিণে
  • ‪ ‎ পাটনি‬ চর অবস্থিত – সুন্দরবন
  • ‪ ‎ চর‬ মানিক ও চর জব্বার – ভোলা
  • চর কুকরি মুকরি অবস্থিত – ভোলা
  • চর নিউটন অবস্থিত – ভোলা
  • চর আলেকজেন্ডার অবস্থিত—রামগতি, লক্ষীপুর
  • উড়ির চর অবস্থিত – সন্দ্বীপ, চট্টগ্রাম
  • সোনাদিয়া দ্বীপ বিখ্যাত – সামুদ্রিক মাছ শিকারের জন্য
  • বাংলাদেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ – সেন্টমার্টিন
  • শীতল ঝর্নার পাহাড় আছে – হিমছড়িতে
  • মৌলভিবাজার জেলার বড়লেখায় অবস্থিত – মাধবকুন্ডু জলপ্রপাত
  • গরম পানির ঝরনা অবস্থিত – সীতাকুন্ড পাহাড়ে
  • বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ দ্বীপের নাম – ভোলা
  • দেশের বৃহত্তম ব-দ্বীপ – সুন্দরবন
  • মনপুরা দ্বীপ অবস্থিত – ভোলা জেলায়
  • কালা পাহাড় বা পাহাড়ের রাণী বলা হয় – চিম্বুক পাহাড়কে
  • বাংলাদেশের একমাত্র পাহাড়ী দ্বীপ – মহেশখালী
  • দক্ষিণ তালপট্টি দ্বীপ অবস্থিত – হাঁড়িয়াভাঙ্গা নদীর মোহনায়, সাতক্ষীরা
  • চিম্বুক পাহাড় অবস্থিত – বান্দরবান
  • নিঝুম দ্বীপ অবস্থিত – মেঘনার মোহনায়, নোয়াখালী
  • চন্দ্রনাথ পাহাড় অবস্থিত – সীতাকুন্ডে


<<< জেনে নিন কিছু ফোবিয়া বা ভীতির নাম >>>

¤¤ সোস্যালফোবিয়া- সামাজিক হেনস্তাভীতি
¤¤ অফিডিওফোবিয়া- সাপভীতি
¤¤ সাইনোফোবিয়া- কুকুরভীতি
¤¤ এরোফোবিয়া- উড্ডয়নভীতি
¤¤ ক্লাসট্রোফোবিয়া- আবদ্ধ বা সংকীর্ন স্হানে আটকে মরার ভয়
¤¤ হাইড্রোফোবিয়া- জলভীতি
¤¤ আর্সনফোবিয়া- আগুনভীতি
¤¤ এন্ড্রোফোবিয়া- মেয়েদের পুরুষভীতি
¤¤ গ্লসোফোবিয়া- জনগনের সামনে দাড়িয়ে বক্তব্য প্রদানের ভীতি
¤¤ অটোফোবিয়া- একাকীত্বের ভীতি
¤¤ এস্ট্রোফোবিয়া- বজ্রপাতভীতি
¤¤ এক্সামফোবিয়া- পরীক্ষাভীতি
¤¤ এগোরাফোবিয়া- জনগনের মুখোমুখি হবার ভীতি
¤¤ এনাক্লোফোবিয়া- ভীড়ভীতি
¤¤ সুরিফোবিয়া- ইঁদুরভীতি
Q: ইংরেজি সাহিত্যের জনক→Jeoffery Chaucer
Q: 'Renaissance' কথাটির অর্থ →the revival of life
Q: Shakespeare এর জন্ম মৃত্যু→ 1564-1616
Q: Shylock যে নাটকের চরিত্র, সে নাটকটির নাম→The merchant of venice(রচয়িতা  William Shakespeare) 
Q: 'Macbeth'(শেক্সপিয়রের লিখা) is a→play
Q: Shakespeare's king lear is a→tragedy
Q: Shakespeare's 'julius caesar' is a→tragedy
Q: ইংরেজি গদ্যের(Prose) জনক →Francis Bacon
Q: 'Silent Woman' এর লেখক→Ben Jonson
Q: 'The Daffodils' কি জাতীয় রচনা→কবিতা
Q: English epic(মহাকাব্য) poet→John Milton
Q: Paradise Lost, Paradise Regained, Lycidas এর রচয়িতা→John Milton
Q: প্রথম ইংরেজি অভিধানের রচয়িতা→Samuel Johnson
Q: Gulliver's Travels পুস্তকটির রচয়িতা→Jonathan Swift
Q: ইংরেজি উপন্যাসের জনক→Henry Fielding
Q: 'Robinson Crusoe' উপন্যাসটির লেখক→Daniel Defoe
Q: ইংরেজি সাহিত্যে 'Poet of nature' নামে পরিচিত→William Wordsworth
Q: 'poet of beauty' নামে পরিচিত→John Keats
Q: 'Heaven and Earth এর লেখক→ Lord Byron
Q: একাধারে কবি ও চিত্রশিল্পী→Blake
১/ পৃথিবীর প্রাচীনতম সভ্যতা কোনটি? → মেসোপটেমীয় সভ্যতা
২/ বুড়িমারী স্থল বন্দর কোন উপজেলায় অবস্থিত? → পাটগ্রাম
৩/ ২১ শে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করে? → ইউনেস্কো( ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর) 
৪/ গম্ভীরা বাংলাদেশের কোন অঞ্চলের গান? → চাঁপাইনবাবগঞ্জ
৫/ বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস? → ১০ জানুয়ারি ১৯৭২
৬/ FAO এর সদর দপ্তর? → রোম
৭/ ডায়েট কোন দেশের পার্লামেন্ট? → জাপান
৮/ মালয়েশিয়ার মুদ্রার নাম? → রিংগিত
৯/ স্বাধীন বাংলাদেশর প্রথম সরকার গঠিত হয় কবে? → ১০ এপ্রিল ১৯৭১
১০/ মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো: আব্দুল হামিদ কততম রাষ্ট্রপতি? → ২০তম
১১/ বাংলা একাডেমি প্রতিষ্ঠিত হয়? → ১৯৫৫ সালে
১২/ 'সাবাস বাংলাদেশ' ভাস্কর্যটি কোথায় অবস্থিত? → রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে
১৩/ নেলসন ম্যান্ডেলা কত সালে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন? → ১৯৯৩ সালে
১৪/ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের স্থপতি কে? → হামিদুর রহমান
১৫/ বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত হয় কবে? → ৫ জুন
১৬/ ১১তম বিশ্বকাপ ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন দল কোনটি? → অস্ট্রেলিয়া
১৭/ বাংলাদেশের বার্ষিক গড় বৃষ্টিপাত কত? → ২০৩ সেঃমিঃ
১৮/ কোন মৌলিক ধাতু সাধারণ তাপমাত্রয় তরল থাকে? → পারদ
১৯/ কোন ভিটামিনের অভাবে স্কার্ভি রোগ হয়? → ভিটামিন সি
২০/ এপিকালচার বলতে কি বোঝায়? → মৌমাছি চাষ
২১/ বাংলাদেশ সংবিধানের মূলনীতি কয়টি? → ৪টি
২২/ কোনো দেশোর ভারসাম্য রক্ষার জন্য সেই দেশের কতভাগ বনভূমি প্রয়োজন? → ২৫ ভাগ
২৩/ সাধারণ বৈদ্যুতিক বাল্বের ভিতর কি গ্যাস থাকে? → নাইট্রোজেন
২৪/ ভূমিকম্প মাপার যন্ত্রের নাম কি? → সিসমোগ্রাফ
২৫/ আমিষ বেশি আছে কোনটিতে? → মসুর ডাল

তথ্যপ্রযুক্তির বড় প্রতিষ্ঠান ও তাদের সেবা ১৯:৩০, ১৮ মে ২০১৬ (ইউটিসি)১৯:৩০, ১৮ মে ২০১৬ (ইউটিসি)১৯:৩০, ১৮ মে ২০১৬ (ইউটিসি)১৯:৩০, ১৮ মে ২০১৬ (ইউটিসি)Sadi2202 (আলাপ) ১৯:৩০, ১৮ মে ২০১৬ (ইউটিসি)

০ গুগল হচ্ছে ~ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি বহুজাতিক ইন্টারনেট এবং সফটওয়্যার কোম্পানি এবং বিশেষভাবে তাদের গুগল সার্চ ইঞ্জিনের জন্য বিখ্যাত।
০ গুগল প্রতিষ্ঠিত হয় ~ ৪ সেপ্টেম্বর ১৯৯৮ (মেনলো পার্ক, ক্যালিফোর্নিয়া)
০ গুগলের প্রতিষ্ঠাতা হলো ~ ল্যারি পেইজ ও সের্গেই ব্রিন।
০ গুগলের সদর দপ্তর বা প্রধান কার্যালয় ~ যুক্তরাষ্টের ক্যালিফোর্নিয়ায়।
০ গুগলের বর্তমান পরিচালক ~ এরিক স্মিট।
০ গুগলের মূলমন্ত্র ~ বিশ্বের তথ্য সন্নিবেশিত করে তাকে সবার জন্য সহজলোভ্য করে দেয়া।
০ গুগলের অপ্রতিষ্ঠানিক মূলমন্ত্র হলো ~ Don't + be evil
০ মুক্ত অপারেটিং সফটওয়্যার অ্যান্ড্রয়েড এর উদ্ভাবক ~ অ্যান্ডি রুবিন ও রিচ মিনার। (২০০৩ সালে)
০ গুগল মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড কিনে নেয় ~ ১৭ অাগস্ট ২০০৭ সালে।
০ গুগল প্লাস ~ সামাজিক নেটওয়ার্কিং সেবা (২৮ জুন ২০১১)
০ Google Buzz ~ সামাজিক যোগাযোগ সেবা (৯ ফেব্রুয়ারী ২০১০)
০ Google Chrome ~ ওয়েব বাউজার
০ Google docx ~ অফিস সুইট।
০ Gmail ~ ইমেইল সেবা (১১ মার্চ ২০০৪)
০ গুগল টক ~ ইনস্ট্যান্ট ম্যাসেজিং এপ্লিকেশন।
০ Picaso ~ ছবি সংগঠিত এবং সম্পাদন করার সফটওয়্যার।
০ Google News ~ সংবাদ সেবা (২০০২)
০ Google e-book ~ ইন্টারনেট বইয়ের সেবা (২০১০)
০ মাইক্রোসফট কর্পোরেশন হলো ~ যুক্তরাষ্ট্রভিকত্তক একটি কম্পিউটার প্রযুক্তি কর্পোরেশন।
০ মাইক্রেসফট প্রতিষ্ঠিত হয় ~ ৪ এপ্রিল ১৯৭৫ ।
০ মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা ~ বিল গেটস ও পল অ্যালেন।
০ মাইক্রোসফট কর্পোরশনের প্রধান কার্যালয় ~ রেডমন্ড, ওয়াশিংটন।
০ মাইক্রোসফটের জনপ্রিয় সফটওয়্যার ~ মাইক্রোসফট অপারেটিং সিস্টেম ও মাইক্রোসফট অফিস।
০ ডেভেলপারদের জনপ্রিয় সফটওয়ার হলো ~ মাইক্রেসফট ভিজুয়াল স্টুডিও এবং মাইক্রেসফট এসকিউএল সার্ভার।
০ মাইক্রোসফটের পরিসেবা হলো ~ Microsoft MSNBC Cable Television Network, MSN Internet Portal, Bing
০ মাইক্রোসফট কম্পিউটার হার্ডওয়্যার হলো ~ মাইক্রোসফট মাউস।
০ মাইক্রোসফটের কম্পিউটার হলো ~ এক্সবক্স এমবক্স ৩৬০
০ মাইক্রোসফটের মিডিয়া রুম ~ সেট টপ বক্স।
০ বর্তমানে মাইক্রোসফটের প্রধান ব্যক্তি ~ জন ডাব্লিউ থমসন (চেয়ারম্যান)
০ অাইবিএম এর পূর্ণরূপ ~ International Business Machines Corporation
০ অাইবিএম এর প্রতিষ্ঠাতা ~ থমাস জন ওয়াটসন।
০ অাইবিএম এর সদর দপ্তর ~ অারর্মনক, নিউইয়র্ক।
০ অাইবিএম ব্যাবসা শুরু করে ১৯৫৪ সালে ~ IBM-701 কম্পিউটার এর মাধ্যমে।
০ যুক্তরাষ্টের বৃহত্তম নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ~ অাইবিএম।
০ আইবিএম প্রতিষ্ঠিত হয় ~ ১৬ জুন ১৯১১।
০ অাইবিএম ক্ম্পোনির প্রতিষ্ঠাকালীন নাম ছিল ~ Computing Tabulating Recording Company
০ CTR গঠিত হয় ~ তিনটি কোম্পানি নিয়ে।
০ CTR এর নাম পরিবর্তন করে IBM রাখা হয় ~ ১৯২৪ সালে।
০ IBMNM হলো ~ IBM Network Management
০ অ্যাপল হলো ~ একটি মার্কিন কম্পিউটার নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান।
০ অ্যাপল প্রতিষ্ঠানটির প্রাথমিক নাম ছিল ~ অ্যাপল কম্পিউটার ইনকর্পোরেশন।
০ অ্যাপোল হলো ~ একটি পার্সোনাল কম্পিউটার।
০ অ্যাপলের প্রতিষ্ঠাতা ~ স্টিভ জব, ওজনিয়াক ও রোনান্ড ওয়েন মিলে।
০ অ্যাপল কম্পিউটার বাজারে অাসে ~ ১ জলাই ১৯৭৬।
০ অ্যাপলের প্রথম কম্পিউটার হলো ~ অ্যাপল-১।
০ ইন্টেল হলো ~ মার্কিন যুক্তরাষ্টের প্রযুক্তি কোম্পানি।
০ ইন্টেল প্রতিষ্ঠিত হয় ~ ১৮ জুলাই ১৯৬৮ সালে।
০ ইন্টেলের প্রতিষ্ঠাতা ~ গর্ডন ই মুর ও রবাট নয়েচ।
০ ইন্টেল প্রথম বাণিজ্যিক প্রসেসর তৈরি করে ~ ১৯৭১ সালে।

বাংলাদেশের বিভিন্ন গবেষণা/প্রজনন কেন্দ্র: .

☞ পাট গবেষণা বোর্ড- মানিকগঞ্জ
☞ নদী গবেষণা কেন্দ্র-ফরিদপুর
☞ ইলিশ মাছ গবেষণা কেন্দ্র খুলনা
☞ রাবার গবেষণা বোর্ড- কক্সবাজার
☞ তাঁত গবেষণা বোর্ড- নরসিংদী
☞ চা গবেষণা কেন্দ্র- শ্রীমঙ্গল, সিলেট
☞ ইক্ষু গবেষণা কেন্দ্র- ঈশ্বরদী, পাবনা
☞ ডাল গবেষণা কেন্দ্র- ঈশ্বরদী, পাবনা
☞ গম গবেষণা কেন্দ্র- দিনাজপুর
☞ আম গবেষণা কেন্দ্র- চাঁপাইনবাবগঞ্জ
☞ মসলা গবেষণা কেন্দ্র- বগুড়া
☞ রেশম গবেষণা কেন্দ্র- রাজশাহী
☞ বন গবেষণা কেন্দ্র- চট্টগ্রাম
☞ পাহাড়ি কৃষি গবেষণা কেন্দ্র- খাগড়াছড়ি
☞ ইলিশ মাছ ও নদীর মাছ গবেষণা কেন্দ্র- চাঁদপুর

মনে রাখার উপায়ঃ –

রবিঠাকুরের১২ টি উপন্যাস -মুখস্ত নয় গল্পটি মনে রাখুন→ -
 ‪#‎করুণা‬  করে আমাকে
 ‪#‎বউঠাকুরানীর‬ হাটে  পৌঁছে দিও, সেখানে হয়ত
 ‪#‎রাজর্ষি‬  কে খুঁজে পাব, আগামী মাসে তার সাথে আমার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল, কিন্ত
 ‪#‎নৌকাডুবি‬ র ফলে তার সাথে আমার সমস্ত
 ‪#‎যোগাযোগ‬  বন্ধ হয়ে যায়,আমি এখন তার
 ‪#‎চোখেরবালি‬ , আমার
 ‪#‎দুইবোন‬  আর ভাই
 ‪#‎গোরা‬ কে অনেক খুঁজেছি - পাইনি,অবশেষে জীবনের
 ‪#‎চারঅধ্যায়‬  পেরিয়ে
 ‪#‎চতুরঙ্গে‬ র কষাঘাতে
 ‪#‎মালঞ্চে‬ বসে লিখছি
 ‪#‎শেষেরকবিতা‬ "

চাকরি, বিসিএসসহ যেকোন ভর্তি প্রস্তুতির জন্য মানবদেহ নিয়ে ৬৯ টি প্রশ্ন

১/আদি প্রাণী –এ্যামিবা ।
২/ মানুষের হাড়ের সংখ্যা – ২০৬ টি ।
৩/ মানুষের ক্রোমোজোম সংখ্যা – ২৩ জোড়া বা ৪৬ টি
৪/ মানবদেহে মোট কশেরুকা – ৩৩ টি ।
৫/ মানবদেহে হৃদপিন্ডের প্রকোষ্ঠ সংখ্যা – ৪ টি ।
৬/ ভিটামিন এ এর অভাবে – রাতকানা রোগ হয় ।
৭/ রক্ত সংবহন তন্ত্র আবিস্কার করেন – উইলিয়াম হার্ভে ।
৮/ রক্তের গ্রুপ আবিস্কার করেন – কার্ল্যান্ড স্টীনার ।
৯/ রক্তের সার্বজনীন গ্রহীতা – ‘AB’ গ্রুপ ।
১০/ রক্তের সার্বজনীন দাতা – ‘O’ গ্রুপ ।
১১/ রক্তে হিমোগ্লোবিন কমে গেলে – রক্ত শুন্যতা সৃষ্টি হয়
১২/ ডায়াবেটিস রোগ হয় – ইনসুলিনের অভাবে ।
১৩/ হৃদপিন্ডের বন্ধ শিরা বেলুনের সাহায্যে ফুলানোকে বলে – এনজিওপ্লাস্ট ।
১৪/মানবদেহে রক্তের অক্সিজেন পরিবহন ক্ষমতা খর্ব করে – কার্বন-ডাই-অক্সাইড ।
১৫/ ডায়াবেটিস রোগির রক্তে বৃদ্ধি পায় – গ্লুকোজ ।
১৬/ ক্লোনিং পদ্ধতিতে প্রথম জন্মগ্রহণকারী প্রাণীর নাম – ডলি ।
১৭/ পাকস্থলীতে দুগ্ধ জমাট বাধায় – রেনিন ।
১৮/ ঝিনুকের প্রদাহের ফল – মুক্তা ।
১৯/ মস্তিষ্কের রক্তক্ষরণ ও রক্ত বাঁধাকে বলে – স্ট্রোক ।
২০/ নাড়ীর স্পন্দন প্রবাহিত হয় – ধমণীর মধ্য দিয়ে ।
২১/ সর্বাধিক স্নেহজাতীয় খাদ্য পাওয়া যায় – দুধে।
২২/ ব্যাকটেরিয়া কর্তৃক সৃষ্ট রোগ – কলেরা, টায়ফয়েড, যক্ষা 

২৩/ এইডস একটি – ভাইরাস ঘটিত রোগ ।

২৪/ বাংলাদেশের একজন পূর্ন বয়স্ক ব্যক্তির প্রতিদিনের শক্তি প্রয়োজন – ২৮০০ ক্যালোরি ।
২৫/ শব্দ দুষনের ফলে সৃষ্টি হয় – উচ্চ রক্তচাপ ।
২৬/ ব্যাকটেরিয়া কোষ বিভাজন ঘটায় – অামাইটোসিস প্রক্রিয়ায় ।
২৭/ মানুষের মস্তিস্কের ওজন – ১.৩৬ কেজি ।
২৮/ মানবদেহে প্রতিদিন পানির প্রয়োজন – ৪-৫ লিটার ।
২৯/ হৃদপিন্ডের সংকোচন ও প্রসারণকে যথাক্রমে বলে – সিস্টোল ও ডায়াস্টোল ।
৩০/ প্রজননে সাহায্য করে – ভিটামিন ‘ই’ ।
৩১/ DNA এর মূল মজ্জাকে সুবিন্যাস্ত করাকে বলে – জিন থেরাপি ।
৩২/ DNA এর অর্থ ডি অক্সিরাইবো নিউক্লিক এসিড ।
৩৩/ জিনতত্ত্বের জনক – মেন্ডেল ।
৩৪/ হিমোফিলিয়া একটি – বংশগত রোগ ।
৩৫/ হারের মধ্যে পানি থাকে – ৪০-৪৫ % ।
৩৬/ অন্ত্র দুই প্রকার – ১) ক্ষুদ্রান্ত ও ২) বৃহদান্ত ।
৩৭/ জীবিত কোষের মধ্যে তৈরী হয় – এনজাইম ।
৩৮/ এনজাইম কাজ করে মূলত – অনুঘটক হিসাবে ।
৩৯/ রক্ত এক প্রকার – যোজক কলা ।
৪০/ রক্ত দুই প্রকার উপাদান দিয়ে গঠিত – ১) রক্ত রস ও ২) রক্ত কনিকা ।
৪১/ পূর্ণ বয়স্ক মানুষের হৃদস্পন্দন প্রতি মিনিটে – ৭২ বার ।
৪২/ রেচন অঙ্গগুলি হলো – ত্বক, ফুসফুস, যকৃত ও বৃক্ক ।
৪৩/ প্রধান রেচন অঙ্গ – বৃক্ক (প্রায় ৭৫% নিষ্কাষন করে)।
৪৪/ বৃক্ক দেখতে অনেকটা – সীমের বীজের মতো ।
৪৫/ পিটুইটারি গ্রন্থকে বলে – রাজ গ্রন্থি ।
৪৬/ পুংজনন গ্রন্থিতে পাওয়া যায় – টেস্টোসটেরন ।
৪৭/ স্ত্রীজনন গ্রন্থিতে পাওয়া যায় – ইস্ট্রোজেন ।
৪৮/ ত্বক তিনটি স্তর দিয়ে গঠিত – ১)বহি:ত্বক, ২) ডার্মিস ও ৩) হাইপোডার্মিস ।
৪৯/ কঙ্কালতন্ত্রের রোগ – রিকেটস, গেঁটে বাত ।
৫০/ পরিপাক তন্ত্রের রোগ – আমাশয়, গ্যাস্টাইটিস ।
৫১/ রক্ত সংবহন তন্ত্রের রোগ – রক্তচাপ, হার্ট এ্যাটাক, স্ট্রোক, বাতজ্বর, রক্ত শুন্যতা ।
৫২/ শ্বসন তন্ত্রের রোগ – নিউমোনিয়া, যক্ষা, ব্রঙ্কাইটিস ।
৫৩/ দীর্ঘজীবী প্রাণী – নীল তিমি (প্রায় ৫০০ বছর) ।
৫৪/ সবচেয়ে বড় স্থলচর প্রাণী – আফ্রিকার হাতি ।
৫৫/ সবচেয়ে বড় জলচর প্রাণী – নীল তিমি ।
৫৬/ সবচেয়ে বড় সরীসৃপ – কুমির ।
৫৭/ সবচেয়ে দ্রুততম পশু – চিতাবাঘ (ঘন্টায় ৪৫ মাইল)
৫৮/ সবচেয়ে দ্রুততম পাখি – সুইফ্ট (ঘন্টায় ২০০ মাইল) । ৫৯/ আরশোলার হৃদপিন্ডের প্রকোষ্ট – ১৩ টি ।
৬০/ মানুষের হৃদপিন্ডের প্রকোষ্ট – ৪ টি ।
৬১/ হাঙ্গরের হৃদপিন্ডের প্রকোষ্ট – ৩ টি ।
৬২/ তেলাপোকার রক্তের রং – বর্ণহীন ।
৬৩/ মাছ পানিতে ভাসা নিয়ন্ত্রণ করে – দেহের ভেতরের বায়ু থলির বাতাস কমিয়ে বাড়িয়ে ।
৬৪/ সবচেয়ে লম্বা ও ভারী সাপ – আনাকোন্ডা ।
৬৫/ স্বাদু পানির সবচেয়ে ক্ষুদ্র মাছ – ডুয়ার্ফ পিগমী গোবী
৬৬/ সাপ শুনতে পায় – জিহ্বার সাহায্যে ।
৬৭/ রাজ কাকড়ার অপর নাম – লিমুলাস ।
৬৮/ সমুদ্রে তেল অপসারণের জন্য ব্যবহৃত হয় – সুপার বাগ বা মাইক্রোবিয়াল ইনক্যকট্যান্ট ।
৬৯/ কুকুর পাগল হয়ে থাকে – জলাতংক রোগ হলে ।

এক নজরে দেখেনিন বাংলাদেশে আঘাত আনা সব ঘুর্ণিঝড়ঃ

♦ রোয়ানুঃ “রোয়ানু ” শব্দটি মালদ্বীপ থেকে এসেছে; যার অর্থ নারকেলের ছোবড়া থেকে সৃষ্ট পাকানো দড়ি। ঘুর্ণিঝড় রোয়ানু সর্বপ্রথম ১৯ মে ২০১৬ শ্রীলংকাতে আঘাত হানে এবং বাংলাদেশে আঘাত হানে ২১ মে ২০১৬। এর গতিবেগ ছিল ১০০ কিঃমিঃ। তবে উপকুলে গতিবেগ ছিল ৬০ – ৮০ কিঃমিঃ।
♦ আইলাঃ মালদ্বীপের আবহাওয়াবিদরা ঘুর্ণিঝড় “আইলা “র নামকরণ করেন। এর অর্থ ডলফিন বা শুশুক জাতীয় প্রাণি। নামটি এই ঘুর্নিঝরের জন্য নির্ধারন করেন জাতিসংঘের এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের আবহাওয়াবিদদের সংস্থা ইউএন এস্কেপ। এটি বাংলাদেশে আঘাত হানে ২৫ মে ২০০৯।
♦নার্গিসঃ এটি ফারসি ভাষার শব্দ। ঘুর্ণিঝড় “নার্গিস ” অর্থ ফুল। উত্তর ভারত মহাসাগরে সৃষ্টি হওয়া এই ঘুর্নিঝড়টি ২০০৮ সালের ৩মে বার্মার উপকুলে আঘাত হানে।
♦ সিডরঃ “সিডর ” একটি সিংহলী ভাষার শব্দ। এর অর্থ চোখ। এ ঘুর্ণিঝড়ের আরেক নাম ট্রপিক্যাল সাইক্লোন। বাংলাদেশ সরকার এটিকে জাতীয় দূর্যোগ বলে ঘোষণা করেছেন। এটি আঘাত হানে ১৫ নভেম্বর ২০০৭।
♦রেশমিঃ এর অর্থ কোমল, মোলায়েম। এটি আঘাত হানে ২৬ অক্টোবর ২০০৮।
♦ ওয়ার্ডঃ এর অর্থ ফুল। এটি আঘাত হানে ২০০৯ সালে।
♦ বিজলীঃ এটি আঘাত হানে ১৯ এপ্রিল ২০০৯।
♦ মহাসেনঃ এটি আঘাত হানে ১৬ মে ২০১৩।

★রোয়ানু:এর অর্থ “নারিকেলের চোপড়া দিয়ে তৈরি দড়ি।এটি ২০১৫ সালে আঘাত হানে। ★কোমেন:অর্থ বিস্ফারণ ঘটায় এমন দ্রব্য।এটিও ২০১৫ সালে আঘাত হানে। ★মোরা:এটি ২০১৭ সালে আঘাত হানে সমুদ্র উপকূলীয় এলাকায়।

>>>জেনে রাখুন<<<[সম্পাদনা]

* মৌলিক স্বরধ্বনি কতটি?-- ৭ টি
* যৌগিক স্বরধ্বনি কতটি?-- ২ টি
* মৌলিক স্বরধ্বনিগুলো কি কি?-- অ, আ, ই, উ, এ, অ্যা, ও
* যৌগিক স্বরধ্বনিগুলো কি কি?-- ঔ, ঐ
* কণ্ঠ বর্ণ কোনগুলি?-- ক, খ, গ, ঘ, ঙ
* তালব্য বর্ণ কোনগুলি?-- চ, ছ, জ, ঝ, ঞ
* মূর্ধণ বর্ণ কোনগুলি?-- ট, ঠ, ড, ঢ, ণ
* দন্ত বর্ণ কোনগুলি?-- ত, থ, দ, ধ, ন
* ওষ্ঠ বর্ণ কোনগুলি?-- প, ফ, ব, ভ, ম
* ঙ, ঞ, ণ, ন, ম -- নাসিক্য বর্ণ
* নাসিক্য বর্ণের অপর নাম কি?- অনুনাসিক বা সানুনাসিক বর্ণ
* অন্তঃস্থ বর্ণ কোনগুলি?-- য, র, ল
* শ, ষ, স -- শিশধ্বনি
* ড়, ঢ় -- তাড়নজাত ধ্বনি
* খন্ডব্যঞ্জন কোনটি?-- ৎ
* অঘোষ হ ধ্বনির বর্ণরুপ কোনটি?-- ঃ
* পরাশ্রিত বর্ণ কোনগুলি?-- ৎ, ং, ঃ
* পূর্ণমাত্রার বর্ণ-- ৩২টি
* অর্ধমাত্রার বর্ণ-- ৮টি
* মাত্রাহীন বর্ণ-- ১০টি
* কোনটি নিলীন বর্ণ?--অ

জ্যামিতিক সুত্র:- সবার জন্য সব সময়ই কাজে দিবে…


ত্রিভুজের ক্ষেত্রফল
✬ ত্রিভূজের ক্ষেত্রফল =১/২(ভূমি×উচ্চতা)
✬ সমকোণী ত্রিভূজের ক্ষেত্রফল = ১/২(সমকোণ সংলগ্ন বাহুদ্বয়ের গুণফল)
✬ সমদ্বিবাহু ত্রিভূজের ক্ষেত্রফল = a/4√(4b²-a²) যেখানে, a= ভূমি; b= অপর বাহু
✬ সমবাহু ত্রিভূজের ক্ষেত্রফল = √(3/4)a²; এখানে, a = যে কোন বাহুর দৈর্ঘ্য
চতুর্ভূজের ক্ষেত্রফল
✬ আয়তক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল = দৈর্ঘ্য x প্রস্থ
✬ বর্গক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল = (বাহু)²
✬ সামন্তরিক ক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল = ভূমি x উচ্চতা
✬ আয়তক্ষেত্রের পরিসীমা = ২ (দৈর্ঘ্য + প্রস্থ)
✬ বর্গক্ষেত্রের পরিসীমা = 4 x এক বাহুর পরিমাণ
বৃত্তের ক্ষেত্রফল:
✬ বৃত্তের ক্ষেত্রফল = πr² [এখানে, r বৃত্তের ব্যাসার্ধ; π = ৩.১৪৩]
✬ বৃত্তের পরিধি = ২πr
✬ গোলকের পৃষ্ঠের ক্ষেত্রফল = 4πr²
✬ গোলকের আয়তন = 4/3πr³
ক্ষেত্র পরিমাপের জন্য সর্বমোট ৫টি সুত্র মনে রাখুন
সুত্রঃ1- দৈর্ঘ্যর বৃদ্ধির হার প্রস্থের হ্রাসের চেয়ে বেশী হলে-
ক্ষেত্রফল বৃদ্ধির হার- =[{(100+বৃদ্ধির হার)*(100-হ্রাসের হার)}
                  ----------------------------------- - 100
                               100
সুত্রঃ2-দৈর্ঘ্য বৃদ্ধির হার প্রস্থের হ্রাসের সমান বা কম হলে-
ক্ষেত্রফল হ্রাস =100 - {(100+বৃদ্ধির হার)*(100- হ্রাসের হার)} ÷100 (উপরের টার মতো করে বসাবেন)
সুত্রঃ3-যখন শুধু বৃদ্ধির হারের কথা উল্লেখ থাকে-
ক্ষেত্রফল বৃদ্ধি={(100+বৃদ্ধির হার)÷100}²
সূত্রঃ4-ক্ষেত্রফল=1/2×ভূমি×উচ্চতা
সুত্রঃ5-আয়তকার ক্ষেত্রের দৈর্ঘ্য প্রস্থের যতগুন এবং ক্ষেত্রফল দেয়া থাকলে- ( দৈর্ঘ্য/প্রস্থ/পরিসীমা ) বের করতে-
দৈর্ঘ্য=√ক্ষেত্রফল*দৈর্ঘ্য প্রস্থের যতগুন
প্রস্থ =√ ক্ষেত্রফল*দৈর্ঘ্য প্রস্থের যতগুন
পরিসীমা=2(দৈর্ঘ্য+প্রস্থ)
১। Internet আবিষ্কৃত হয় 1969 সালে।
২। Email আবিষ্কৃত হয়1971 সালে।
৩। Hotmail আবিষ্কৃতহয়1996সালে।
৪। Google আবিষ্কৃত হয়1998 সালে।
৫। Facebook আবিষ্কৃত হয় 2004 সালে।
৬। Youtube আবিষ্কৃত হয়2005 সালে।
৭। Twitter আবিষ্কৃত হয় 2006 সালে।
৮। বিশ্বে ইন্টারনেট চালু হয়- ১৯৬৯সালে
৯। বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহার চালু হয় ১৯৯৩ সালে।
১০। বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহার সবার জন্য উন্মুক্ত হয় ১৯৯৬ সালে।
১১। বাংলাদেশে 3g চালু হয় 14 OCTOBER, 2012
১২। বাংলাদেশে স্থাপিত প্রথম কম্পিউটার "IBM-1620 যা স্থাপিত হয়বাংলাদেশ পরমানু শক্তি কমিশনে১৯৬৪সালে
১৩। ২১ মে ২০০৬ সালে কক্সবাজারের ঝিলংজা তে ল্যান্ডিং স্টেশন স্থাপনের মাধ্যমে বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলে যুক্তহয়।
১৪। এক্স-রে আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : রনজেন।
১৫। বেতার যন্ত্র আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : মার্কিনী।
১৬। ক্যালকুলেটর আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : চার্লস ব্যাবেজ
১৭। কম্পিউটার আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : আইকেন।
১৮। অণুবীক্ষণ যন্ত্র আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : লিউয়েন হুক।
১৯। উড়োজাহাজ আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : রাইট ব্রাদারস।
২০। বৈদ্যুতিক বাতি আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : টমাস আলভা এডিসন।
২১। রকেট ইঞ্জিন আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : রবার্ট গডার্ড।
২২। সেফটি রেজার আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : কিংসি জিলেট।
২৩। আপেক্ষিক তত্ত্ব আবিষ্কার করেন কে? উত্তর : আলবার্ট আইনস্টাইন

<<< জেনে নিন মুক্তিযোদ্ধাদের খেতাব নিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ন তথ্য >>>

¤¤ খেতাবপ্রাপ্ত মোট মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা- ৬৭৭ জন
¤¤ বীরশ্রেষ্ঠ- ৭ জন
¤¤ বীর উত্তম- ৬৯ জন
¤¤ বীর বিক্রম- ১৭৫ জন
¤¤ বীর প্রতীক- ৪২৬ জন
¤¤ খেতাবপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা- ২ জন (সেতারা বেগম ও তারামন বিবি)
¤¤ খেতাবপ্রাপ্ত একমাত্র বিদেশী নাগরিক- ডব্লিউ. এ. এস. ওডারল্যান্ড (অস্ট্রেলিয়া)
¤¤ খেতাবপ্রাপ্ত একমাত্র উপজাতি মুক্তিযোদ্ধা- ইউকে চিং মারমা
¤¤ খেতাবপ্রাপ্ত সর্বকনিষ্ঠ মুক্তিযোদ্ধা- শহিদুল ইসলাম (১২ বছর)
1. বাংলাদেশের সংবিধানে এখন পর্যন্ত কতটি সংশোধনী আনা হয়েছে? উঃ 16
2. পূর্বাশা দ্বীপের অপর নাম কি? উঃ দক্ষিণ তালপট্টি
3. মুজিবনগর কোন জেলায় অবস্থিত? উঃ মেহেরপুর
4. সেন্টমার্টিন কোন জেলায় অবস্থিত? উঃ কক্সবাজার
5. বাংলাদেশের সার্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন কারী বিষয়ঃ তৈরী পোষাক
6. শালবন বিহার কোথায় অবস্থিত? উঃ কুমিল্লার ময়নামতি
7. সাবাস বাংলাদেশ ভাষ্কর্য কোথায়? উঃ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
8. এশিয়া কাপ ক্রিকেট কোথায় অনুষ্ঠিত হয়? উঃ শেরে বাংলা স্টেডিয়াম
9. বাংলাদেশের জাতীয় দিবস কবে? উঃ ২৬ মার্চ
10. শ্রীলংকার মুদ্রার নাম কি? উঃ রূপী
11. সার্ক এর সদস্য দেশ কয়টি? উঃ ৮
12. পৃথিবীর গভীরতম স্থান কোন মহাসাগরে? উঃ প্রশান্ত
13. পৃথিবীর গভীরতম হ্রদ কোনটি? উঃ বৈকাল
14. ২০১৪ সালে ফুটবল বিশ্বকাপ হবে কোথায়? উঃ ব্রাজিল
15. শিল্পী জয়নুল আবেদীনের সংগ্রহশালা কোথায়? উঃ ময়মনসিংহে
16. বাংলাদেশের যে ছবি কলকাতা ফ্লিম ফেষ্টিভাল পুরষ্কার পায়ঃ গেরিলা
17. বাংলাদেশের আপিল বিভাগের মোট বিচারক কতজন? উঃ 11 জন

উপমহাদেশে নোবেল বিজয়ীদের নাম মনে রাখার টেকনিক :

ছন্দ : রবী রমনকে বলল খোরানা আর সালাম তেরেসার সাথে কি করে। জবাবে অমর্ত্য সেন হেসে বলল সবই ভাই ইউনুছ জানে। এখন মিলিয়ে নিন ।
১। রবীন্দ্র নাথ ঠাকুর – সাহিত্যে (১৯১৩),
২। চন্দ্রশেখর ভেঙ্গটরমন – পদার্থে (-১৯৩০ ),
৩। হরগোবিন্দ খোরানা-চিকিৎসায় -১৯৬৮,
৪। আব্দুস সালাম – পদার্থে – ১৯৭৯,
৫। মাদার তেরেসা – -শান্তিতে (১৯৭৯),
৬। অমর্ত্য সেন – -অর্থনীতিতে-১৯৯৮,
৭। ড .মো: ইউনুছ – -শান্তিতে-২০০৬।
এগুলোর সাথে যোগ করতে হবে
৯। মালালা
১০। কৈলাস সত্যার্থী

Bangla Date Finding Technique ইংরেজি সাল থেকে ৫৯৩ বিয়োগ করলে পাবেন বাংলা সাল……
বাংলা ১ লা বৈশাখ সবসময় ইংরেজি এপ্রিল মাসের ১৪ তারিখে শুরু হয় এবং অন্যান্য মাস গুলো ইংরেজি মাসের ১৩-১৬ তারিখের মধ্যে হয়ে থাকে।
এবার জেনে নিন ইংরেজি মাসের কত তারিখে বাংলা মাস শুরু হয়।যেহেতু ইংরেজি ১৩-১৬ তারিখের মধ্যে বাংলা সব মাসের শুরুর দিন থাকে তাই কোডটি মনে রাখুন।

  • কোডটি হলঃ- (৪ ৫৫ ৬৬৬৬ ৫৫ ৪৩৫)

কোড এর ব্যাবহার: ৪ মানে ইংরেজি ১৪ তারিখ, ৫ মানে ইংরেজি ১৫, ৬ মানে ১৬ তারিখ
উদাহরনঃ কাজী নজরুল ইসলামের জম্ম:- ১৮৯৯ সালের ২৫ মে।
এখন ১৮৯৯ থেকে ৫৯৩ বাদ দিন থাকে ১৩০৬। অর্থাৎ বাংলা ১৩০৬ সালে কাজী নজরুলের জম্ম সাল।
এবার ২৫ মে থেকে বাংলা মাস বের করুন।আমাদের কোডের ১ম টি অর্থাৎ ৪ মানে এপ্রিল এর ১৪ তারিখ ১লা বৈশাখ।তারপর আছে ৫ মানে ১৫ মে অর্থাৎ ১৫ মে জ্যৈষ্ঠ মাসের ১ তারিখ।তাই ১৫ থেকে ২৫ পর্যন্ত ১১ দিন অর্থাৎ ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৩০৬
বাংলা কাজী নজরুলের জম্ম সাল।

Black নিয়ে যত কথা

  • BLACK CAT- ভারতের কমান্ড বাহিনী।
  • BLACK SHIRT- মুসোলিনীর গেরিলা বাহিনী।
  • BLACK SEPTEMBER- ফিলিস্তিনির গেরিলা বাহিনী।
  • BLACK DECEMBER- পাকিস্তানের গেরিলা বাহিনী।
  • BLACK PANTHER- যুক্তরাষ্ট্রের নিগ্রদের সংগঠন।
  • BLACK TIGER- দুর্ধষ যোদ্ধাদের কে বলা হ্য়।
  • BLACK BENGAL- উন্নত জাতের ছাগল।
  • BLACK DIAMOND-পেলে, সেরেনা উইলিয়্ম।
  • BLACK GOLD- কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের বালুর মধ্যে পাওয়া ‘জিরকন ‘নামক এক ধরনের মূল্যবান পদাথ।
  • BLACK NIGHT- ১৯৭১ সাল এর ২৫ মার্চ।
  • BLACK HOLE TRAGEDY-অন্ধকূপ হত্যা।

Day নিয়ে ইংরেজীতে কনফিউশন

  • Day After Tomorrow – আগামী পরশু
  • Day Before Yesterday – গত পরশু
  • Only The Other Day – এইতো সেদিন
  • The Other Day – সেদিন
  • Every Other Day – একদিন পরপর
  • Every Third Day – তিনদিন পরপর
  • The Very Day – সেই দিনেই
  • Next To Next Friday – আগামী শুক্রবারের পরের শুক্রবার
  • Memorable day স্মরণীয় দিন
  • Carry the day- জয়লাভ করা
  • Day to day -দিনদিন
  • Gala day – উৎসবের দিন
  • Rag day-graduation সমাপনী দিন
  • Hot day -দুর্দিন
  • Hectic day- ব্যস্ত দিন
  • One Day Or Other – কোনো না কোনো একদিন,
  • Day Care – দিবাকালীন তত্ত্বাবধান,
  • Day Time – দিনের বেলা
  • Day Break – প্রভাত
  • To This Day – আজ পর্যন্ত

Electronics & Computer

  • IC=Integrated Circuit.
  • SIM=Subscriber Identity Module.
  • RIM=Removable Identity Module.
  • LASER= Light Amplification by Stimulated Emission of Radiation.
  • PC=Personal Computer.
  • CPU=Central Processing Unit.
  • ROM=Read Only Memory.
  • RAM=Random Access Memory.
  • CD=Compact Disk.
  • DVD=Digital Video Disk.
  • VIRUS=Vital Information Resources Under Seize.
  • LAN=Local Area Network.
  • MAN =Metropolitan Area Network.
  • WAN=Wide Area Network.
  • PAN-Personal Area Network.
  • GAN-Global Area Network.
  • PIN-Personal Number Identity.

GPS-Global Positioning System.

  • ATM-Automated Teller Machine.
  • BBC-British Broadcasting Corporation.
  • VOIP=Voice Over Internet Protocol.
  • MIS=Management Information System.
  • E-commerce=Electronic Commerce.
  • Email=Electronic Mail.
  • OMR=Optical Mark Reader.
  • WWW=World Wide Web.
  • HTTP =Hyper Text Transfer Protocol.
  • HTML= Hyper Text Markup Language (.html, .htm)
  • DOC – Microsoft Word document
  • DOCX – Office Open XML document
  • DOT – Microsoft Word document template
  • JAR (.jar, .jad) – ZIP file with manifest for use with Java applications
  • RAR Rar Archive (.rar) – for multiple file archive
  • MPEG = (Moving Picture Experts Group)1 is found in a .DAT file on a video CD. 4 is common; video in ASF- containers is also called Windows Media Video (WMV)
  • ACCDB – Microsoft Database (Microsoft Office Access 2007)
  • MDB (.mdb, .ldb) – Microsoft Database
  • ADP – Microsoft Access project
  • PDI – Portable Database Image
  • PUB – Microsoft Publisher
  • wma – Windows Media Audio
  • wmb – Windows Media Video

‪#‎ইংরেজি_শিখুন‬ সহজ পদ্ধতিতে

• What – কি?
• Whom – কাকে?
• How – কিভাবে?
• Where – কোথায়?
• When – কখন?
• Which – কোনটি?
• Who – কে?
• How far – কত দূর?
• How many – কতগুলো?
• How often – কত দিন/কত সময় পর? 
• How much – কি পরিমাণ?
• How long – কতক্ষণ?
• How fast – কত দ্রুত?
• How dare – কোন সাহসে?
• How fare – কত ভাড়া?
• How quickly – কত দ্রুত?
• How much longer – আর কতক্ষণ? 
• What kind – কোন ধরনের?
সাধারণ জ্ঞানঃ তথ্যপ্রযুক্তি
•	প্রঃ WWW বলতে কি বুঝায়?
•	উঃ-World Wide Web
•	প্রঃ ইন্টারনেটের জনক কে?
•	উঃ-ভিন্টন জি কার্ফ
•	প্রঃ জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজার কি কি?
•	উঃ-Mozilla firefox, Google chrome, Opera, Rock melt, Internet explorer
•	প্রঃ বিখ্যাত সার্চ ইঞ্জিন Google এর প্রতিষ্ঠাতা কে?
•	উঃ-সার্জ এম বেরিন ও লেরি পেজ
•	প্রঃ জনপ্রিয় সামাজিক নেটওয়ার্ক সাইট কি কি?
•	উঃ-Facebook, Twitter, Myspace, Google plus, orkut
•	প্রঃ আধুনিক কম্পিউটারের জনক কে?
•	উঃ-চার্লস ব্যাবেজ
•	প্রঃ ‘কম্পিউটার’ বাগ কি?
•	উঃ- সফট্ওয়্যারের অন্তনিহিত ভুল ।
•	প্রঃ কম্পিউটারে প্রথম মাইক্রোপ্রসেসর ব্যবহার হয় কত সালে?
•	উঃ- ১৯৭২ সালে ।
•	Ques: Which is called the the Brain of the Computer?
•	Ans: CPU.
•	প্রঃ কম্পিউটার সফট্ওয়ারের জগতে বৃহৎ প্রতিষ্ঠান কোনটি?
•	উঃ- মাইক্রোসফট ।

‪#‎কিছু_কমন_ট্রান্সলেশন‬(Translation) যা সব পরীক্ষাতেই থাকে

1 অতি চালাকের গলায় দড়ি Too much cunning over reaches itself
2 অতি দর্পে হত লংকা। Pride goes before its fall
3 অতি ভক্তি চোরের লক্ষণ Too much courtesy, too much craft
4 অতি লোভে তাতি নষ্ট Grasp all,lose all
5 অধিক সন্ন্যাসীতে গাজন নষ্ট Too many cooks spoil the broth
6 অধীনতা অপেক্ষা মৃত্যু শ্রেয় Even death is preferable to bondage
7 অপচয় করো না, অভাবও হবে না। Waste not, want not
8 অভাবে স্বভাব নষ্ট Necessity knows no law
9 অল্প বিদ্যা ভয়ঙ্করী। A little learning is a dangerous thing
10 অসারের তর্জন গর্জন স্যার। Empty vessel sounds much
11 অসারের তর্জন গর্জনই সার Empty vessels sound much
12 অসময়ের বন্ধুই প্রকৃত বন্ধু। A friend in need is a friend indeed
13 অহিংসা পরম ধর্ম Non-violence is a supreme virtue
14 আপন গায়ে কুকুর রাজা। Every dog is a lion at home
15 আপন চরকায় তেল দাও। Oil your own machine
16 আপন ভাল তো জগত ভালো। To the pure all things are pure
17 আপনি বাঁচলে বাপের নাম Self preservation is the first law of nature
18 আসলের চেয়ে সুদ মিষ্টি Interest is sweeter than principal
19 আয় বুঝে ব্যয় কর Cut your coat according to your cloth
20 আয় বুঝে ব্যয় কর। Cut your coat according to your cloth
21 আয়ের অধিক ব্যয় করো না। Do not live above your means
22 ইচ্ছা থাকলে উপায় হয়। Where there is a will, there is a way
23 উঠন্ত মুলো পত্তনে চেনা যায় । Morning shows the day
24 উঠন্ত মুলো পত্তনেই চেনা যায়। Morning shows the day
25 উৎপাতের কড়ি চিৎপাতে যায়। Ill got, ill spent
26 উদোর পিন্ডি বুদোর ঘাড়ে। One doth the scathe, another hath the scorn
27 উপদেশের চেয়ে দৃষ্টান্ত ভালো। Example is better than precept
28 উলুবনে মুক্তো ছড়ানো । Pearls before swine
29 এক মাঘে শীত যায় না One swallow does not make a summer
30 এক মাঘে শীত যায় না। One swallow doesn’t make a summer
31 এক হাতে তালি বাজে না It takes two to make a quarrel
32 এক হাতে তালি বাজে না। It takes two to make quarrel
33 একতাই বল। Unity is strength
34 একতায় উত্থান, বিভেদে পতন। United we stand, divided we fail
35 একবার না পারিলে দেখ শতবার । If at first try you don’t succeed, try, try again!
36 ওস্তাদের মার শেষ রাতে All’s well that ends well
37 কুকুরের পেটে ঘি মজে না। Habit is the second nature
38 কাঁচায় না নোয়ালে বাঁশ পাকলে করে ট্যাশ ট্যাশ To strike the iron while it is hot
39 কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে । To add insult to injury
40 কাঁটা দিয়ে কাঁটা তোলা । Using a thorn to remove a thorn
41 কান টানলে মাথা আসে Given the one, the other will follow
42 কানা গরুর ভিন্ন পথ । The fool strays from the safe path
43 কারও পৌষ মাস, কারও সর্বনাশ । One’s harvest month, is another’s complete devastation
44 কারো পৌষ মাস কারো সর্বনাশ What is sport to the cat is death to the rat
45 কিনতে পাগল বেচতে ছাগল Necessity never makes a bargain
46 কত ধানে কত চাল বুঝবে you will know now what’s what
47 কত হাতি গেল তল, মশা বলে কত জল । Fools rush in where angels fear to tread
48 কম পানির মাছ বেশ পানিতে উঠলে ও মাছে বেশ লাফালাফি করে । Being unnecessarily flashy is pointless
49 কুমিরের সঙ্গে বিবাদ করে জলে বাস It is hard to sit at Rome and strike with the Pope
50 কর্জ নাই, কষ্ট নাই Out of debt, out of danger
51 কষ্ট বিনা কেষ্ট মেলে না। No pains, no gains
52 কয়লা ধূলে ময়লা যায় না। Black will take no other hue
53 গাইতে গাইতে গায়েন Practice makes a man perfect
54 গাছ তার ফলে পরিচয়। A tree is known by its fruits
55 গাছে কাঁঠাল গোঁফে তেল। To count one’s chickens before they are hatched
56 গেঁয়ো যোগী ভিখ পায় না A prophet is not honoured in his own country
57 ঘুঘু দেখেছ, ফাঁদ দেখ নি। You must not see things with half an eye
58 ঘরে পোড়া গরু সিঁদুরে মেঘ দেখলে ডরায় A burnt child dreads the fire
59 ঘষতে ঘষতে পাথরও ক্ষয় হয়। Constant dripping wears out the stone
60 চকচক করলেই সোনা হয় না। All that glitters is not gold
61 চাচা আপন প্রাণ বাঁচা। Every one for himself
62 চেনা বামুনের পৈতার দরকার হয় না। Good wine needs no bush
63 চোখের আড়াল হলেই মনের আড়াল হয়। Out of sight, out of mind
64 চোর পালালে বুদ্ধি বাড়ে। To lock the stable when the mare is stolen
65 চোরা না শোনে ধর্মের কাহিনী। The devil would not listen to the scriptures
66 চোরে চোরে মাসতুত ভাই। Birds of a feather flock together
67 চোরে চোরে মাসতুতো ভাই। Birds of the same feather flock together
68 জোর যার মুলুক তার। Might is right
69 জ্ঞানই শক্তি। Knowledge is power
70 জলে কুমির ডাঙায় বাঘ। Between the devil and the deep sea
71 টাকায় টাকা আনে। Money begets money
72 টাকায় টাকা আনে। Money begets money
73 যার কোন গুণ নাই তার কপালে আগুন It is a pity, he is good for nothing
74 যেমন কর্ম তেমন ফল। As you sow, so you reap
75 যত গর্জে তত বর্ষে না। Barking dogs seldom bite
76 যতক্ষণ শ্বাস ততক্ষণ আশ। While there is life there is hope
77 ঠাকুর ঘরে কেরে, অামি কলা খাই না। A guilty mind is always suspicious
78 ডোল ভরা আশা আর কুলো ভরা ছাই। Extravagant hopes lead to complete disappointment
79 ঢিলটি মারলে পাটকেলটি খেতে হয়। Tit for tat
80 দুধ কলা দিয়ে কালসাপ পোষা। To cherish a serpent in one’s bossom
81 দশের লার্ঠি একের বোঝা। Many a little makes a mickle
82 নাই মামার চেয়ে কানা মামা ভাল। Something is better than nothing
83 নাচতে না জানলে উঠান বাঁকা। A bad workman quarrels with his tools
84 নানা মুনির না পথ। Many men, many minds
85 নিজের পায়ে কুড়াল মারা । To dig one’s own grave
86 প্রয়োজনই আবিষ্কারের প্রসূতি। Necessity is the mother of invention
87 বাপ কা বেট। Like father, like son
88 বিপদ কখনও একা আসে না। Misfortune never comes alon
89 বিপদ কখনো একা আসে না। Misfortune never comes alone
90 ভাই ভাই ঠাঁই ঠাঁই Brothers will part
91 ভাবিয়া করিও কাজ Look before you leap
92 ভিক্ষার চাল কাঁড়া আকাঁড়া। Beggars must not be choosers
93 মানুষ মাত্রই ভুল করে। To err is human
94 মন্ত্রের সাধন কিংব শরীর পতন। Do or die
95 মরা হাতি লাখ টাকা। The very ruins of greatness are great
96 মশা মারতে কামান দাগা। To break a butterfly on a wheel
97 সে হাড়ে হাড়ে দুষ্ট He is wicked to the backbone
98 সততাই সর্বোৎকৃষ্ট পন্থা। Honesty is the best policy
99 সব ভাল তার শেষ ভাল যার। All’s well that ends well
100 সময়ের এক ফোঁড় অসময়ের দশ ফোঁড়। A stitch in time save nine
 
 
01. বাংলাদেশের তৈরী পোষাক আমদানীতে শীর্ষ দেশ কোনটি ?
উত্তর : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (দ্বিতীয় জাপান)
02. বিশ্বের সবচেয়ে কার্যকর সোলার এনার্জি সেল উদ্ভবক কে ?
উত্তর : ড.জামালউদ্দিন (বাংলাদেশ)
03. ৮ জানুয়ারিতে ২০১১ প্রধানমন্ত্রী কোনটিকে সিটি কর্পোরেশনে উন্নতি করার ঘোষনা দেন ?
উত্তর : রংপুর।
04. বাংলাদেশ রাইফেসলস (BDR)-এর পরিববর্তিত নাম কি?
উত্তর : “বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ” (BGB)
05. বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ কবে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করেন ?
উত্তর : ২৩ জানুয়ারী,২০১১।
06. কৃষি বিষয়ক বেতার কেন্দ্র চালু হচ্ছে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ?
উত্তর : বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে।
07. সোমালিয়ার জলদস্যরা বাংলাদেশের যে জাহাজটি ছিনতাই করে তার নাম কি ?
উত্তর : এমভি জাহান মনি।
08. দেশের বৃহত্তম সৌর বিদ্যু কেন্দ্র কোথায় অবস্হিত ?
উত্তর : স্বন্দ্বীপ,চট্টগ্রাম।
09. সম্প্রতি কোন গাছকে জাতীয় বৃক্ষ (গাছ) ঘোষনা করা হয় ?
উত্তর : আম।
10. জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী মিশনে শান্তিরক্ষী প্রেরনে শীর্ষ দেশ কোনটি ?
উত্তর : বাংলাদেশ।
11. দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম কৃত্রিম লেক কোনটি ?
উত্তর : মহামায়া লেক (মিরসরাই.চট্টগ্রাম) বৃহত্তম লেক হলো কাম্তাই লেক।
12. বাংলাদেশের ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারী সংগঠনের নাম কি ?
উত্তর : ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ।
13. বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমি কোথায় অবস্হিত ?
উত্তর : ভাটিয়ারি,চট্টগ্রাম।
14. বাংলাদেশ নেভাল একাডেমি কোথায় অবস্হিত ?
উত্তর : পতেঙ্গা,চট্টগ্রাম।
15. বাংলাদেশ এয়ারফোর্স একাডেমি কোথায় অবস্হিত ?
উত্তর : যশোর।
16. বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সেতুর নাম কি ?
উত্তর : কিংদাও হাইওয়ান সেতু,চীন (৪২.৫৮ কি.মি.)
17. বিশ্বের সর্বপ্রথম কাঠের কুরআন শরীফ কে তৈরী করেন।
উত্তর : শিল্পী মহসেন ফুলাদি (ইরান)
18. ২০১১ সালের জানুয়ারীতে দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসাবে কার কন্ঠে স্বরযন্ত্র স্হাপন করা হয় ?
উত্তর : ব্রেন্ডা জেনসন (USA) (১ম- টিমোথি হিয়েডলার )
19. ইউরেনিয়াম উৎপাদনে শীর্ষ দেশ কোনটি ?
উত্তর : কাজাখস্তান (২য় কানাডা)
20. বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগতির ট্রেনের নাম কি ?
উত্তর : হারমনি এক্সপ্রেস (চীন)
21. বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী সুপার কম্পিউটার কোনটি ?
উত্তর : তিহান-১
22. বিশ্বের বৃহত্তম নারী বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম কি ?
উত্তর : রিয়াদ উইমেন্স বিশ্ববিদ্যালয়।
23. সামাজিক যোগাযোগ সাইট “টুইটার” এর প্রতিষ্ঠাতা কে ?
উত্তর : বিজ স্টোন।
24. “উইকিলিকস” এর প্রতিষ্ঠাতা কে ?
উত্তর : জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ (অস্ট্রেলিয়া)
25. বিশ্বের প্রথম কৃত্রিম কিডনি আবিস্কারক কে ?
উত্তর : ড.শুভ রায় (বাংলাদেশ)
26. বিশ্বের সর্বোচ্চ ভবন “দা প্রিন্সেস টাওয়ার” কোথায় অবস্থিত ?
উত্তর : দুবাই (সংযুক্ত আরব আমিরাত)
27. জনসংখ্যায় আফ্রিকার বৃহত্তম শহর কোনটি ?
উত্তর : কায়রো,মিশর।
28. ২০১০সালে বিশ্বের শীর্ষ মোটর গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের নাম কি ?
উত্তর : টয়োটা (জাপান)
29. ১মার্চ ২০১১ সার্কের দশম মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব গ্রহন করেন কে ?
উত্তর : ফাতিহা দইয়ানা সাঈদ (মালদ্বীপ)
30. বিমসটেকের স্হায়ী সচিবালায় বা সদর দপ্তর কোফায় হচ্ছে ?
উত্তর : ঢাকা,বাংলাদেশ
31. ২০১১ সালে কোন ব্যক্তি ইসলাম ধর্মে বিশেষ অবদানের জন্য বাদশাহ ফয়সাল পুরস্কার লাভ করেন ?
উত্তর : আবদুল্লাহ আহমাদ বাদাবী (মালয়েশিয়া)
32. ইসরাইলের চালকবিহীন জঙ্গি বিমানের নাম কি ?
উত্তর : "ইটান" এর অর্থ “শক্তিশালী”।
33. বিশ্বের দীর্ঘতম রেলওয়ে টানেলের নাম কি ?
উত্তর : গোথার্ড বেস টানেল (সুইজারল্যান্ড এবং ইতালি )

ক্যালকুলেটর ছাড়া যে কোন সংখ্যাকে ভাগ করার কিছু কার্যকর টেকনিক!

❖ ক্যালকুলেটর ছাড়া যে কোন সংখ্যাকে 5 দিয়ে ভাগ করার একটি effective টেকনিক
(০১) 13/5= 2.6 (ক্যালকুলেটর ছাড়া মাত্র ৩ সেকেন্ডে এটি সমাধান করা যায়)
টেকনিকঃ 5 দিয়ে যে সংখ্যাকে ভাগ করবেন তাকে 2 দিয়ে গুণ করুন তারপর ডানদিক থেকে 1 ঘর আগে দশমিক বসিয়ে দিন। কাজ শেষ!!! 13*2=26, তারপর থেকে 1 ঘর আগে দশমিক বসিয়ে দিলে 2.6 ।
(০২) 213/5=42.6 (213*2=426) 0.03/5= 0.006 (0.03*2=0.06 যার একঘর আগে দশমিক বসালে হয় 0.006) 333,333,333/5=66,666,666.6 (এই গুলা করতে আবার ক্যালকুলেটর লাগে না কি!)
(০৩) 12,121,212/5= 2,424,242.4
এবার নিজে ইচ্ছেমত 5 দিয়ে যে কোন সংখ্যাকে ভাগ করে দেখুন, ৩.৫ সেকেন্ডের বেশি লাগবে না!!
❖ ক্যালকুলেটর ছাড়া যে কোন সংখ্যাকে 25 দিয়ে ভাগ করার একটি effective টেকনিক
০১. 13/25=0.52 (ক্যালকুলেটর ছাড়া মাত্র ৩ সেকেন্ডে এটিও সমাধান করা যায়)
টেকনিকঃ 25 দিয়ে যে সংখ্যাকে ভাগ করবেন তাকে 4 দিয়ে গুণ করুন তারপর ডানদিক থেকে 2 ঘর আগে দশমিক বসিয়ে দিন। কাজ শেষ!!! 13*4=52, তারপর থেকে 2 ঘর আগে দশমিক বসিয়ে দিলে 0.52 ।
০২. 210/25 = 8.40
০৩. 0.03/25 = 0.0012
০৪. 222,222/25 = 8,888.88
০৫. 13,121,312/25 = 524,852.48
❖ ক্যালকুলেটর ছাড়া যে কোন সংখ্যাকে 125 দিয়ে ভাগ করার একটি effective টেকনিক
০১. 7/125 = 0.056 টেকনিকঃ 125 দিয়ে যে সংখ্যাকে ভাগ করবেন তাকে 8 দিয়ে গুণ করুন তারপর ডানদিক থেকে 3 ঘর আগে দশমিক বসিয়ে দিন। কাজ শেষ!!! 7*8=56, তারপর থেকে 3 ঘর আগে দশমিক বসিয়ে দিলে 0.056 ।
০২. 111/125 = 0.888
০৩. 600/125 = 4.800

কোন সংখ্যা কাকে দিয়ে বিভাজ্য…..

বিভাজ্যতা বলতে বুঝায় একটি সংখ্যা অপর একটি সংখ্যা দ্বারা নিঃশেষে বিভাজ্য কি না। একটু সহজভাবে বলা যায়, একটি সংখ্যাকে যদি অপর একটি সংখ্যা ভাগ করলে ভাগশেষ শূন্য হয়, তবে প্রথম সংখ্যাটি দ্বিতীয় সংখ্যা দ্বারা নিঃশেষে বিভাজ্য।
১ এর বিভাজ্যতাঃ- যে কোন সংখ্যাই ১ দিয়ে বিভাজ্য।
২ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ
------------------- 
আমরা সবাই জানি যে কোনো জোড় সংখ্যাই ২ দ্বারা বিভাজ্য। অর্থাৎ যে সব সংখ্যা জোড়( ২, ৪, ৬, ৮, ১০, ১২, ...... ) তারাই ২ দিয়ে বিভাজ্য। আরও সহজভাবে বলা যায়, যে সব সংখ্যার শেষ অংক( ২, ৪, ৬, ৮, ০ ) তারাই ২ দ্বারা বিভাজ্য।
যেমনঃ ৫৬৪৮, ৪৫৫৬, ৫৬২৩৫১২ ইত্যাদি।
৩ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ 
-------------------
কোন সংখ্যার অঙ্কগুলোর যোগফল যদি ৩ দ্বারা বিভাজ্য হয় তাহলে সংখ্যাটিও ৩ দ্বারা বিভাজ্য হবে।
যেমন ১৪১ এর ক্ষেত্রে ১+৪+১=৬, যা ৩ দ্বারা বিভাজ্য। তাই ১৪১ সংখ্যাটি ৩ দ্বারা বিভাজ্য। কিন্তু যেমন ধরুণ ২৩৮ এর ক্ষেত্রে ২+৩+৮=১৩, যা ৩ দ্বারা বিভাজ্য নয়, সুতরাং ২৩৮ তিন দ্বারা অবিভাজ্য। 
অঙ্কগুলোর যোগফল বেশি বড় হয়ে গেলে (যদি যোগফল দেখে একবারে বোঝা না যায়) যোগফলের জন্যই আবার নিয়মটি প্রয়োগ করুন।
ধরে নিলাম যোগফল আবার অনেক বড় সংখ্যা হল। তখন যোগফলের অংক গুলো যোগ করে আবার দেখলে পাওয়া যাবে তা ৩ দিয়ে বিভাজ্য কি না। সহজ একটি উদাহরন দেয়া যাক। ১৭৬০৭৯৩৭৬২৭৫ সংখ্যাটির অংক গুলোর যোগফল হচ্ছে ৬০। এখন ৬০ এর অংকগুলোর যোগফল(০+৬)= ৬, -- যা ৩ দিয়ে বিভাজ্য। সুতরাং ১৭৬০৭৯৩৭৬২৭৫ সংখ্যাটি ৩ দ্বারা বিভাজ্য। এরকম আরো অনেক উদাহরন করলে দেখা যাবে কাজটি অনেক সহজ।যেমনঃ ২০৮৭১১২, ৫৯২৩৮ ইত্যাদি।
৪ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ 
-------------------
একটি সংখ্যা ৪ দিয়ে বিভাজ্য কি না তা দেখতে হলে সংখ্যাটির শেষ ২ টা অংক ৪ দিয়ে বিভাজ্য কি না তা চেক করতে হবে।অর্থাৎ কোন সংখ্যার দশক ও এককের ঘরের অঙ্ক নিয়ে গঠিত সংখ্যা ৪ দিয়ে বিভাজ্য হলে সংখ্যাটিও ৪ দ্বারা বিভাজ্য হবে। 
যেমন ১১৬ এর ক্ষেত্রে ১৬, যা ৪ দিয়ে বিভাজ্য, তাই ১১৬ ও ৪ দিয়ে বিভাজ্য। আবার ৫৬০ এর ৬০ যেহেতু ৪ দিয়ে বিভাজ্য, তাই ৫৬০ ও বিভাজ্য।
৫ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ
-------------------
এটাও আমরা সবাই ভালো করেই জানি এবং কাজে লাগাই। সংখ্যার এককের ঘরের অঙ্ক ০ বা ৫ হলে সেই সংখ্যা ৫ দ্বারা বিভাজ্য। যেমন, ১০৫, ৩০৬০, ৯৬৫ ইত্যাদি।
৬ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ
-------------------
৬ সংখ্যাটি ২ এবং ৩ এর গুণফল। তাই যে সংখ্যা ২ ও ৩ উভয় সংখ্যা দ্বারা বিভাজ্য হবে, সেটাই ৬ দ্বারা বিভাজ্য হবে। আরো সহজ করে বললে, সংখ্যাটি হবে জোড় এবং অঙ্কগুলোর যোগফল তিন দ্বারা বিভাজ্য হবে। জোড় না হলেই বাদ! জোড় হলেই শুধু তিন এর পরীক্ষা -ব্যাস!
অর্থাৎ ২ ও ৩ এর বিভাজ্যতা চেক করতে হবে। অর্থাৎ সংখ্যাটি যদি জোড় হয় এবং সংখ্যাটি যদি ৩ দ্বারা বিভাজ্য হয় তবেই সংখ্যাটি ৬ দ্বারা বিভাজ্য।
যেমন, ১২০ একটি জোড় সংখ্য এবং তিন দ্বারা বিভাজ্য (কারণ ১+২+০=৩), তাই ১২০ ছয় দ্বারা বিভাজ্য। একইভাবে, ৭৮০ জোড় সংখ্যা এবং ৭+৮+০=১৫, যা ৩ দ্বারা বিভাজ্য, তাই ৭৮০, ছয় দ্বারা বিভাজ্য।
৭ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ
-------------------
এককের অঙ্ককে বর্গ করে সংখ্যাটির বাকী অংশ থেকে বিয়োগ দিন। ভাগফল ৭ দ্বারা ভাগযোগ্য হলেই কেল্লাফতে!!!
যেমন, ৬৭২ হলে ৬৭-৪=৬৩। সুতরাং ৬৩/৭ =৯। ইউরেকা! সংখ্যাটি বড় হলে একই প্রক্রিয়ার পুনরাবৃত্তি করা যাবে।
যেমন, ৪৫১৭৮ হলে ৪৫১৭-৬৪=৪৪৫৩। আবার ৪৪৫-৯ = ৪৩৬, পুনরায় ৪৩-৩৬ = ৭ যা কাঙ্খিত। তাই কেল্লাফতে!!!
অথবাঃ 
সংখ্যাটির প্রতিটি অংকের ক্ষেত্রে ভাগশেষের সাথে ৩ গুন করে প্রতিটি অংকের সাথে যোগ করে যোগফলকে ৭ দিয়ে ভাগ করে ভাগশেষ নির্নয় করতে হবে। সর্বশেষ ভাগশেষ যদি ০ হয় তবেই সংখ্যাটি ৭ দিয়ে বিভাজ্য।
৮ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ 
-------------------
কোন সংখ্যার সর্বশেষ তিন অঙ্কের সমন্বয়, মানে শতক, দশক ও এককের অঙ্কের সমন্বয় যদি ৮ দ্বারা বিভাজ্য হয়, তাহলে ঐ সংখ্যাটি ৮ দ্বারা বিভাজ্য হয়। অর্থাৎ 
কোন সংখ্যা যদি ৩ বা তার চেয়ে বেশি অংক বিশিষ্ট হয় তবে ৮ দিয়ে বিভাজ্যতা চেক করতে শুধুমাত্র শেষ ৩ অংক চেক করতে হবে তা ৮ দিয়ে বিভাজ্য কি না। যদি শেষ ৩ অংক ৮ দিয়ে বিভাজ্য হয় তবেই সংখ্যাটি ৮ দিয়ে বিভাজ্য।
যেমন ৯৬৪০ আট দ্বারা বিভাজ্য কারণ ৬৪০/৮=৮০। তবে এ প্রক্রিয়া ঝামেলাপূর্ণ মনে হতে পারে। কিন্তু ,মনে করুন আপনার কাছে আছে একটি বিশাল সংখ্যা -20,233,322,496। এখন 496 কেই 8 দ্বারা ভাগ দিলেই আপনি বুঝে ফেলবেন রহস্য!
৯ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ
-------------------
তিন এর নিয়মের মতোই অঙ্কগুলোর যোগফল ৯ দ্বারা বিভাজ্য হতে হবে। 
যেমন ৭২১৮ এর জন্য ৭+২+১+৮=১৮ যা ৯ দিয়ে ভাগযোগ্য। 10,006,470 এর জন্য ১+৬+৪+৭=১৮, ফলে এটি ৯ দ্বারা বিভাজ্য হতে বাধ্য।
১০ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ
-------------------
এটাও সবার জানা এবং মানা (মানে মানা হয়)। অর্থ্যাৎ এককের ঘরে ০ থাকতে হবে তবুও নিরস উদাহরণ দিচ্ছি- ১১০, ৭৬০, ১০০৩৭৭৩০ ইত্যাদি।
১১ দ্বারা বিভাজ্যতাঃ
-------------------
১১ এর পরীক্ষায় পাস করতে হলে সংখ্যাটির একটার পর একটা পর্যায়ক্রমিক সংখ্যার যোগফল ও বাকী সংখ্যাগুলোর যোগফলের পার্থক্য ১১ দ্বারা বিভাজ্য হতে হবে। অস্পষ্ট লাগলে উদাহরণে পরিষ্কার হয়ে যাবে। 
যেমন ১০৮২৪ এর জন্যে (১+৮+৪)-(০+২)= ১৩-২=১১। ফলে, ১০,৮২৪ এগার দিয়ে বিভাজ্য।
একইভাবে- ২৫, ৭৮৪ এর ক্ষেত্রে- (২+৭+৪) - ( ৫+৮)=১৩-১৩=০ । আর ০ ও তো ১১ দিয়ে ভাগ যায় (০ বার!!!)।
বিভাজ্যতা সূত্রঃ ভাজ্য= ভাজক * ভাগফল + ভাগশেষ। [যেখানে ভাগশেষ < ভাজক।]

ভূগোল ও পরিবেশঃ (২২২ টি প্রশ্ন ও উত্তর) ‪

১. Geography শব্দের বাংলা প্রতিশব্দ কি?
উত্তর : ভূগোল।
২. কোন দেশের ভূগোলবিদ সর্বপ্রথম Geography শব্দটি ব্যবহার করে?
উত্তর : গ্রিস।
৩. তার নাম কি?
উত্তর : ইরাটসলেনিস।
৪. ‘পারসেপটিকস অন দ্য নেচার অব  জিওগ্রাফি’ কত সালে প্রকাশিত?
উত্তর : ১৯৫৯ সালে।
৫. ভূগোলের শাখা কয়টি?
উত্তর : ৯টি।
৬. মাধ্যমিক স্তরে কোন কোন শাখা পড়ানো হয়?
উত্তর : এ ধরনের।
৭. মহাকাশে অসংখ্য কি রয়েছে?
উত্তর : জ্যোতিষ্ক।
৮. সূর্য কি?
উত্তর : নক্ষত্র।
৯. চাঁদ কি?
উত্তর : উপগ্রহ।
১০. নক্ষত্রগুলো প্রকৃতপক্ষে কি?
উত্তর : জ্বলন্ত বাষ্পপিণ্ড।
১১. নিজস্ব আলো ও উত্তপ আছে কার?
উত্তর : নক্ষত্রের।
১২. পৃথিবীর নিকটতম নক্ষত্রের নাম কি?
উত্তর : সূর্য।
১৩. সূর্য লেকে পৃথিবীর দূরত্ব কত?
উত্তর : ১৫ কোটি কি. মি.।
১৪. সূর্য থেকে পৃথিবীতে আলো আসতে কত সময় লাগে?
উত্তর : ৮মি. ১৯ সেকেন্ড/৮.৩২ মি.।
১৫. চাঁদ থেকে পৃথিবীতে আলো আসতে কত সময় লাগে?
উত্তর : ১ মি. ২০/৩০ সে.।
১৬. সূর্যের নিকটতম নক্ষত্র কোনটি?
উত্তর : প্রঙ্মিা সেন্টারাই।
১৭. পৃথিবী থেকে তার দূরত্ব কত?
উত্তর : ৩৮ লাখ কোটি কি. মি.।
১৮. গ্যালাক্সি ক্ষুদ্র অংশকে কি বলে?
উত্তর : ছায়াপথ।
১৯. ছায়াপথ কোন আকাশে দেখা যায়?
উত্তর : উত্তর-দক্ষিণ।
২০. উল্কার অপর নাম কি?
উত্তর : ছুটন্ত তারা।
২১. ইংরেজিতে একে কি বলে?
উত্তর : Meteor.
২২. হ্যালির ধূমকেতু কে আবিষ্কার করেন?
উত্তর : এডমন্ড হ্যালি।
২৩. কত বছর পর পর হ্যালির ধূমকেতু দেখা যায়?
উত্তর : ৭৬ বছর।
২৪. সর্বশেষ কবে দেখা গেল?
উত্তর : ১৯৮৬ সালে।
২৫. পরবর্তীতে কবে দেখা যাবে?
উত্তর : ২০৬২ সালে।
২৬. ধূমকেতুর ইংরেজি নাম কি?
উত্তর : Comet
২৭. কোন শব্দ থেকে ধূমকেতু শব্দটি এসেছে?
উত্তর : গ্রিক শব্দ komet থেকে।
২৮. Komet অর্থ কি?
উত্তর : এলোকেশী
২৯. গ্রহের নিজস্ব কি নেই?
উত্তর : আলো ও তাপ।
৩০. গ্রহ আলো ও তাপ পায় কার কাছ থেকে?
উত্তর : সূর্য থেকে।
৩১. সৌরজগতের কয়টি গ্রহ আছে?
উত্তর : ৮টি।
৩২. পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ কোনটি?
উত্তর : চাঁদ।
৩৩. কোন কোন গ্রহের উপগ্রহ নেই?
উত্তর : বুধ ও শুক্র।
৩৪. কোন গ্রহের উপগ্রহ সংখ্যা সবচেয়ে বেশি? কয়টি?
উত্তর : শনি। ২২টি।
৩৫. সূর্য কোন বর্ণের?
উত্তর : হলুদ।
৩৬. সূর্যের ব্যাস কত?
উত্তর : ১৩ লাখ ৮৪ হাজার কি. মি.।
৩৭. সূর্যের ভর কত?
উত্তর : ১.৯৯*১০১৩ কিলোগ্রাম।
৩৮. সূর্যের কেন্দ্রভাগ ও পৃষ্ঠভাগের উত্তাপ কত?
উত্তর : ১৫০,০০০,০০০ ও ৬০০০ সেলসিয়াস।
৩৯. কোনটি সবচেয়ে বড় গ্রহ?
উত্তর : বৃহস্পতি।
৪০. সবচেয়ে ছোট গ্রহ কোনটি?
উত্তর : বুধ।
৪১. কোন গ্রহ সূর্যের সবচেয়ে নিকটে অবস্থিত?
উত্তর : বুধ।
৪২. সূর্য থেকে বুধের দূরত্ব কত?
উত্তর : ৫.৮ কোটি কি.মি.।
৪৩. সূর্যকে একবার প্রদক্ষিণ করতে বুধের সময় লাগে?
উত্তর : ৮৮ দিন।
৪৪. নিজ অক্ষে আবর্তন করতে বুধের সময় লাগে?
উত্তর : ৫৮ দিন, ১৭ ঘণ্টা।
৪৫. কোন গ্রহে বায়ুমণ্ডল নেই?
উত্তর : বুধ।
৪৬. আমেরিকা ১৯৭৪ সালে বুধে কোন যানটি পাঠায়?
উত্তর : মেরিনার-১০।
৪৭. শুক্র গ্রহের অপর নাম কি?
উত্তর : শুকতারা বা সন্ধ্যাতারা।
৪৮. সূর্য থেকে শুক্রের দূরত্ব কত?
উত্তর : ১০.৮ কোটি কি.মি.।
৪৯. পৃথিবীর নিকটতম গ্রহ কোনটি?
উত্তর : শুক্র।
৫০. ব-দ্বীপকে ইংরেজিতে কী বলে?
উত্তর : Delta
৫১. সমগ্র ভূমিরূপ কয়টি ভাগে বিভক্ত ও কী কী?
উত্তর : ৩টি, পর্বত, মালভূমি ও সমভূমি।
৫২. পর্বত কয় প্রকার?
উত্তর : ৪ প্রকার।
৫৩. ভঙ্গিল পর্বতগুলোর নাম লিখ?
উত্তর : হিমালয়, আল্পস, রকি।
৫২. ভঙ্গিল পর্বতের প্রধান বৈশিষ্ট্য কী?
উত্তর : ভাঁজ
৫৫. আগ্নেয় পর্বতের উদাহরণ দাও।
উত্তর : ভিসুভিয়াস, কিলিমানজারো, ফুজিয়ামা।
৫৬. ল্যাকোলিথ পর্বত কোনটি?
উত্তর : USA ল্যাকোলিথ।
৫৭. সমভূমি কত প্রকার ও কি কি?
উত্তর : ২ প্রকার : ক্ষয়জাত ও সঞ্চয়জাত।
৫৮. বায়ুতে নাইট্রোজেন ও অক্সিজেনের পরিমাণ কত?
উত্তর : ৭৮.০২ ও ২০.৭১%
৫৯. বায়ুমণ্ডলের স্তর কয়টি?
উত্তর : ৬টি।
৬০. কোনগুলো আবহাওয়া ও জলবায়ুর উপাদান?
উত্তর : বায়ুর তাপ, চাপ, প্রবাহ, আদ্রতা ও বারিপাত।
৬১. বর্ষাকালে কেমন বায়ু প্রবাহিত হয়?
উত্তর : মৌসুমী।
৬২. মরুভূমিতে দিনে ও রাতে কেমন অবস্থা থাকে?
উত্তর : গরম ও ঠাণ্ডা।
৬৩. বায়ুমণ্ডলে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ কত?
উত্তর : শতকরা ১ ভাগ।
৬৪. কোনো স্থানের ৩০-৪০ বছরের গড় আবহাওয়াকে কী বলে?
উত্তর : জলবায়ু।
৬৫. কোনোগুলো আবহাওয়া ও জলবায়ুর উপাদান?
উত্তর : বায়ুরতাপ, চাপ, প্রবাহ, আদ্রতা ও বারিপাত।
৬৬. বায়ূর আর্দ্রতা কী দ্বারা পরিমাপ করা হয়?
উত্তর : হাইগ্রোমিটার।
৬৭. বায়ুর আর্দ্রতা কত প্রকার ও কি কি?
উত্তর : ২ প্রকার, ১. পরম আদ্রতা ২. আপেক্ষিক আদ্রতা
৬৮. বৃষ্টিপাত কত প্রকার?
উত্তর : ৪ প্রকার।
৬৯. অয়ন বায়ু কত প্রকার ও কি কি?
উত্তর : ৩ প্রকার : অয়ন, পশ্চিমা ও মেরু বায়ু।
৭০. গর্জনশীল চলি্লশা কত থেকে কত ডিগ্রির মধ্যে?
উত্তর : ৪০্ন-৪৭্ন দক্ষিণ।
৭১. মওসুম কোন ভাষার শব্দ এবং এর অর্থ কী?
উত্তর : আরবি, ঋতু
৭২. ঋতু পরিবর্তনের সাথে সাথে বায়ুর সম্পর্ক রয়েছে?
উত্তর : মৌসুমী।
৭৩. বিশ্ব উষ্ণায়নের জন্য দায়ী গ্যাসের নাম কি?
উত্তর : কার্বন-ডাই-অক্সাইড,CFC, N2O মিথেন নাইট্রোস অঙ্াইড।
৭৪. সাধারণত প্রতি ১০০০ মিটার উচ্চতায় কত তাপমাত্রা হ্রাস পায়?
উত্তর : ৬।
৭৫. হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম গ্যাসের প্রাধান্য দেখা যায় কোন স্তরে?
উত্তর : এক্সোমন্ডলে।
৭৬. কোন স্তরে ওজোন (O3) গ্যাসের প্রাধান্য আছে?
উত্তর : স্ট্রাটোস্থিয়ার
৭৭. বায়ুমণ্ডলের স্তর কয়টি?
উত্তর : ৬টি
৭৮. প্রথম ও শেষ তিনটি মণ্ডলকে কী বলে?
উত্তর: সমমণ্ডল ও বিষমন্ডল।
৭৯. নিরক্ষরেখার অক্ষাংশ কত?
উত্তর : ০ডিগ্রী
৮০. সুমেরুর অক্ষাংশ কত?
উত্তর : ৯০ডিগ্রী
৮১. কুমেরুর অক্ষাংশ কত?
উত্তর : ৯০ডিগ্রী
৮২. নিরক্ষরেখা থেকে প্রত্যেক মেরুর কৌণিক দূরত্ব কত?
উত্তর : ৯০ডিগ্রী
৮৩. কর্কটক্রান্তি কত ডিক্রি?
উত্তর : ২৩.৫ডিগ্রী উত্তর।
৮৪. মকরক্রান্তি কত ডিগ্রি?
উত্তর : ২৩.৫ডিগ্রী দক্ষিণ।
৮৫. সুমেরুবৃত্ত বলা হয় কত ডিগ্রিকে?
উত্তর : ৬৬.৫ডিগ্রী উত্তর।
৮৬. কুমেরুবৃত্ত বলা হয় কত ডিগ্রিকে?
উত্তর : ৬৬.৫ডিগ্রী দক্ষিণ।
৮৭. বিষুবরেখাকে কী বলে?
উত্তর : মহাবৃত্ত।
৮৮. নিম্ন অক্ষাংশ কত ডিগ্রি?
উত্তর : ০০-৩০ডিগ্রী
৮৯. মধ্য অক্ষাংশ কত ডিগ্রি?
উত্তর : ৩০ডিগ্রী-৬০ডিগ্রী
৯০. উচ্চ অক্ষাংশ কত ডিগ্রি?
উত্তর : ৬০ডিগ্রী-৯০ডিগ্রী
৯১. অক্ষাংশ নির্ণয়ের কয়টি পদ্ধতি
আছে? কী কী?
উত্তর : ২টি, ১টি ধ্রুবতারা ২ সেঙ্ট্যান্ট ও সূর্যের অবস্থান থেকে।
৯২. যে যন্ত্রের সাহায্যে সূর্যের উন্নতি পরিমাপ হয় তাকে কী বলে?
উত্তর : সেক্সট্যান্ট।
৯৩. সূর্য কোন অক্ষাংশের উপর লম্বভাবে কিরণ দিলে তাকে কী বলে?
উত্তর : বিষ্ণুলম্ব। (২৩.৫ডিগ্রী উত্তর :২৩.৫ডিগ্রী দক্ষিণ)
৯৪. দ্রাঘিমা রেখার অপর নাম কী?
উত্তর : মধ্যরেখা
৯৫. মূল মধ্যরেখা কোন শহরের উপর দিয়ে গেছে?
উত্তর : যুক্তরাজ্যের লন্ডন শহরের গ্রিনিচ।
৯৬. মূল মধ্যরেখার মান কত?
উত্তর : ০ডিগ্রী
৯৭. পৃথিবীর পরিধি দ্বারা উৎপন্ন কোন কত?
উত্তর : ৩৬০ডিগ্রী।
৯৮. প্রতি মিনিট দ্রাঘিমা এক ডিগ্রির কত অংশের সমান?
উত্তর : ১/৬ডিগ্রী অংশের।
৯৯. নিরক্ষরেখা ও মূল মধ্যরেখা পরস্পর ছেদ করলে অক্ষাংশ ও দ্রাঘিমাংশ কত?
উত্তর : ০ডিগ্রী।
১১৮. কতটি পদ্ধতিতে দ্রাঘিমা নির্ণয় করা যায়?
উত্তর : ২টি, ১ স্থানীয় সময়ের পার্থক্য ২ গ্রিনিচের সময়ের পার্থক্য
১০০. ১০ দ্রাঘিমার জন্য সময়ের পার্থক্য হয় কত?
উত্তর : ৪ মিনিট।
১০১. গ্রিনিচের সঠিক সময় কোন ঘড়ি থেকে জানা যায়?
উত্তর : ক্রনোমিটার ঘড়ি।
১০২. কোন যন্ত্রের সাহায্যে স্থানীয় সময় নির্ণয় করা যায়?
উত্তর : সেক্সট্যান্ট
১০৩. আমেরিকার প্রমাণ সময় কয়টি?
উত্তর : ৪টি।
১০৪. কানাডার প্রমাণ সময় কয়টি?
উত্তর : ৫টি
১০৫. গ্রিনিচের স্থানীয় সময়কে সমগ্র পৃথিবীর কী সময় ধরা হয়?
উত্তর : প্রমাণ সময়।
১০৬. বাংলাদেশের সময় গ্রিনিচের সময় অপেক্ষা?
উত্তর : +৬ ঘণ্টা
১০৭. বাংলাদেশের মধ্যভাগে কোন রেখা অবস্থিত?
উত্তর : ৯০ডিগ্রী পূর্ব।
১০৮. কোনো স্থানের দ্রাঘিমা এবং এর প্রতিপাদ স্থানের দ্রাঘিমা কত?
উত্তর : ১৮০ডিগ্রী।
১০৯. আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা কোন ভাগের উপর দিয়ে গেছে?
উত্তর : জলভাগ।
১১০. কোন মহাসাগরের উপর দিয়ে আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা গেছে?
উত্তর : প্রশান্ত মহাসাগর।
১১১. আন্তর্জাতিক তারিখ রেখাটি কত ডিগ্রি পূর্ব ও পশ্চিম দ্রাঘিমা রেখা?
উত্তর : ১৮০ডিগ্রী পূর্ব ও পশ্চিম।
১১২. কোন কোন স্থানের উপর দিয়ে আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা গেছে?
উত্তর : সাইবেরিয়ার উ. পূর্ব অংশ অ্যালিউসিয়ান, ফিজি ও চ্যাথাম দ্বীপপুঞ্জের উপর।
১১৩. পৃথিবীর আবর্তন গতিকে কোন গতি বলে?
উত্তর : আহ্নিক গতি
১১৪. পরিক্রমণ গতিকে কোন গতি বলে?
উত্তর : বার্ষিক গতি
১১৫. পৃথিবীর পূর্ণ আবর্তনের সময়কে কী বলে?
উত্তর : সৌরদিন
১১৬. কোন গতির ফলে বায়ুপ্রবাহ ও সমুদ্রস্রোতের পরিবর্তন হয়?
উত্তর : আহ্নিক গতি।
১১৭. জোয়ার ভাটা কেন সংঘটিত হয়?
উত্তর : আহ্নিক গতির ফলে/চাঁদের আকর্ষণে।
১১৮. চাঁদ পৃথিবীর চারদিকে একবার ঘুরে আসে কত দিনে?
উত্তর : ২৭ দিন।
১১৯. কোন বিজ্ঞানী কত সালে আহ্নিক গতির প্রমাণ দেন?
উত্তর : ফরাসি বিজ্ঞানী ফুকো, ১৮৫১ সাল।
১২০. আকার অনুসারে শিল্পকে কয়ভাগে ভাগ করা যায়?
উত্তর : ৩ ভাগে।
১২১. জাপান কি কি দ্রব্য রপ্তানি করে?
উত্তর : লোহা, ইস্পাত, ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী, মোটরগাড়ি, জাহাজ ও বিভিন্ন শিল্পদ্রব্য।
১২২. কোন কোন দ্রব্য জাপান আমদানি করে?
উত্তর : লোহা ও কয়লা।
১২৩. বাংলাদেশের অবস্থান লিখ?
উত্তর : ২০ন৩৪ – ২৬ন৩৮ উ. অক্ষরেখা এবং ৮৮ন০১- ৯২ন৪১ পূর্ব দ্রাঘিমা রেখা।
১২৪. বাংলাদেশের মাঝখান দিয়ে কোন রেখা অতিক্রম করেছে?
উত্তর : কর্কট ক্রান্তি রেখা।
১২৫. বাংলাদেশের টেরিটোরিয়াল সমুদ্রসীমা কত?
উত্তর : ১২ নটিক্যাল মাইল।
১২৬. অর্থনৈতিক একান্ত অঞ্চল কত?
উত্তর : ২০০ নটিক্যাল মাইল
১২৭. সামুদ্রিক মালিকানা মহীসোপানের কোন অংশ পর্যন্ত?
উত্তর : শেষ অংশ।
১২৮. ১ নটিক্যাল মাইল = কত কিমি?
উত্তর : ১.৮৫২ কিমি
১২৯. মহীসোপান কত নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত বিস্তৃত?
উত্তর : ৩৫০ নটিক্যাল মাইল
১৩০. তাজিন ডং (বিজয়) এর উচ্চতা কত?
উত্তর : ১২৩১ মিটার।
১৩১. কোন সময়কে প্লাইস্টোসিনকাল বলে?
উত্তর: ২৫,০০০ বছর পূর্বের।
১৩২. বরেন্দ্র ভূমির মাটি কেমন?
উত্তর : ধূসর ও লাল
১৩৩. বাংলাদেশের নদীর সংখ্যা প্রায় কত?
উত্তর : প্রায় ৭০০।
১৩৪. বাংলাদেশের মোট নদীর দৈর্ঘ্য কত?
উত্তর : ২২,১৫৫ কিমি
১৩৫. কত সালে আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা স্থির করা হয়?
উত্তর : ১৮৮৪ সালে।
১৩৬. পদ্মা যমুনার মিলিত স্থানকে কী বলে?
উত্তর: দৌলতদিয়া।
১৩৭. পদ্মা-মেঘনার কোথায় মিল হয়েছে?
উত্তর : চাঁদপুর।
১৩৮. মহানন্দার উপনদী কোনগুলো?
উত্তর : পুনর্ভবা, নাগর, পাগলা, কুলিন, ট্যাংগন
১৩৯. ব্রহ্মপুত্রের উপনদী কোনগুলো?
উত্তর : ধরলা ও তিস্তা
১৪০. ব্রহ্মপুত্রের শাখা নদী কোনগুলো?
উত্তর : বংশী ও শীতলক্ষ্যা
১৪১. যমুনার শাখা নদী কোনটি?
উত্তর : ধলেশ্বরী।
১৪২. ধলেশ্বরীর শাখা নদী কোনটি?
উত্তর : বুড়িগঙ্গা।
১৪৩. বাংলাদেশের প্রধান সমুদ্রবন্দর কোথায়?
উত্তর : চট্টগ্রামে।
১৪৪. কাপ্তাই বাঁধ কোন নদীর উপর?
উত্তর : কর্ণফুলী
১৪৫. কোন নদীর নাম একটি জেলার নামানুসারে?
উত্তর : ফেনী।
১৪৬. বাংলাদেশের জলবায়ু সাধারণত কেমন?
উত্তর : সমভাবাপন্ন।
১৪৭. বাংলাদেশের বার্ষিক গড় তাপমাত্রা কত?
উত্তর : ২৬.০১ সেলসিয়াস।
১৪৮. বার্ষিক গড় বৃষ্টিপাত কত?
উত্তর : ২০৩ সেমি
১৪৯. বাংলাদেশের কোন অঞ্চলে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয়?
উত্তর : সিলেট অঞ্চলে।
১৫০. বাৎসরিক বৃষ্টির কত অংশ বর্ষাকালে হয়?
উত্তর : চার-পঞ্চমাংশ।
১৫১. বাংলাদেশের কোন অঞ্চল গম চাষের জন্য উপযোগী?
উত্তর : উত্তরাঞ্চল
১৫২. বাংলাদেশের কত লোক কৃষি কাজের সাথে জড়িত?
উত্তর : ৪৭.৩০%
১৫৩. বাংলাদেশে কত প্রকার পাট চাষ হয়?
উত্তর : ২ প্রকার।
১৫৪. বাংলাদেশের বনভূমির পরিমাণ কত?
উত্তর : ১৩ ভাগ
১৫৫. শক্তির অন্যতম উৎস কী?
উত্তর : কয়লা
১৫৬. আবিষ্কৃত গ্যাস ক্ষেত্রের সংখ্যা কতটি?
উত্তর : ২৩টি।
১৫৭. শিল্পকারখানায় কাঁচামাল হিসেবে কী ব্যবহৃত হয় কোনটি?
উত্তর : প্রাকৃতিক গ্যাস।
১৫৮. বর্তমানে কাগজের কল কয়টি আছে?
উত্তর : ৬টি।
১৫৯. বোর্ড মিল ও নিউজপ্রিন্ট কারখানা কয়টি?
উত্তর : ৪টি ও ১টি
১৬০. হিউয়েন সাং কোন দেশের পরিব্রাজক?
উত্তর : চীনা
১৬১. তিনি কত সালে বাংলাদেশে আসেন?
উত্তর : সপ্তম শতাব্দী।
১৬২. তিনি বাংলাদেশকে কী বলেন?
উত্তর : A seeping beauty emerging from mists & water.
১৬৩. মিটারগেজ কী?
উত্তর : ১ মি. প্রস্থ রেলপথ।
১৬৪. ব্রডগেজ কী?
উত্তর : ১.৬৮ মি. প্রস্থ রেলপথ।
১৬৫. বাংলাদেশে কয়টি রেলস্টেশন আছে?
উত্তর : ৪৪০টি।
১৬৬. বাংলাদেশের সমুদ্রবন্দর কয়টি?
উত্তর : ২টি
১৬৭. বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক নদী কয়টি?
উত্তর : ৫৭টি।
১৬৮. শনি গ্রহের সবচেয়ে বড় উপগ্রহ কোনটি?
উত্তর : টাইটান
১৬৯. সূর্য কি?
উত্তর : নক্ষত্র
১৭০. চাঁদ কী?
উত্তর : উপগ্রহ
১৭১. সিন্ধু নদীর গিরিখাতটি কত মি. গভীর?
উত্তর : ৫১৮ মি.
১৭২. গ্যান্ড কালিয়ান কী?
উত্তর : গিরিখাত
১৭৩. এটি কত মি. বিস্তৃত?
উত্তর : ১৩৭-১৫৭ মি.
১৭৪. এটি কত মি. গভীর?
উত্তর : ২.৪ মি.
১৭৫. জনসংখ্যা বণ্টনের প্রভাবক কয়ভাগে বিভক্ত?
উত্তর : ২ ভাগে।
১৭৬. আবহাওয়া ও জলবায়ুর উপাদান কী কী?
উত্তর : বায়ুর তাপ, চাপ, বায়ু প্রবাহ, আদ্রতা ও রারিপাত।
১৭৭. বারিমণ্ডলের ইংরেজি প্রতিশব্দ কী?
উত্তর : Hydrosphere
১৭৮. উন্মুক্ত বিস্তীর্ণ জলরাশিকে কী বলে?
উত্তর: মহাসাগর
১৭৯. রাবিমণ্ডলের উন্মুক্ত বিস্তীর্ণ জলরাশিকে কী বলে?
উত্তর : মহাসাগর
১৮০. মহাসাগর অপেক্ষা স্বল্প আয়তন বিশিষ্ট জলরাশিকে কী বলে?
উত্তর : সাগর
১৮১. কীসের সাহায্যে সমুদ্রের গভীরতা মাপা যায়?
উত্তর : শব্দ তরঙ্গ।
১৮২. শব্দ তরঙ্গ প্রতি সেকেন্ডে পানির মধ্য দিয়ে কত মিটার যায়?
উত্তর : ১,৪৭৫ মিটার।
১৮৩. কোন যন্ত্রের সাহায্যে সমুদ্রের গভীরতা মাপা যায়?
উত্তর : ফ্যাদোমিটার।
১৮৪. মহীসোপানের গড় প্রশস্ততা কত?
উত্তর : ৭০ কিমি
১৮৫. মহীঢাল কত কিমি প্রশস্ত?
উত্তর : ১৬-৩২ কিমি
১৮৬. পৃথিবীর গভীরতম খাতের নাম কী?
উত্তর : ম্যারিয়ানা খাত
১৮৭. সমুদ্র স্রোতের প্রধান কারণ কী?
উত্তর : বায়ুপ্রবাহ
১৮৮. ২০৫০ সালে পৃথিবীর জনসংখ্যা কত দাঁড়াবে?
উত্তর : ৯ বিলিয়নের উপরে।
১৮৯. পৃথিবীর প্রাথমিক পর্যায় কত?
উত্তর : সুদূর অতীত থেকে ১৬৫০ খ্রি.
১৯০. কোন সময়কে মাধ্যমিক পর্যায় বলা হয়?
উত্তর : ১৬৫০-১৯০০ সাল।
১৯১. সাম্প্রতিক পর্যায়ভুক্ত সময় কত?
উত্তর : ১৯০০ বর্তমান।
১৯২. শিশু কারা?
উত্তর : ০-১৮ বছর বয়সী।
১৯৩. আকার অনুসারে শিল্পকে কয়ভাগে ভাগ করা যায়?
উত্তর : ৩ ভাগে।
১৯৪. জনসংখ্যার ঘনত্ব কিভাবে নির্ণয় করা যায়?
উত্তর : মোট জনসংখ্যা, মোট ভূমির আয়তন
১৯৫. বর্তমানে (মার্চ, ২০১১)বাংলাদেশের জনসংখ্যা কত?
উত্তর : ১৪.৯৭ কোটি।
১৯৬. প্রতি বর্গ কিমি জনসংখ্যার ঘনত্ব কত?
উত্তর : ১,০১৫ জন।
১৯৭. বাংলাদেশ কোন অঞ্চলের অন্তর্ভুক্ত?
উত্তর : দ্রুত বর্ধিষ্ণু
১৯৮. বিশ্বের জনসংখ্যার কত ভাগ শহরে বসবাস করে?
উত্তর : ৪০%।
১৯৯. বাংলাদেশে জনপ্রতি কৃষিজমির পরিমাণ কত?
উত্তর : ০.০৫ একর।
২০০. মানুষের দৈনিক গড়ে কত গ্যালন পানি প্রয়োজন?
উত্তর : ৭ গ্যালন
২০১. ঢাকা শহরে দিনে কয় টন বর্জ্য নিচু খোলা জায়গায় ফেলা হয়?
উত্তর : ৯০০ টন।
২০২. মহাদেশীয় ভূত্বকের কত ভাগ পাললিক শিলা?
উত্তর : ৭৫ ভাগ।
২০৩. পামীর মালভূমিতে কত সালে ভূপাতের ফলে কোথায় ভূমিকম্প হয়?
উত্তর : ১৯১১ সাল, তুরস্কে।
২০৪. দিবং নদীর গতি পরিবর্তিত হয় কত সালে?
উত্তর : ১৯৫০ সালে।
২০৫. Tsunami কোন শব্দ? এর অর্থ কী?
উত্তর : জাপানি, পোতাশ্রয়ের ঢেউ।
২০৬. Tsunami কে আরও কী নামে অভিহিত করা হয়?
উত্তর : Wave of train.
২০৭. প্রবহমান দুটি নদীর মধ্যবর্তী ভূমিকে কী বলে?
উত্তর : দোয়াব।
২০৮. যমুনা নদীর উপনদী কোনটি?
উত্তর : তিস্তা ও করতোয়া।
২০৯. নদী উপত্যকার গুলদেখাকে কী বলে?
উত্তর: নদীগর্ভ।
২১০. পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ গিরিখাত কোনটি?
উত্তর : সিন্ধু নদের গিরিখাত।
২১১. সেন্ট লরেন্স নায়াগ্রা জলপ্রপাত কোথায়?
উত্তর : উত্তর আমেরিকা।
২১২. ব-দ্বীপকে ইংরেজিতে কী বলে?
উত্তর : Delta
২১৩. সমগ্র ভূমিরূপ কয়টি ভাগে বিভক্ত ও কী কী?
উত্তর : ৩টি, পর্বত, মালভূমি ও সমভূমি।
২১৪. পর্বত কয় প্রকার?
উত্তর : ৪ প্রকার।
২১৫. ভঙ্গিল পর্বতগুলোর নাম লিখ?
উত্তর : হিমালয়, আল্পস, রকি।
২১৬. ভঙ্গিল পর্বতের প্রধান বৈশিষ্ট্য কী?
উত্তর : ভাঁজ।
২১৭. আগ্নেয় পর্বতের উদাহরণ দাও।
উত্তর : ভিসুভিয়াস, কিলিমানজারো, ফুজিয়ামা।
২১৮. ল্যাকোলিথ পর্বত কোনটি?
উত্তর : USA ল্যাকোলিথ।
২১৯. সমভূমি কত প্রকার ও কি কি?
উত্তর : ২ প্রকার, ক্ষয়জাত ও সঞ্চয়জাত।
২২০. বায়ুতে নাইট্রোজেন ও অক্সিজেনের পরিমাণ কত?
উত্তর : ৭৮.০২ ও ২০.৭১%
২২১. বায়ুমণ্ডলের স্তর কয়টি?
উত্তর : ৬টি।
২২২. কোনগুলো আবহাওয়া ও জলবায়ুর উপাদান?
উত্তর : বায়ুর তাপ, চাপ, প্রবাহ, আদ্রতা ও বারিপাত।

<<< জেনে নিন কিছু গুরুত্বপূর্ন শব্দার্থ >>>

¤¤ Autobiography - আত্নজীবনী
¤¤ Bibliography - পুস্তক বিবরনী
¤¤ Biography - জীবন বৃত্তান্ত
¤¤ Cartography - মানচিত্র অংকন
¤¤ Calligraphy - সুন্দর হস্তাক্ষর বিদ্যা
¤¤ Cosmography - বিশ্ব গঠনতন্ত্র
¤¤ Cryptography - গোপন লেখা বা কোড তৈরির পদ্ধতি
¤¤ Demography - একটি জাতির অপরিহার্য পরিসংখ্যান সম্বন্ধীয় বিদ্যা
¤¤ Geography - ভূগোল
¤¤ Lithography - পাথরে লিখে তা হতে ছাপ নেওয়ার কৌশল
¤¤ Lexicography - অভিধান রচনা
¤¤ Orthography - বানান কৌশল
¤¤ Photography - আলোকচিত্র গ্রহন
¤¤ Pornography - অশ্লীল রচনা
¤¤ Seismography - ভূকম্পন বিদ্যা
¤¤ Stenography - সাংকেতিক লিখন পদ্ধতি
¤¤ Topography - নিয়মসম্মত স্হান বিবরনী
¤¤ Typography - মুদ্যাংকন বিদ্যা
¤¤ Telegraphy - তরিত্‍ বার্তা বিদ্যা
¤¤ Xylography - কাঠে খোদাই করার বিদ্যা
আলোচ্য সাহিত্যিকঃ♦John Dryden ও তাঁর সাহিত্যকর্ম।

সাহিত্যিকের নামটি খেয়াল করুন – Dryden। আচ্ছা Dry মানে কী? শুকনো অর্থাৎ শুকিয়ে যাওয়া। যারা বেশি কথা বলে, অন্যের সমালোচনা করে তাদের সবসময় কথা বলতে বলতে গলা শুকিয়ে যায়। এই সাহিত্যিক ও সমালোচনা করতেন। কার সমালোচনা করতেন জানেন? ভারতীয় সম্রাটের মনে যে সবার জন্য ভালোবাসা আছে এটা নিয়েই সমালোচনা করতেন। কী করতেন? সমালোচনা ( criticise) করতেন। এজন্যই ওনাকে বলা হয় “Father of English Criticism “।
এত সমালোচনা করতেন যে কথা বলতে বলতে গলাটাই শুকিয়ে যেত। এজন্য নামের সাথেই যুক্ত আছে Dry শব্দটি। দেখলেই চিনে যাবেন তিনিই “Father of English Criticism “।
আচ্ছা তিনি কার সমালোচনা করতেন বললাম? ভারতীয় সম্রাট (Indian Emperor) এর মনে যে সবার জন্য ভালোবাসা (all for love) আছে এটা নিয়েই তিনি সমালোচনা করে লিখলেন ২টি নাটকঃ
>> Indian Emperor
>> all for love
কিন্তু জানেনই তো যারা বেশি কথা বলে তারা খুব চিন্তা করতে পারেনা। খালি অন্যের সমালোচনা করে, এটা তাদের অভ্যাস।
এই যে বললাম, যারা বেশি কথা বলে তারা খুব চিন্তা করতে পারেনা। এটা আমি সত্যজিৎ এর কাছে থেকে শুনে তিনি লিখে দিলেন বিখ্যাত উক্তিটি “They think too little, who talk to much ” একটু আগে বললাম না, এটা তাদের অভ্যাস, সমালোচকের অভ্যাস। এটা অবশ্য পরে তিনি নিজেই স্বীকার করে বলেছেন – we first make our habits, than habits make us.
উপরের কাল্পনিক কথাগুলো শুধু মনে রাখার জন্যই বললাম। আসুন এবার গল্প থেকে এই সাহিত্যিক সম্পর্কে কী কী জানলাম দেখেনিই একনজরে।
|| John Dryden:
> Father of English Criticism.
|| Famous play:
>> Indian Emperor
>> all for love
||Quotes:
>> They think too little, who talk to much
>> we first make our habits, than habits make us.

সাহিত্য পত্রিকার সম্পাদক এর নাম মনে রাখার কৌশল

সুরেশের মতো সমাজপতি হয় এখানে,
সাধনা – সুধীন্দ্রনাথ ঠাকুর – ১৮৯১
হিতকরী – মীর মোশাররফ – ১৮৯০ ( আজীজন নাহার – ১৮৭৪)
মিহির – শেখ আ: রহিম – ১৮৯২
সুধাকর – শেখ আ: রহিম – ১৮৮৯
সাহিত্যে – সুরেশ চন্দ্র সমাজপতি
ইসলাম প্রচারক রেয়াজুদ্দীন জ্ঞানান্বেষণে দক্ষিণের কাঙ্গাল গ্রামে যায়, সেখানে সে ওয়াজেদের সাথে এ যুগেরবানী বুলির মতো করে ছাড়ে যা জনগন গনবাণী ভাবে কমরেড মোজাফফর এর মতো যা কিছুটা যুদ্ধাপরাধীর সাঈদীর কন্ঠস্বরের মতো, এই কন্ঠমালা শুনে বিপ্লবী রনেশ ক্লান্তি এসে পড়ে, তাই সে বুদ্ধ দেবের কবিতা শুনে, নায়কের সঞ্জয় দওের মতো আশা জাগিয়ে তুলে।। এখানে,
ইসলাম প্রচারক – মো : রেয়াজুউদ্দীন আহমেদ
জ্ঞানান্বেষণ – দক্ষিণারঞ্জন মুখোপাধ্যায়
গ্রামবার্তা প্রকাশিকা – কাঙ্গাল হরিনাথ ( মফস্বল হতে প্রথম, কুষ্ঠিয়া, কুমারখালী)
সাম্যবাদী – মো: ওয়াজেদ আলী
যুগবাণী – বুলি > মুকবল হোসেন চৌধুরী
গনবাণী – কমরেড মুজাফফর
কন্ঠস্বর – আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ
ক্রান্তি – রনেশ দাশগুপ্ত
কবিতা – বুদ্ধদেব বসু
আশা > পূর্বাশা – সঞ্জয় ভট্রাচার্য
★ নজরুলের : নবযুগ ( ১৯২০ তবে মোজাফফর ও ছিলেন সাথে), ধুমকেতু (১৯২২), লাঙল (১৯২৫)- পরিচালক বাট সম্পাদক মণিভূষণ, দৈনিক নবযুগ ( ১৯৪১)
মো: আকরাম খাঁ : মোহাম্মদী ( সাপ্তাহিক -১৯০৮, দৈনিক -১৯২২, মাসিক – ১৯২৭), আল এসলাম (১৯১৫), দৈনিক সেবক ( ১৯২১), দৈনিক আজাদ ( ১৯৩৫)
মো: নাসিরুদ্দিন : সওগাত ( মাসিক – ১৯১৮, সাপ্তাহিক – ১৯২৮) 
মো শহীদুল্লাহ : আঙগুর ( ১৯২০, কিশোর মাসিক) বঙ্গীয় মুসলমান সাহিত্যে পএিকা ( ১৯১৮ তবে সাথে ছিলেন মোজাম্মেল হক যার অন্যতম সম্পাদনা # মোসলেম_ভারত – ১৯২০)
রাজা রামমোহন : সম্বাদ কৌমুদী, ব্রাম্মণসেবধি (১৮২১)
ঈশ্বর চন্দ্র গুপ্ত : সম্বাদ প্রভাকর ( বাংলায় ভাষায় প্রথম পএিকা) ( সাপ্তাহিক -১৮৩১, দৈনিক – ১৮৩৯)
১৮১৮ সালে প্রকাশিত :
মাশম্যানের মাসিক দিগদর্শন( হুগলীর শ্রীরামপুর মিশন হতে প্রকাশ ম্যাশম্যানের ২ টি পএিকা ) ও সমাচার দর্পণ( ১৮৪০ সাল পর্যন্ত চলে), গঙাকিশোর এর বাঙগাল গেজেট (১৬ ই মে) যা প্রথম ভারতীয় তথাপি বাঙগালী কতৃক পএিকা।
বাঙগাল গেজেট : ১৭৮০ সালে ২৯ সে জানুয়ারী কলকাতা থেকে প্রকাশিত প্রথম মুদ্রিত পএিকা যা ১৭৮২ সালে এই পএিকাটির অপমৃত্যু ঘটে।।
প্রথম মুসলমান সম্পাদক : ৭ ই মার্চ ১৮৩১ সালে ‘ সমাচার সভারাজেন্দ্র’ – যা ছিলো বাংলা – পারসি ভাষায় – কলকাতার কলিংগা থেকে- আলিমুল্লাহ,
কিছু কিছু অন্যতম পএিকা :
বঙগদূত – নীলমনি হালদার (১৮২৯)*
তত্ত্ববোধনী – অক্ষয় কুমার দও ( ১৮৪৩)**
মাসিক – প্যাঁরীচাদ ও রাধানাথ ( ১৮৫৪)*
ভারতী – দ্বিজেন্দ্রনাথ ঠাকুর (১৮৭৭)**
আখবারে এসলামীয়া – নইমউদ্দীনন 
কোহিনুর – রওশন আলী ( ১৮৯৮) **
নারায়ণ – দেশবন্ধু চিওরঞ্জন
সবুজপত্র – প্রমথ ( ১৯১৪) ****
কল্লোল – দীনেশরঞ্জন (১৯২৩) *** 
কালিকলম – প্রেমেন্দ্র (১৯২৬) ** 
দৈনিক ছোলতান – মনিরুজ্জামান ইসলামবাদী
প্রগতি – বুদ্ধদেব ও অজিত ( ১৯২৭) **
শিখা – আবুল হোসেন ( ১৯২৭) *****
নওরোজ – আফজাল
জয়তী – কাদির *
পরিচয় – সুধীন্দ্রনাথ (১৯৩১) **
সমকাল – সিকানদার আবু জাফর (১৯৫৭)***
পূর্বমেঘ – জিল্লুর সিদ্দিকী ও মুস্তফা নূরউল*
স্বাক্ষর – রফিক আজাদ ও আমিনুল
শিল্পকলা – মান্নান সৈয়দ
ইওেফাক – মানিক মিয়া

★জানার জন্য★

১। J.S.C - এর পূর্নরূপ — Junior School Certificate.
২। J.D.C - এর পূর্নরূপ — Junior Dakhil Certificate.
৩। S.S.C - এর পূর্নরূপ — Secondary School Certificate.
৪। H.S.C - এর পূর্নরূপ — Higher Secondary Certificate.
৫। A.M - এর পূর্নরূপ — Ante meridian.
৬। P.M - এর পূর্নরূপ — Post meridian.
৭। B. A - এর পূর্নরূপ — Bachelor of Arts.
৮। B.B.S - এর পূর্নরূপ — Bachelor of Business Studies.
৯। B.S.S - এর পূর্নরূপ — Bachelor of Social Science.
১০। B.B.A - এর পূর্নরূপ — Bachelor of Business Administration
১১। M.B.A - এর পূর্নরূপ — এর পূর্নরূপ — Masters of Business Administration.
১২। B.C.S - এর পূর্নরূপ — Bangladesh Civil Service.
১৩। M.A. - এর পূর্নরূপ — Master of Arts.
১৪। B.Sc. - এর পূর্নরূপ — Bachelor of Science.
১৫। M.Sc. - এর পূর্নরূপ — Master of Science.
১৬। B.Sc. Ag. - এর পূর্নরূপ — Bachelor of Science in Agriculture .
১৭। M.Sc.Ag.- এর পূর্নরূপ — Master of Science in Agriculture.
১৮। M.B.B.S. - এর পূর্নরূপ — Bachelor of Medicine and Bachelor of Surgery.
১৯। M.D. - এর পূর্নরূপ — Doctor of Medicine./ Managing director.
২০। M.S. - এর পূর্নরূপ — Master of Surgery.
২১। Ph.D./ D.Phil. - এর পূর্নরূপ — Doctor of Philosophy (Arts & Science)
২২। D.Litt./Lit. - এর পূর্নরূপ — Doctor of Literature/ Doctor of Letters.
২৩। D.Sc. - এর পূর্নরূপ — Doctor of Science.
২৪। B.C.O.M - এর পূর্নরূপ — Bachelor of Commerce.
২৫। M.C.O.M - এর পূর্নরূপ — Master of Commerce.
২৬। B.ed - এর পূর্নরূপ — Bachelor of education.
২৭। Dr. - এর পূর্নরূপ — Doctor.
২৮। Mr. - এর পূর্নরূপ — Mister.
২৯। Mrs. - এর পূর্নরূপ — Mistress.
৩০। Miss - এর পূর্নরূপ — used before unmarried girls.
৩১। M.P. - এর পূর্নরূপ — Member of Parliament.
৩২। M.L.A. - এর পূর্নরূপ — Member of Legislative Assembly.
৩৩। M.L.C - এর পূর্নরূপ — Member of Legislative Council.
৩৪। P.M. - এর পূর্নরূপ — Prime Minister.
৩৫। V.P - এর পূর্নরূপ — Vice President./ Vice Principal.
৩৬। V.C- এর পূর্নরূপ — Vice Chancellor.
৩৭। D.C- এর পূর্নরূপ — District Commissioner/ Deputy Commissioner.
৩৯। S.P- এর পূর্নরূপ — Police Super.
৪০। S.I - এর পূর্নরূপ — Sub Inspector Police.
১। প্রকৃতির রানী- খাগড়াছড়ি
২। পাহাড়ি কন্যা- বান্দরবান
৩। নদীমাতৃক দেশ- বাংলাদেশ
৪। ভাটির দেশ- বাংলাদেশ
৫। সোনালী আঁশের দেশ- বাংলাদেশ
৬। মসজিদের শহর- ঢাকা
৭। রিক্সার নগরী- ঢাকা
৮। ৩৬০ আউলিয়ার দেশ- সিলেট
৯। বারো আউলিয়ার দেশ- চট্রগ্রাম
১০। বাণিজ্যক রাজধানী- চট্টগ্রাম
১১। বাংলাদেশের প্রবেশ দ্বার- চট্টগাম বন্দর
১২। উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার- বগুড়া
১৩। পশ্চিমাবাহিনীর নদী- ডাকাতিয়া বিল
১৪। বাংলার শস্যভাণ্ডার- বরিশাল
১৫। বাংলার ভেনিস- বরিশাল
১৬। হিমালয়ের কন্যা- পঞ্চগড়
১৭। সাগর কন্যা- কুয়াকাটা, পটুয়াখালী
১৮। সাগর দ্বীপ- ভোলা
১৯। কুমিল্লার দুঃখ- গোমতী
২০। পর্যটন রাজধানী- কক্সবাজার
২১। প্রাচ্যের ডান্ডি- নারায়ণগঞ্জ
২২। বাংলাদেশের কুয়েত বলা হয়- খুলানা (চিংড়ি চাষের জন্য)
২৩। চট্টগ্রামের দুঃখ- চাকতাই খাল
* বাংলাদেশের সর্ব পূর্বের উপজেলা কোনটি?
# থানচি।
* আয়তনের দিক দিয়ে বাংলাদেশের বৃহত্তম থানা কোনটি?
# শ্যামনগর ।
* পৃথিবীর বৃহত্তম জীবন্ত ব-দ্বীপ কোনটি?
# বাংলাদেশ ।
* বাংলাদেশের সবচেয়ে উচু পাহাড় কোনটি?
# গারো_পাহাড় ।
* লালমাই পাহাড় কোথায় অবস্থিত?
# কুমিল্লা।
* বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ কোনটি?
# তাজিওডাং_ (বিজয়) উচ্চতা 1231 মিটার।
* বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ-
# কেওক্রাডাং । উচ্চতা 1230 মিটার।
* দুবলার চর কোথায় অবস্হিত?
# নোয়াখালী ।
* কোন জেলায় চর মানিক ও চর জব্বার অবস্হিত?
# ভোলা জেলার।
* বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস?
# ১_জুলাই ।
* বাংলাদেশ ও ভারতকে বিভক্তকারী নদী?
# হাড়িয়াভাঙ্গা।
* সবচেয়ে বড় বিভাগ কোনটি?
# চট্টগ্রাম ।
* সবচেয়ে ছোট বিভাগ কোনটি?
# সিলেট।
* অায়তনে বড় জেলা কোনটি?
# রাঙামাটি ।
* অায়তনে ছোট জেলা কোনটি?
# Narayanganj
* জনসংখ্যায় বড় জেলা কোনটি?
# ঢাকা ।
* জনসংখ্যায় ছোট জেলা কোনটি?
# বান্দরবন ।
* আয়তনে বড় থানা কোনটি?
# শ্যামনগর (সাতক্ষীরা)
* জনসংখ্যায় বড় থানা কোনটি?
# বেগমগঞ্জ (নোয়াখালী)।
* জনসংখ্যায় ছোট থানা কোনটি?
# রাজস্থলী (রাঙামাটি)।
* বাংলাদেশের সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম থানা (আয়তনে) কোনটি?
# ওয়ারী থানার। (Update: Wikipedia: লালবাগ: ঢাকা বিভাগের ঢাকা জেলার একটি থানা। ২০১১ সালের আদমশুমারী অনুসারে এর ২.২ কি.মি. এলাকায় রয়েছে ৩৬৯,৯৩৩ জন। & ২০১২ সালের ৩ এপ্রিল ঢাকার ৪২তম থানা হিসেবে ওয়ারী থানার কার্যক্রম শুরু হয়। ওয়ারী বিভাগের সূত্রাপুর থানাকে ভেঙ্গে ১ দশমিক ৮০ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে গড়ে উঠেছে নতুন থানা ওয়ারী।)
১। 'সূর্য কন্যা' বলা হয় কোন সমুদ্র সৈকতকে? উঃ কুয়াকাটাকে।
২। 'পৃথিবীর ফুসফুস' বলা হয় কাকে? উঃ আমাজনকে।
৩। 'কম্পিউটারের পূর্বপুরুষ' বলা হয় কাকে? উঃ আবাকাস নামক গণনাকারী যন্ত্রকে।
৪। পাহাড়ী কন্যা বলা হয় কোন জেলাকে? উঃ বান্দরবনকে।
৫। কোন জেলাকে হিমালয়ের কন্যা বলা হয়? উঃ পঞ্চগড়কে।
৬। বাংলাদেশের পর্যটন রাজধানী বলা হয় কাকে? উঃ কক্সবাজার।
৭। কোন জাতীয় গাছ সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পায়? উঃ বাঁশ জাতীয় গাছ ।
৮। বাংলাদেশের কোন বিভাগে সবচেয়ে বেশি বন আছে? উঃ চট্টগ্রামে।
৯। সবচেয়ে বেশি পাহাড় পর্বত আছে কোন দেশে? উঃ নেপাল।
১০। পৃথিবীর কোন নদীর পানি সবচেয়ে বেশি স্বচ্ছ? উঃ লবক নদী।

সাধারণ জ্ঞান

১.প্রশ্ন: বাংলা নববর্ষ কে প্রথম চালু করেন?
উত্তর: সম্রাট আকবর
২.প্রশ্ন: বাংলা নববর্ষ ইংরেজী কত সালে প্রথম শুরু হয়?
উত্তর: ১১ এপ্রিল ১৫৫৬ সালে।
৩. প্রশ্ন : মহাস্থানগড় জাদুঘর কোথায় অবস্থিত?
উত্তর : বগুড়া।
৪. প্রশ্ন : জয়নুল আর্ট গ্যালারি কোথায় অবস্থিত?
উত্তর : ময়মনসিংহ।
৫. প্রশ্ন : বাংলাদেশের একমাত্র প্রাণী জাদুঘর কোথায় অবস্থিত?
উত্তর : মিরপুর, ঢাকা।
৬. প্রশ্ন : দুর্ভিক্ষের উপর ‘ম্যাডোনা ৪৩’ ছবিটি কে একেঁছেন?
উত্তর : শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন।
৭. প্রশ্ন : প্রখ্যাত ‘তিন কন্যা’ ছবিটি কে একেঁছেন?
উত্তর : কামরুল হাসান।
৮. প্রশ্ন : বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সংগীতজ্ঞ কে ছিলেন?
উত্তর : ওস্তাদ আয়াত আলী খান।
৯. প্রশ্ন : বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন নৃত্যশিল্পী কে ছিলেন?
উত্তর : বুলবুল চৌধুরী।
১০. প্রশ্ন : বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন পল্লীগীতি শিল্পী কে ছিলেন?
উত্তর : আব্বাস উদ্দিন ও আব্দুল আলীম।
১১. প্রশ্ন : বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন জাদুকর কে?
উত্তর : জুয়েল আইচ।
১২. প্রশ্ন : বাংলাদেশের বিখ্যাত ভাস্কর কে?
উত্তর : শামীম সিকদার।
১৩. প্রশ্ন : বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ কাঠ খোদাই শিল্পী কে?
উত্তর : অলক রায়।
১৪. প্রশ্ন : বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ কার্টুনিস্ট কে?
উত্তর : রফিকুন্নবী (রনবী)।
১৫. প্রশ্ন : বাংলাদেশের সুরসম্রাট কাকে বলা হয়?
উত্তর : ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ।
১৬. প্রশ্ন : বাংলা একাডেমি কবে প্রতিষ্ঠিত হয়?
উত্তর : ০৩ ডিসেম্বর ১৯৫৫।
১৭. প্রশ্ন : পূর্বে বাংলা একাডেমির নাম কী ছিল?
উত্তর : বর্ধমান হাউজ।
১৮. প্রশ্ন : বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী কবে প্রতিষ্ঠিত হয়?
উত্তর : ১৯৭৪।
১৯. প্রশ্ন : শিশু একাডেমী কবে প্রতিষ্ঠিত হয়?
উত্তর : ১৯৭৭ সাল।
২০. প্রশ্ন : বাংলা ভাষার আদি নিদর্শন কী?
উত্তর : চর্যাপদ।
২১. প্রশ্ন : মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর কখন প্রতিষ্ঠিত হয়?
উত্তর : ২২ মার্চ ১৯৯৬।
২২. প্রশ্ন : বিজ্ঞান জাদুঘরটি কোথায় অবস্থিত?
উত্তর : ঢাকার আগারগাঁওয়ে।

The Daily star Editorial : 03-06-16

প্রথমে শব্দার্থগুলো পড়ে নিন

Under the Cosh: নির্যাতনের শিকার (Subjected to pressure) 
Grievance:অভিযোগ(Complaint, Allegation, Discontent)
Aghast:ভীত (Appal, Terrified)
Baton:পুলিশের বেঁটে মোটা লাঠি বিশেষ
Lay siege: অবরোধ করা (to surround a place in order to force)
Disperse:বিক্ষিপ্ত করা, বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়া (Scatter, Dissipate)
Dismay:আতঙ্ক (Panic, Fear, Terror)
Brickbat:ঢিল (Stone)
Altercation:ঝগড়াঝাঁটি, কথা কাটাকাটি (Contention, Dispute)
Deplore:পরিতাপ করা,দুঃখপ্রকাশ করা (Sorrow, Regret)
Demonstrate:প্রদর্শন করা(Show, Display)
Prerequisite:পূর্বে অবশ্য পূরণীয় (something that must exist or happen before something else can exist or happen)

নিত্য প্রয়োজনীয় কিছু ইংরেজি শব্দ:

কি আস্পর্ধা! - How dare !
কি দুঃখ! - What a pity!
কি বাজে বকো! - What nonsense!
কি বুদ্ধি! - What an idea!
কি ভীষণ/ কি ভয়ানক! - How terrible!
কি মিষ্টি! - How sweet!
কি লজ্জার কথা! - What a shame!
নিচে যাও - Go down.
নিশ্চয়ই! - Of course!
নেমে যাও/ নামো - Get down.
বলো - Speak.
এখনি যাও - Go at once.
এখান থেকে চলে যাও - Go away.
এখানে অপেক্ষা কর - Wait here.
এখানে থামো - Stop here.
এটাকে ভেঙো না - Don’t break it.
এদিকে এসো - Come here.
এদিকে দেখো - Look here.
ওরে বাবা! - Oh dear!
কখনই নয় - No, not at all.
কি লজ্জার কথা! - What a shame! 
কি সুন্দর! - How lovely!
কেন হবেনা? / কেন নয়? - Why not?
খুব খুশির খবর! - How joyful!
খুব দুঃখের ব্যাপার! - How sad!
খুবই সুন্দর! - Excellent!
চুপ কর - Keep quiet.
চুপ করুন! - Quiet please/ please keep quiet!
ছিঃ খুব পরিতাপের বিষয়! - How disgraceful!
ছিঃ! - How disgusting!
ঠিক আছে - It’s all right.
ঠিক আছে - It’s fine.
ঠিকই তো! - Yes, it is!
তাই নাকি! - Is it so!
তাড়াতাড়ি কর/ চল! - Hurry up!
# ইংরেজি সাহিত্যের প্রথম মহাকাব্য হল- Beowulf
# ইংরেজি গদ্যের জনক – John Wyclif
# শেক্সপিয়র জন্মগ্রহণ করেন-১৫৬৪ সালে
# শেক্সপিয়র মৃত্যুবরণ করেন- ১৬১৬ সালে
# শেক্সপিয়র নাটক লিখেছেন – ৩৭ টি।
# William Wordsworth এর উপাধি হল- The Poet of Nature.
# John Keats এর উপাধি হল- The Poet of Beauty.
# John Milton এর উপাধি হল- English Epic Poet.
# George Orwell এর মূল নাম হল- Eric Arthur Blair
# George Eliot এর মূল নাম হল-Mary Ann Evans.
# P .B. Shelley কে Oxford University থেকে বহিস্কার করা হয়েছিল।
# ইংরেজি উপন্যাসের জনক- Henry Fielding
# T .S. Eliot কে তার বিখ্যাত কবিতা ‘The Waste Land’ এর জন্য নোবেল পুরস্কার পেয়েছিল
# John Keats পেশাগতভাবে একজন ডাক্তার ছিলেন।
# Winston Churchill ছিলেন এমন একজন প্রধানমন্ত্রী যিনি সাহিত্যে নোবেল পেয়েছিলেন।
বিভিন্ন ভাষার শব্দ মনে রাখার শর্টকাট টেকনিক

পর্তুগীজ শব্দ মনে রাখার একটি কৌশলঃ
গীর্জারপাদ্রী চাবি দিয়ে গুদামের আলমারি খুলে তাতে আনারস পেঁপে পেয়ারা আলপিন ও আলকাতরা রাখলেন।কেরানি দিয়ে কামরা পরিষ্কার করে জানালা খুলে দিলেন। তারপর পেরেক ইস্ত্রি ইস্পাত ও পিস্তল বের করে বালতিতে রেখে বোমা বানালেন।
Pineapple guava and papaya with the Warehouse, opened the cupboard key girjarapadri pin and clean room with tar rakhalenakerani opened the window . Then the nail bomb in dress made of steel and the pistol out of the bucket .
শব্দ
গির্জা , চাবি , গুদাম ,আলমারি , আনারস , পেঁপে ,পেয়ারা, আলপিন , আলকাতরা, কেরানি ,কামরা, জানালা, পেরেক ,ইস্ত্রি ,ইস্পাত , পিস্তল , বালতি, টুপি , সাবান, বোতাম ,পুউরুটি , মিস্রি ,পেরেক, ইংরেজ ,নিলাম ও বেহালা ইত্যাদি ।
কিছু তুর্কি শব্দ মনে রাখার কৌশলঃ
বিবি বেগম কোর্মা খায় বাহাদুর দেশচালায়। দারোগা বাবু তাকিয়ে দেখে গালিচায়কুলির লাশ। চাকু হাতে বাবুর্চি তাইদেখে হতবাক।সুলতান মাহমুদ বন্দুকনিয়ে দৌড়ে পালায় ।
শব্দ
বাবা, দারোগা, কুলি, লাশ, চাকু, বাবুর্চি , সুলতান, বন্দুক , বারুদ , চাকর, মুচলেখা ।
আরবি শব্দ মনে রাখার কৌশল
আরবে ইসলামে বিশ্বাসী ঈমানদার ওযু গোসল করে হাদিস কোরয়ান তসবি পড়ার পর হজ যাকাত ও কোরবানী করে হারাম হালাল ও আল্লাহর পথ মেনে চলে জান্নাত লাভ ও জাহান্নাম হতে মুক্তির জন্য। উকিল মোক্তার মক্কেল, মুন্সেফ কিতাব,কানুন, দোয়াত,কলম নিয়ে মহকুমা আদালতে এজলাসে বসে রায় খারিজ করেন। ঈদের দিন আলেম এলেম, ইনসান বলে মুসাফির লেবুর ব্যবসায় লোকসানে আছি। বাকির ওজর কেচ্ছা দালালি বাদ দিয়ে নগদ দাও।
আরবি শব্দ :
ঈমানদার, ওযু, গোসল, হাদিস, কোরয়ান, তসবি, হজ, যাকাত, কোরবানী, হারাম, হালাল, আল্লাহ, জান্নাত,জাহান্নাম, উকিল, মোক্তার, মক্কেল, মুন্সেফ, কিতাব,কানুন, দোয়াত,কলম,মহকুমা, আদালত, এজলাস, রায়, ঈদ, আলেম, এলেম, ইনসান, মুসাফির, লেবু, ব্যবসা, লোকসান, বাকি, ওজর, কেচ্ছা, দালালি ও নগদ
মায়ানমার (বর্মি) শব্দ মনে রাখার টেকনিককরলেন।
বর্মিরা লুঙ্গি ফুঙ্গি পছন্দ করে।
*** লুঙ্গি ,ফুঙ্গি ***
পাঞ্জাবি শব্দ মনে রাখার টেকনিক
শিখদের কাছে পাঞ্জাবির চাহিদা অনেক।
দেশি শব্দ মনে রাখার কৌশল
এক গঞ্জের কুড়ি ডাগড় টোপরমাথায় দিয়ে চোঙ্গা হাতে পেটের জ্বালায়চুলা কুলা ডাব ও ডিংগা নিয়ে টং এর মাচায়উঠল।
শব্দ
গঞ্জ , কুড়ি, ডাগড়, টোপর, চোঙ্গা, চুলা, কুলা, ডাব, ডিংগা, টং ,মাচা ইত্যাদি ।
ফারসি শব্দ
ফরিয়াদি সালিশের জন্য মুনশীর জন্য কাছে নালিশ করতে গেলে বেগম বাদশাহ, জমিদার আসামীকে জরিমানা ও খাজনা দিতে বলল। আফসোস, আলুর আমদানী রপ্তানী কম হওয়ায় বাগান থেকে বস্তা ভরে মরিচ, সবজি, পশম নিয়ে পাইকারী বিক্রেতা চশমা পরা চশমখোরের কারসাজিতে বদমাস জানোয়ার সুজমিয়ার আস্তানাতে নিয়ে গেল।
ফরাসি শব্দ
বুর্জোয়া ইংরেজ ও দিনেমাররা জাহাজে বসে ক্যাফেতে পিজা ও বিস্কুট খেতে খেতে রেস্তোরার পাশে গ্যারেজে ম্যাটিনির রেনেসা দেখবে বলল।
ওলন্দাজ শব্দ মনে রাখার কৌশল
ওলন্দাজরা ইস্কাপন , টেক্কা , তুরুপ , রুইতন , হরতন দিয়ে তাস খেলে
শব্দ
ইস্কাপন , টেক্কা , তুরুপ , রুইতন , হরতন , চিরাতন , ইস্কুল

কৃষি বিষয়ক কিছু সংস্থার অবস্থান:

✬ বাংলাদেশ রাবার বোর্ড - চান্দগাঁও, চট্টগ্রাম।
✬ বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট - জয়দেবপুর, গাজীপুর।
✬ বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট - জয়দেবপুর, গাজীপুর।
✬ তৈলবীজ গবেষণা কেন্দ্র - জয়দেবপুর, গাজীপুর।
✬ বাংলাদেশ পাট গবেষণা ইনস্টিটিউট - মানিক মিয়া এভিনিউ, ঢাকা।
✬ বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট - সাভার, ঢাকা।
✬ বাংলাদেশ ইক্ষু গবেষণা ইনস্টিটিউট - ঈশ্বরদী, পাবনা।
✬ বাংলাদেশ ডাল গবেষণা কেন্দ্র - ঈশ্বরদী, পাবনা।
✬ বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউট - শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
✬ বাংলাদেশ রেশম গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট - রাজশাহী।
✬ বাংলাদেশ আম গবেষণা কেন্দ্র - চাঁপাইনবাবগঞ্জ।
✬ বাংলাদেশ গম গবেষণা কেন্দ্র - নশিপুর, দিনাজপুর।
✬ বাংলাদেশ মসলা গবেষণা কেন্দ্র - শিবগঞ্জ, বগুড়া।
✬ বাংলাদেশ তাঁত শিল্প ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট - নরসিংদী।
✬ বাংলাদেশ পরমানু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট -ময়মনসিংহ।

অনান্যঃ

**ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল আইসিসির নতুন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন ভারতের শশাঙ্ক মনোহর।
**মরক্কোর আল কারাওইন বিশ্ববিদ্যালয় (University of Al Quaraouiyine) বিশ্বের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয়
***৮৫৯ খ্রিস্টাব্দে ফাতিমা আল-ফিহরি এটি প্রতিষ্ঠা করেন।
***বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহর ইরানের জাবল

ইংরেজী বানান মনে রাখার কৌশলঃ

1. Lieutenant (লেফটেনেন্ট) ➫ সামরিক কর্মী। ✎ Lie u ten ant ➫ মিথ্যা তুমি দশ পিপড়া।
2. Psychological (সাইকোলজিক্যাল) ➫ মনস্তাত্ত্বিক। ✎ Psy cholo gi cal ➫ পিসি চলো যাই কাল।
3. Assassination (এ্যাসএ্যাসিনেশন) ➫ গুপ্তহত্যা। ✎ Ass ass i nation -গাধার উপরে গাধা, তার উপরে আমি, আমার উপরে জাতি।
4. Questionnaire ➫ প্রশ্নমালা। ✎ Question nai re ➫ কোশ্চেন নাই রে।
5. Assessment ➫ কর নির্ধারণ। ✎ Ass e ss men t ➫ গাধায় ই ডাবল ss মানুষেতে নাই।
6. Hallucination ➫ অমুলক / অলীক কিছু দেখা বা তাতে বিশ্বাস। ✎ Hall u ci nation-হলে তুমি! ছি জাতি।
7. Diarrhoea ➫ উদারাময়। ✎ Dia rr hoea ➫ ডায়াল করো ডাবল rr হোয়ে যাবে।
8. Bureaucracy ➫ আমলাতন্ত্র। ✎ Burea u cracy ➫ বুড়িয়া তুমি cracy.
9. Restaurant ➫ রেস্টুরেন্ট। ✎ Rest a u r ant ➫ বিশ্রাম এ তুমি আর পিপড়া।
10. Parallel ➫ সমান্তরাল। ✎ Par all e l ➫ পার করো সকলকে ই।
11. Illegitimate ➫ অবৈধ। ✎ Illeg i tim ate ➫ অসুস্থ পায় আমি টিম খেয়েছিলাম।
12. Miscellaneous ➫ বিবিধ। ✎ Mis cell an e o us-মিস করলে একটি সেলে ই ও আমাদের সাথে থাকবে। (cell-ক্ষুদ্র কক্ষ)।
1.ক্রিকেট খেলার জন্ম কোথায়?
Ans.ইংল্যান্ডে
2.ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার নাম কি?
Ans..ICC
3.ICC প্রতিষ্টিত হয় কখন?
Ans.১৯০৯
4.ICC এর বর্তমান সদস্য দেশ কয়টি
Ans.১০৬টি
5.১৯৯৭ সালে ICC চ্যাম্পিয়ন কোন দেশ?
Ans.বাংলাদেশ
6.টেস্ট ক্রিকেট শুরু হয় কবে
Ans.১৮৭৭
7.টেস্ট এবং ওয়ানডে মিলে সর্বোচ্ছ উইকেট শিকারী কে?
Ans.মুরালিধরন(শ্রীলংকা) 
8.টেস্ট ও ওয়ানডে ক্রিকেটে শততম শতক করেন কে?
Ans.শচীন টেন্ডুলকার(ভারত)
9.টেস্ট ক্রিকেটের ১৩৬ বছরের ইতিহাসে এক ম্যাচে হ্যাটট্রিক সেঞ্চুরি কে করেন
Ans.সোহাগ গাজী(বাংলাদেশ) 
10.ওয়ান ডে ম্যাচ শুরু হয় কবে
Ans.১৯৭১
11. বিশ্বকাপ ক্রিকেট শুরু হয় কখন?
Ans.১৯৭৫
12.বিশ্বকাপ ক্রিকেটের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কে?
Ans.অস্ট্রেলিয়া
13.২০১৯ সালে ক্রিকেট বিশ্বকাপ কোথায় হবে?
Ans.ইংল্যান্ডে
15.প্রথম T-20 বিশ্বকাপ কখন হয়?
Ans.২০০৭
16.২০১৬ সালে T-20 ক্রিকেট কোথায় হয়
Ans.ভারতে
17.বাংলাদেশ ওয়ানডে মর্যাদা লাভ করে কবে?
Ans.১৯৯৭
18.বাংলাদেশ টেস্ট মর্যাদা লাভ করে কবে?
Ans.২০০০
19.বাংলাদেশ প্রথম টেস্ট ম্যাচ খেলে কার সাথে?
Ans.ভারত
20.বাংলাদেশের ক্রিকেটের বর্তমান কোচ কে
Ans. চন্ডিকা হাতুড়ে সিংহে
21.বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট অধিনায়ক কে?
Ans.নাঈমুর রহমান দুর্জয়
22.বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ টেস্ট সেঞ্চুরীয়ান কে
Ans.আশরাফুল(বাংলাদেশ) 
23.ICC চ্যাম্পিয়ন ট্রফি কি হিসাবে পরিচিত
Ans.ক্রিকেটের ২য় বিশ্বকাপ
24.২০১৬ এশিয়া কাপ ক্রিকেট কোথায় হয়?
Ans.বাংলাদেশে
25.২০১৭ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফি কোথায় হয়?
Ans.ইংল্যান্ডে

26.২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফির চ্যাম্পিয়ন কোন দেশ? উ.পাকিস্তান(রানার্স -আাপ ভারত) মজায় মজায় ইংরেজি শেখা


1. why=কেন,cain=হত্যাকারি
2.fruit=ফল,fall=পড়ে যাওয়া
3.Egg=ডিম,Dim=ঝাপসা
4.Sister=বোন,Bone=হাঁড়
5.Green coconut=ডাব,Dove=ঘুঘু
6.Falcon=বাজ পাখি,Buzz=ভন ভন শব্দ
7.Fish=মাছ,Much=অনেক
8.Fist=কিল,Kill=হত্যা করা
9.Island=দ্বীপ,Dip=ডুব দিয়ে উঠা
10.What=কী,Key=চাবি
11.Trap=ফাঁদ,Fad=শখ
12.Four=চার,Char=পুঁড়িয়ে অঙ্গার করা

ডাক যোগাযোগ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান !! _______________________

√ বাংলাদেশের প্রথম ডাকটিকিট প্রকাশিত হয়- ২০ জুলাই , ১৯৭১
√ প্রথম ডাকটিকিটে ছবি ছিল- বাংলাদেশের মানচিত্রের
√ স্বাধীনতার পর স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম ডাকটিকিট প্রকাশিত হয়- ২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৭২
√ স্বাধীনতার পর প্রথম ডাকটিকিটের ডিজাইনার ছিলেন- বিমান মল্লিক
√ স্বাধীনতার পর প্রথম ডাকটিকিটে ছবি ছিল- বাংলাদেশের মানচিত্র
√ ১৯৭২ সালের ২৬ মার্চ প্রকাশিত ডাকটিকিটে ছিল- আগুনের ফুলকি
√ বাংলাদেশে পোস্ট কোড চালু হয়- ১৯৮৬ সালে
√ স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম ডাকঘর- চুয়াডাঙায়
√ ডাক বিভাগের মনোগ্রাম- একজন ধাবমান রানারের কাঁধে চিঠির ব্যাগ ঝোলানো, হাতে একটা বল্লম,মাথায় প্রজ্বলিত লণ্ঠন
√ ডাক বিভাগের শ্লোগান- সেবাই আদর্শ
√ ডাক বিভাগের সদর দপ্তর- ঢাকায়
√ ডাক যাদুঘর- ঢাকার জিপিওতে
√ একমাত্র পোস্টাল একাডেমি- রাজশাহীতে
√ GEP চালু হয়- ১৯৮৪
√ EPP চালু হয়- ২০০০
√ ডাক যোগাযোগ নেই- ইসরায়েলের সঙ্গে

‪ ‎বিষয়ঃ বিল‬,হাওর,বাওর

  • ‪‎আড়িয়াল‬ বিল অবস্থিত – মুন্সিগঞ্জে
  • ‪ ‎ চলন‬ বিলের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত নদি – আত্রাই
  • ‪ ‎বাংলাদেশের‬ ‘পশ্চিমা বাহিনীর নদী’ বলা হয় – বিল ডাকাতিয়াকে
  • ‪ ‎ টাঙ্গুয়ার‬ হাওর অবস্থিত – সুনামগঞ্জে
  • বাংলাদেশের সর্বোচ্চ স্বাদু পানির হৃদ – বগা লেক (বান্দরবান)
  • ‪ ‎ দেশের‬ দ্বিতীয় বৃহত্তম কৃত্রিম লেক – মহামায়া (চট্টগ্রাম)
  • বাংলাদেশের বৃহত্তম বিল – চলন বিল
  • বাংলাদেশের মিঠাপানিত মাছের প্রধান উৎস – চলন বিল
  • ‪ ‎ বিল‬ ডাকাতিয়া অবস্থিত – খুলনা জেলার ডুমুরিয়ায়
  • ‪ ‎ তামাবিল‬ অবস্থিত – সিলেটে
  • ‪ ‎ চট্টগ্রামের‬ পাহাড়তলীতে অবস্থিত – ফয়’স লেক
  • বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ হাওর – হাকালুকি হাওর
  • ‪ ‎ বিশ্বের‬ বৃহত্তম সমুদ্র সৈকত – কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত
  • ‪ ‎ যে‬ সমুদ্র সৈকতে সূর্যোদয় ও সুর্যাস্ত দেখা যায় – কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত
  • বাংলাদেশের সমুদ্র সৈকত দুটি – চট্টগ্রাম ও মংলা
  • ‪ ‎ পাথর‬ সমৃদ্ধ ‘ইনানি বিচ’ অবস্থিত – কক্সবাজারে
  • ‪ ‎ কুয়াকাটা‬ সমুদ্র সৈকতকে বলা হয় – সাগর কন্যা
  • ‪ ‎ চট্টগ্রাম‬ সমুদ্র বন্দর অবস্থিত – কর্ণফুলী নদীর তীরে
  • ‪ ‎ কাপ্তাই‬ হৃদ অবস্থিত – রাঙামাটিতে
  • ‪ ‎ মংলা‬ সমুদ্র বন্দর অবস্থিত – পশুর নদীর তীরে
  • কাপ্তাই থেকে প্লাবিত পার্বত্য চট্টগ্রামের উপত্যকা এলাকে বলে – ভেঙ্গী ভ্যালী
  • ‪ ‎ হালদা‬ ভ্যালি অবস্থিত – খাগরাছড়িতে
  • ‘বলিশিরা ভ্যালি’ অবস্থিত – মৌলভিবাজার জেলায়
  • ‘নাপিত খালি ভ্যালি’ অবস্থিত – কক্সবাজার
  • দেশের সবচেয়ে বড় দীঘি – রামসাগর (দিনাজপুর)
  • ‘দূর্গা সাগর’ অবস্থিত – মাধবপাশা, বরিশাল
  • ‪ ‎ মূ্হুরির‬ চর অবস্থিত – পরশুরাম, ফেনী
  • ‪ ‎ দুবলার‬ চর অবস্থিত – সুন্দরবনের দক্ষিণে
  • ‪ ‎ পাটনি‬ চর অবস্থিত – সুন্দরবন
  • ‪ ‎ চর‬ মানিক ও চর জব্বার – ভোলা
  • চর কুকরি মুকরি অবস্থিত – ভোলা
  • চর নিউটন অবস্থিত – ভোলা
  • চর আলেকজেন্ডার অবস্থিত—রামগতি, লক্ষীপুর
  • উড়ির চর অবস্থিত – সন্দ্বীপ, চট্টগ্রাম
  • সোনাদিয়া দ্বীপ বিখ্যাত – সামুদ্রিক মাছ শিকারের জন্য
  • বাংলাদেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ – সেন্টমার্টিন
  • শীতল ঝর্নার পাহাড় আছে – হিমছড়িতে
  • মৌলভিবাজার জেলার বড়লেখায় অবস্থিত – মাধবকুন্ডু জলপ্রপাত
  • গরম পানির ঝরনা অবস্থিত – সীতাকুন্ড পাহাড়ে
  • বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ দ্বীপের নাম – ভোলা
  • দেশের বৃহত্তম ব-দ্বীপ – সুন্দরবন
  • মনপুরা দ্বীপ অবস্থিত – ভোলা জেলায়
  • কালা পাহাড় বা পাহাড়ের রাণী বলা হয় – চিম্বুক পাহাড়কে
  • বাংলাদেশের একমাত্র পাহাড়ী দ্বীপ – মহেশখালী
  • দক্ষিণ তালপট্টি দ্বীপ অবস্থিত – হাঁড়িয়াভাঙ্গা নদীর মোহনায়, সাতক্ষীরা
  • চিম্বুক পাহাড় অবস্থিত – বান্দরবান
  • নিঝুম দ্বীপ অবস্থিত – মেঘনার মোহনায়, নোয়াখালী
  • চন্দ্রনাথ পাহাড় অবস্থিত – সীতাকুন্ডে


<<< জেনে নিন কিছু ফোবিয়া বা ভীতির নাম >>>

¤¤ সোস্যালফোবিয়া- সামাজিক হেনস্তাভীতি
¤¤ অফিডিওফোবিয়া- সাপভীতি
¤¤ সাইনোফোবিয়া- কুকুরভীতি
¤¤ এরোফোবিয়া- উড্ডয়নভীতি
¤¤ ক্লাসট্রোফোবিয়া- আবদ্ধ বা সংকীর্ন স্হানে আটকে মরার ভয়
¤¤ হাইড্রোফোবিয়া- জলভীতি
¤¤ আর্সনফোবিয়া- আগুনভীতি
¤¤ এন্ড্রোফোবিয়া- মেয়েদের পুরুষভীতি
¤¤ গ্লসোফোবিয়া- জনগনের সামনে দাড়িয়ে বক্তব্য প্রদানের ভীতি
¤¤ অটোফোবিয়া- একাকীত্বের ভীতি
¤¤ এস্ট্রোফোবিয়া- বজ্রপাতভীতি
¤¤ এক্সামফোবিয়া- পরীক্ষাভীতি
¤¤ এগোরাফোবিয়া- জনগনের মুখোমুখি হবার ভীতি
¤¤ এনাক্লোফোবিয়া- ভীড়ভীতি
¤¤ সুরিফোবিয়া- ইঁদুরভীতি
Q: ইংরেজি সাহিত্যের জনক→Jeoffery Chaucer
Q: 'Renaissance' কথাটির অর্থ →the revival of life
Q: Shakespeare এর জন্ম মৃত্যু→ 1564-1616
Q: Shylock যে নাটকের চরিত্র, সে নাটকটির নাম→The merchant of venice(রচয়িতা  William Shakespeare) 
Q: 'Macbeth'(শেক্সপিয়রের লিখা) is a→play
Q: Shakespeare's king lear is a→tragedy
Q: Shakespeare's 'julius caesar' is a→tragedy
Q: ইংরেজি গদ্যের(Prose) জনক →Francis Bacon
Q: 'Silent Woman' এর লেখক→Ben Jonson
Q: 'The Daffodils' কি জাতীয় রচনা→কবিতা
Q: English epic(মহাকাব্য) poet→John Milton
Q: Paradise Lost, Paradise Regained, Lycidas এর রচয়িতা→John Milton
Q: প্রথম ইংরেজি অভিধানের রচয়িতা→Samuel Johnson
Q: Gulliver's Travels পুস্তকটির রচয়িতা→Jonathan Swift
Q: ইংরেজি উপন্যাসের জনক→Henry Fielding
Q: 'Robinson Crusoe' উপন্যাসটির লেখক→Daniel Defoe
Q: ইংরেজি সাহিত্যে 'Poet of nature' নামে পরিচিত→William Wordsworth
Q: 'poet of beauty' নামে পরিচিত→John Keats
Q: 'Heaven and Earth এর লেখক→ Lord Byron
Q: একাধারে কবি ও চিত্রশিল্পী→Blake
১/ পৃথিবীর প্রাচীনতম সভ্যতা কোনটি? → মেসোপটেমীয় সভ্যতা
২/ বুড়িমারী স্থল বন্দর কোন উপজেলায় অবস্থিত? → পাটগ্রাম
৩/ ২১ শে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করে? → ইউনেস্কো( ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর) 
৪/ গম্ভীরা বাংলাদেশের কোন অঞ্চলের গান? → চাঁপাইনবাবগঞ্জ
৫/ বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস? → ১০ জানুয়ারি ১৯৭২
৬/ FAO এর সদর দপ্তর? → রোম
৭/ ডায়েট কোন দেশের পার্লামেন্ট? → জাপান
৮/ মালয়েশিয়ার মুদ্রার নাম? → রিংগিত
৯/ স্বাধীন বাংলাদেশর প্রথম সরকার গঠিত হয় কবে? → ১০ এপ্রিল ১৯৭১
১০/ মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো: আব্দুল হামিদ কততম রাষ্ট্রপতি? → ২০তম
১১/ বাংলা একাডেমি প্রতিষ্ঠিত হয়? → ১৯৫৫ সালে
১২/ 'সাবাস বাংলাদেশ' ভাস্কর্যটি কোথায় অবস্থিত? → রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে
১৩/ নেলসন ম্যান্ডেলা কত সালে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন? → ১৯৯৩ সালে
১৪/ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের স্থপতি কে? → হামিদুর রহমান
১৫/ বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত হয় কবে? → ৫ জুন
১৬/ ১১তম বিশ্বকাপ ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন দল কোনটি? → অস্ট্রেলিয়া
১৭/ বাংলাদেশের বার্ষিক গড় বৃষ্টিপাত কত? → ২০৩ সেঃমিঃ
১৮/ কোন মৌলিক ধাতু সাধারণ তাপমাত্রয় তরল থাকে? → পারদ
১৯/ কোন ভিটামিনের অভাবে স্কার্ভি রোগ হয়? → ভিটামিন সি
২০/ এপিকালচার বলতে কি বোঝায়? → মৌমাছি চাষ
২১/ বাংলাদেশ সংবিধানের মূলনীতি কয়টি? → ৪টি
২২/ কোনো দেশোর ভারসাম্য রক্ষার জন্য সেই দেশের কতভাগ বনভূমি প্রয়োজন? → ২৫ ভাগ
২৩/ সাধারণ বৈদ্যুতিক বাল্বের ভিতর কি গ্যাস থাকে? → নাইট্রোজেন
২৪/ ভূমিকম্প মাপার যন্ত্রের নাম কি? → সিসমোগ্রাফ
২৫/ আমিষ বেশি আছে কোনটিতে? → মসুর ডাল
 
Share This
Language
error: Content is protected !!